ওয়েস্ট ইন্ডিজকে গুঁড়িয়ে জিতল বাংলাদেশ

ত্রিদেশীয় সিরিজে আয়ারল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে শুরু করা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে এবার গুঁড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ।
Soumya-Tamim
ফাইল ছবি

মাশরাফি মর্তুজা, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনদের বোলিংয়ে লক্ষ্যটা মিলেছিল নাগালের ভেতর। সেই লক্ষ্যে নেমে তামিম ইকবাল আর সৌম্য সরকার মিলে এনে দিলেন দুর্দান্ত শুরু। দুই ওপেনারের ১৪৪ রানের ভিতের পর সাকিব আল হাসান আর মুশফিকুর রহিম কাজটা সেরেছেন সহজে। ২৬২ রান তাড়ায় ৫ ওভার হাতে রেখে ৮ উইকেটে জিতেছে বাংলাদেশ। 

ত্রিদেশীয় সিরিজে আয়ারল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে শুরু করা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে এবার গুঁড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ৫০ ওভারে ২৬১/৯ (হোপ ১০৯, আমব্রিস ৩৮, ব্রাভো ১, চেইস ৫১, কার্টার ১১, হোল্ডার ৪, ডাওরিচ ৬, নার্স ১৯, রোচ ১, কটরেল ৪*, গ্যাব্রিয়েল ০; সাইফ ২/৪৭, মাশরাফি ৩/৪৯, মুস্তাফিজ ২/৮৪, সাকিব ১/৩৩, মিরাজ ১/৩৮)
বাংলাদেশ:    ৪৫ ওভারে ২৬৪/২  (তামিম ৮০, সৌম্য ৭৩, সাকিব ৬১* , মুশফিক ৩২*  ; কটরেল ০/৪৩   , রোচ ০/৩০,  গ্যাবব্রিয়েল ১/৫৮, হোল্ডার ০/২৭, নার্স ০/৪৬, চেজ ১/৫১) 
ফল: বাংলাদেশ ৮ উইকেট জয়ী। 

সৌম্যের, তামিমের পর সাকিবেরও ফিফটি

ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাঝারি লক্ষ্য পাত্তাই দিচ্ছে না বাংলাদেশ। ফিফটি করে দুই ওপেনার তামিম ইকবাল (৮০) ও ও সৌম্য সরকার (৭৩) আউট হওয়ার পর ফিফটি পেয়েছেন সাকিব আল হাসানও। ৫৬ বলে ২ চার, ২ ছক্কায় ফিফটি করেন তিনি। ২৬২ রানের লক্ষ্যে ৪৩ ওভারেই বাংলাদেশ তুলে ফেলেছেন ২৩৭ রান।  



৭৩ করে ফিরলেন সৌম্য

যেমন খেলছিলেন সেঞ্চুরির আশা করতেই পারতেন। রোস্টন চেজকে মারা শটেও গোলমাল ছিল সামান্য। কিন্তু বাউন্ডারি লাইনে তার ক্যাচ দারুণ দক্ষতায় লুফে নেন ড্রারেন ব্রাভো। ৬৮ বলে ৭৩ করে ফেরেন সৌম্য। তবে সাকিবকে নিয়ে আরেক জুটি গড়ে দলকে জেতার পথে নিয়ে যাচ্ছেন তামিম। ৩৩ বলে ১ উইকেটে বাংলাদেশের রান ১৮২। তামিম ব্যাট করছেন ৭৮ রান, সাকিব আছেন ১৮ করে।  



সৌম্যের পর তামিমের ফিফটি 


সৌম্য সরকারের পর ফিফটি তুলে নিয়েছেন তামিম ইকবালও। তবে সৌম্যের মতো অতটা আগ্রাসী নয়, বেশ মন্থর গতিতে ৭৮ বলে ৫ বাউন্ডারিতে ক্যারিয়ারের ৪৫তম ফিফটিতে পৌঁছান তিনি। এই দুজনের ব্যাটে ২৬২ রান তাড়ায় ২৪ ওভারে বিনা উইকেটে ১৩৩ তুলে ফেলেছে বাংলাদেশ। 



শতরানের জুটি

অনায়াসে ব্যাট করে শতরানের জুটি গড়েছেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। ২২ ওভার শেষে দলের রান বিনা উইকেটে ১২১। সৌম্য ৫৭ বলে ৬৩ ও তামিম ৭৫ বলে ৪৭ রান নিয়ে খেলছেন।

