আবেগের বশবর্তী হয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়েছিলাম: ফেরদৌস

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে কারও পক্ষে প্রচারণায় অংশ নেওয়া পরিকল্পনা ছিল না বরং আবেগের বশবর্তী হয়ে এই কাজ করে ফেলেছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের চিত্রনায়ক ফেরদৌস।
ফেরদৌস। ফাইল ছবি

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে কারও পক্ষে প্রচারণায় অংশ নেওয়া পরিকল্পনা ছিল না বরং আবেগের বশবর্তী হয়ে এই কাজ করে ফেলেছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের চিত্রনায়ক ফেরদৌস।

শর্ত ভঙ্গ করার অভিযোগে ভারত সরকার তার ভিসা বাতিল করার পর দেশে ফিরে ফেরদৌস আজ বুধবার এক বিবৃতিতে এই কথা বলেছেন।

ভিসার শর্ত ভঙ্গ করায় ফেরদৌসকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে ভারত সরকার। এর ফলে তার ভবিষ্যৎ ভারত ভ্রমণে বড় প্রশ্নচিহ্ন পড়ে গেছে।

ফেরদৌস বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের অনেক শিল্পী, সাহিত্যিক তার বন্ধু। এজন্য বিভিন্ন সময় কারণে অকারণে সেখানে তার যাতায়াত লেগেই থাকে। ভারতে যখন নির্বাচনী প্রচারণা চলছে তখন ঘটনাচক্রেই তিনি সেখানে ছিলেন। এর বাইরে ভারতগমনে তার অন্য কোনো উদ্দেশ্য ছিল না।

তাহলে কেন তিনি নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে গেলেন- এর ব্যাখ্যায় বলেন, “সকলের মতো আমারও আগ্রহের জায়গায় ছিল এই নির্বাচন। ফলে ভাবাবেগ তাড়িত হয়ে পশ্চিমবঙ্গে একটি নির্বাচনী প্রচারণায় সহকর্মীদের সঙ্গে অংশগ্রহণ করি। এটা পূর্বপরিকল্পনার অংশ ছিল না। শুধুমাত্র আবেগের বশবর্তী হয়ে আমি অংশগ্রহণ করেছি।”

তার দাবি, “কারো প্রতি বিশেষ আনুগত্য প্রদর্শন বা কোন বিশেষ দলের প্রচারণার লক্ষ্যে নয়, আবার কারো প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করাও আমার উদ্দেশ্য নয়। ভারতের সকল রাজনৈতিক দল এবং নেতার প্রতি আমার সম্মান রয়েছে। আমি ভারতের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল।”

আরও পড়ুন: ফেরদৌসের ভিসা বাতিল, ভারত ছাড়ার নির্দেশ

Comments

The Daily Star  | English

No global leader raised any questions about polls: PM

The prime minister also said that Bangladesh's participation in the Munich Security Conference reflected the country's commitment to global peace

3h ago