এসএম হলে হামলা: দু-একদিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেবে তদন্ত কমিটি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে (এসএম হল) ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর ও তার সঙ্গীদের ওপর হামলা-ডিম নিক্ষেপের ঘটনায় আগামী দু-একদিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তদন্ত কমিটির প্রধান অধ্যাপক সাব্বীর আহমেদ।
nur brief
৩ এপ্রিল ২০১৯, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে (এসএম হল) শিক্ষার্থী ফরিদ হাসানকে মারধর ও আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার বিচার চেয়ে সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের সামনে বক্তব্য রাখেন ডাকসুর ভিপি নুরল হক নুর। ছবি: পলাশ খান

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে (এসএম হল) ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর ও তার সঙ্গীদের ওপর হামলা-ডিম নিক্ষেপের ঘটনায় আগামী দু-একদিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তদন্ত কমিটির প্রধান অধ্যাপক সাব্বীর আহমেদ।

আজ (৫ মে) দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনের সঙ্গে আলাপকালে এসএম হলের আবাসিক এই শিক্ষক বলেন, “তদন্তের কাজ প্রায় শেষ। আগামী দু-একদিনের মধ্যে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে প্রতিবেদন জমা দেব। পরে সেটি প্রক্টর অফিস হয়ে উপাচার্যের কাছে চলে যাবে।”

হামলার ঘটনা তদন্তে কোন বিষয়গুলোকে প্রাধান্য দিয়েছেন? জানতে চাইলে অধ্যাপক সাব্বীর আহমেদ বলেন, “উক্ত ঘটনায় ভুক্তভোগী ও প্রত্যক্ষ দোষী এবং সংশ্লিষ্ট সবার সাক্ষ্য নিয়েছি। হলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও সাক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। এছাড়াও গণমাধ্যমে প্রচারিত ভিডিও ফুটেজ, মোবাইল ফোনের ফুটেজ এবং হলের সিসিটিভি ফুটেজসহ সবকিছু দেখা হয়েছে।”

এসব কারণেই তদন্তে একমাস সময় লেগেছে জানিয়ে তিনি আরও বলেন, “আমরা বারবার বলে এসেছি যে, এই ঘটনাটির ব্যাপকতা অনেক বেশি, এটিকে সাতদিনে শেষ করা যাবে না।”

এর আগে, গত ৩ এপ্রিল এসএম হলের প্রাধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম জোয়ার্দার জানিয়েছিলেন যে, তদন্ত কমিটিকে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

যদিও তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে দেরি হওয়ার কারণ হিসেবে আজ তিনি বলেছেন, “আমি তদন্ত কমিটি করে দিয়েছি। উনারা কাজ করছেন। এখানে অনেক ছেলে-মেয়ে জড়িত। উনারা সবাইকে ডেকে ডেকে কথা বলেছেন, এজন্য সময় লেগেছে। তাছাড়া, এর মাঝখানে ঝড়বৃষ্টি, পহেলা বৈশাখ গেল। এজন্য উনাদের একটু দেরি হয়েছে।”

তদন্ত প্রতিবেদন জমাদানের পর দোষীদের শাস্তির আওতায় আনার প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে এসএম হলের প্রাধ্যক্ষ বলেন, “তদন্ত কমিটি আমার কাছে প্রতিবেদন জমা দিলে, আমি সেটি উপাচার্যের কাছে পাঠিয়ে দেব। তারপর বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিসিপ্লিনারি কমিটি সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।”

এ বিষয়ে ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, “গত ২ মে দুপর ১টায় আমরা উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে দেখা করে ওই হামলার ঘটনায় তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চেয়েছি। তখন তিনি আমাদের বলেছেন যে, এ মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়া যাবে।”

“এখন আমরা আগামী ৭ মে পর্যন্ত অপেক্ষা করবো। এরপরও যদি এ বিষয়ে কোনো অগ্রগতি না দেখি, তাহলে আমরা ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য যে ধরণের কর্মসূচী বা প্রতিবাদ করা দরকার তা করবো,” যোগ করেন নুর।

এর আগে, এসএম হলের ঘটনায় ১৩ জন ছাত্রলীগের পদধারী হামলাকারীকে চিহ্নিত করে তাদের নাম ও পরিচয়সহ তদন্ত কমিটির কাছে লিখিত অভিযোগপত্র দেওয়ার কথা জানিয়েছিলেন নুর।

উল্লেখ্য, এসএম হলে গত ১ এপ্রিল রাতে হল সংসদের জিএস জুলিয়াস সিজার ও হল শাখা ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতাদের উপস্থিতিতে মারধরের শিকার হওয়ার অভিযোগ আনেন হল সংসদ নির্বাচনে জিএস পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী স্বতন্ত্র প্রার্থী ফরিদ হাসান। তার কপালের ডান পাশ ও ডান কানে মোট ৩২টি সেলাই পড়ে।

এর পরদিন মঙ্গলবার এ ঘটনার বিচার চেয়ে এসএম হলের প্রাধ্যক্ষ মাহবুবুল আলম জোয়ার্দারকে স্মারকলিপি দিতে গিয়ে ফের ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের হাতে লাঞ্ছিত হওয়ার অভিযোগ করেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর, সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন, শামসুন নাহার হল সংসদের ভিপি শেখ তাসনিম আফরোজ ইমি, ডাকসুতে স্বতন্ত্র ভিপি প্রার্থী অরণি সেমন্তি খান ও ছাত্র ফেডারেশন থেকে ডাকসুর জিএস প্রার্থী উম্মে হাবিবা বেনজিরসহ বেশ কয়েকজন।

সেসময় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা নুর ও আখতারসহ তাদেরকে প্রাধ্যক্ষের কক্ষে অবরুদ্ধ করে রাখেন বলে অভিযোগ করেন তারা। এছাড়াও বেনজিরের অভিযোগ, পেটে লাথির আঘাত পেয়ে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। অরণির অভিযোগ, পেছন থেকে তাকে লাথি ও ঘুষি মারা হয়। ইমির অভিযোগ, তাকেসহ অন্যদের লক্ষ্য করে ডিম ছুড়ে মারা হয়েছে। এসময় নিজের গায়েও ডিম লাগে বলে এসএম হলের প্রাধ্যক্ষ দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনের কাছে স্বীকার করেন।

এসব ঘটনায় গত ৩ এপ্রিল এসএম হলের আবাসিক শিক্ষক অধ্যাপক সাব্বীর আহমেদকে প্রধান করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে হল কর্তৃপক্ষ। তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন হলের আবাসিক শিক্ষক আবু বিন হাসান সুসান, জাহিদ উল আরেফিন চৌধুরী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আবু হোসেন মুহম্মদ আহসান।

আরও পড়ুন:

অন্তত ১৩ জন ছাত্রলীগের পদধারী হামলাকারীকে চিহ্নিত করেছি: নুর

খালি ওদের ওপর ডিম মারেনি, ডিম তো আমিও খেয়েছি: প্রাধ্যক্ষ

ভিপি নুরুলের ওপর হামলা: উপাচার্যের বাসভবনের সামনে বিক্ষোভ

‘ছাত্রলীগের’ হাতে অবরুদ্ধ ভিপি নুর, প্রাধ্যক্ষের হস্তক্ষেপে উদ্ধার

Comments

The Daily Star  | English

Attack on Rafah would be 'nail in coffin' of Gaza aid: UN chief

A full-scale Israeli military operation in Rafah would deliver a death blow to aid programmes in Gaza, where humanitarian assistance remains "completely insufficient", the UN chief warned today

2h ago