সৌম্যের ঝলমলে ফিফটি

তামিম ইকবাল ছিলেন অতি সাবধানী, তাই রান বাড়াতে শুরু থেকেই নাগালে পেলে মারছিলেন সৌম্য সরকার। তবে ছিল না ঝুঁকি। ঝুঁকিহীনভাবে বলে রানে পাল্লা দিয়েও তুললেন ফিফটি। ৪৭ বলে ১ ছক্কা আর ৭ চারে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের অষ্টম ফিফটি তুলে নেন সৌম্য। ১৮ ওভারে দলের রানও হয়ে গেছে ৯৩। সৌম্যের দাপটে অনেকটা আড়ালে পড়া তামিম খেলছেন ৬১ বলে ৩২ রান নিয়ে। 

দুই ওপেনারের সাবলীল ব্যাটিং

এক পাশে সতর্ক তামিমের পাশে রান বাড়াচ্ছেন সৌম্য। লক্ষ্যের দিকে ছুটছে বাংলাদেশ। ১৬ ওভারে দলের রান বিনা উইকেটে ৭৮। সৌম্য ৩৮, তামিম খেলছেন ৩০ রান নিয়ে। 



বাংলাদেশের সাবধানী শুরু


লক্ষ্যটা নাগালের মধ্যে। উইকেট কিছুটা মন্থর হলেও ব্যাট করার জন্য বেশ ভালো। এমন অবস্থায় তাই দেখেশুনে ব্যাট করেছেন তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার।

২৬২ রানের লক্ষ্যে নেমে প্রথম ১০ ওভার শেষে বিনা উইকেটে ৩৮ রান তলেছে বাংলাদেশ। ৩৩ বলে ১৪ রান নিয়ে ব্যাট করছেন তামিম,   ২৭ বলে ২১ রান নিয়ে তার সঙ্গী সৌম্য।

শেষ দশ ওভারের বোলিংয়ে সহজ লক্ষ্য বাংলাদেশের 

ব্যাটিং বান্ধব উইকেট, একপাশে ছোট মাঠ। টস জিতে নির্দ্বিধায় ব্যাটিং নেওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ শুরুটাও পেয়েছিল দারুণ। কিন্তু শেই হোপের সেঞ্চুরির পর স্লগ ওভারে পথ হারায় তারা। ক্যারিবিয়ানদের ২৬১  রানে আটকে দিয়ে তাই সহজ লক্ষ্য পেয়েছে বাংলাদেশ।

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের প্রথম ম্যাচ জিততে  ২৬২ রান তাড়া করতে হবে তামিম ইকবালদের।

৪০ ওভার শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান ছিল ২ উইকেটে ১৯৭ রান। সেঞ্চুরি করে ব্যাট করছিলেন শেই হোপ আর রোস্টন চেজ ক্রিজে ছিলেন ফিফটি করে। এই অবস্থা থেকে অনায়াসে রানটা তিনশোর কাছে নিয়ে যেতে পারত তারা। কিন্তু এরপরই বদলে যায় ম্যাচের ছবি।

অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা তার শেষ স্পেলে টানা তিন উইকেট নিয়ে চেজ, হোপ আর জেসন হোল্ডারকে ফিরিয়ে দেন। এক পাশে অ্যাশলে নার্স কিছু রান আনলেও এরপর পথ হারিয়ে টানা উইকেট খোয়াতে থাকে ক্যারিবিয়ানরা। তাই আসেনি স্লগ ওভারের ঝড়।

সাকিবের অবিশ্বাস্য ক্যাচে উইকেট পেলেন মোস্তাফিজ 

মোস্তাফিজুর রহমানের বলে লং অন দিয়ে মারতে গিয়ে সাকিব আল হাসানের অবিশ্বাস্য ক্যাচে ফিরেছেন জোনাথন কার্টার। ২৪৫ রানে ৭ উইকেট হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

ডাওরিচকে ফেরালেন সাইফুদ্দিন

মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন অভিষিক্ত শেন ডওরিচ। ২১৯ রানে ৬ উইকেট হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 



এক ওভারে জোড়া উইকেট মাশরাফির

দারুণ সেঞ্চুরি করে আরও বড় কিছুর দিকে ছুটতে থাকা শেই হোপকে ফেরানোর পর জেসন হোল্ডারকেও এক বল পর আউট করে দিয়েছেন মাশরাফি। ২১১ রানে পঞ্চম উইকেট হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১০ ওভারের স্পেলে ৪৯ রানে ৩ উইকেট নেন মাশরাফি। 



চেজকে ফিরিয়ে ব্রেক থ্রো মাশরাফির 

শেই হোপের সঙ্গে ১১৫ রানের জুটি গড়ে ফিরেছেন রোস্টন চেজ। ৬২ বলে ৫১ করা চেজ মাশরাফি মর্তুজার বলে পুল করতে গিয়ে স্কয়ার লেগে ক্যাচ দেন। ২০৫ রানে তৃতীয় উইকেট হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 



হোপের সেঞ্চুরি 

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে  আগের ম্যাচে ১৭০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। বাংলাদেশের বিপক্ষে সেই ছন্দে ধরে খেলে চলেছেন শেই হোপ। তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ ওয়ানডে সেঞ্চুরিল। সাইফুদ্দিনকে চার মেরে ১২৬ বলে তিন অঙ্কে পৌঁছান হোপ। ফিফটি করেছেন আরেক প্রান্তে থাকা রোস্টন চেজ।৪০ ওভার শেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্কোর ২ উইকেটে ১৯৭ রান। 

এবার উইকেট নিলেন সাকিব 

সুনিল আম্ব্রিসকে ফিরিয়ে প্রথম উইকেট এনে দিয়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। পরের ওভারেই আঘাত হানলেন সাকিব আল হাসান। তার বলে ওয়ানডাউনে নামা ড্যারেন ব্রাভো উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন। যদিও আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে নাখোশ ছিলেন ব্রাভো। তবে রিভিউ না থাকায় ফেরত যেতে হয়েছে তাকে। ৯০ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 



মাহমুদউল্লাহর দারুণ ক্যাচে প্রথম আঘাত মিরাজের 

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ওপেনাররা রয়েসয়ে শুরুর পর মেলছিলেন ডানা। তরতরিয়ে বাড়ছিল রান। একটা ব্রেক থ্রো তাই দরকার ছিল ভীষণ। বল করতে এসে দ্বিতিয় বলেই সেই কাজটা করে দেন অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। তার বল এগিয়ে এসে উড়াতে গিয়েছিলেন সুনিল আম্ব্রিস। কাভারে দাঁড়ানো মাহমুদউল্লাহ বাদিকে লাফিয়ে জমান দারুণ এক ক্যাচ। ৮৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৫০ বলে ৩৮ রান করে ফেরেন আম্রিস। 



ওয়েস্ট ইন্ডিজের ভালো শুরু 

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের আটঁসাট বোলিংয়ে রয়েসয়ে শুরু করেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মাশরাফি মর্তুজা আর মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন রান আটকে রাখতে পারলেও পারেননি উইকেট ফেলতে। তাই সময়ের সঙ্গেই ডানা মেলা শুরু করেছেন ওদের দুই ওপেনার সুনিল আম্রিস ও শেই হোপ। প্রথম ১৫ ওভারে এই দুজন তুলে নিয়েছেন ৮০ রান।  ওয়েস্ট ইন্ডিজ- ৮০/০ (১৫ ওভার)



টস হেরে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, একাদশে নেই লিটন 



ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টস  হেরে ফিল্ডিং পেয়েছে বাংলাদেশ। একাদশে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকা খেলোয়াড়রাই জায়গা পেয়েছেন।

উইকেট ব্যাটিং বান্ধব দেখে বিনা দ্বিধায় ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। টস জিতে ব্যাটিং নিতেন বলে জানান বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজাও।

নিউজিল্যান্ড সফরের সর্বশেষ ওয়ানডে সিরিজে তামিম ইকবালের সঙ্গে ওপেনিং করেছিলেন লিটন দাস। তার জায়গায় ওপেনিংয়ে নামছেন সৌম্য সরকার। ওই সিরিজে সৌম্য ওয়ানডাউনে খেললেও চোট কাটিয়ে দলে ফেরা সাকিব আল হাসান নামছেন তার পছন্দের ওয়ানডাউনে।

আয়ারল্যান্ডে গিয়ে প্রস্তুতি ম্যাচে না খেললেও অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজার সঙ্গে পেস আক্রমণে আছেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

স্পিন অলরাউন্ডার হিসেবে জায়গা ধরে রেখেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। একাদশ একটা বদল এনেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আগের ম্যাচে ১৭৯ রানের দানবীয় ইনিংস খেলা ওপেনার জন ক্যাম্পবেলের চোটের কারণে  জায়গায় ওয়ানডে অভিষেক হয়েছে শেন ডওরিচের।  

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, মাশরাফি মর্তুজা, মোস্তাফিজুর রহমান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: শেন ডওরিচ, শেই হোপ, ড্যারেন ব্রাভো, রোস্টন চেজ,  জনাথন কার্টার, সুনিল আম্ব্রিস, অ্যাসলে নার্স, জেসন হোল্ডার, কেমার রোচ, শেলডন কোটরেল, শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

Comments

The Daily Star  | English

Mirpur: From a backwater to an economic hotspot

Mirpur was best known as a garment manufacturing hub, a crime zone with rough roads, dirty alleyways, rundown buses, a capital of slums called home by apparel workers and a poor township marked by nondescript houses.

16h ago