আবারও ‘জয় শ্রী রাম’ শুনে তেলেবেগুনে জ্বলে উঠলেন মমতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আবার ধৈর্য হারালেন। একটি রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যাওয়ার পথে গতকাল (৩০) সন্ধ্যার কিছু আগে কলকাতার অদূরে ভাটপাড়ায় মুখ্যমন্ত্রীর গাড়ির বহরের পাশে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান শুনে তিনি উত্তেজিত হয়ে পড়েন এবং ‘ক্রিমিনাল’, ‘ভরে দেবো’, ‘থাকতে পারবি না’, ‘বহিরাগত’- এসব মন্তব্য করেন।
mamata banerjee
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: রায়টার্স ফাইল ফটো

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আবার ধৈর্য হারালেন। একটি রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যাওয়ার পথে গতকাল (৩০) সন্ধ্যার কিছু আগে কলকাতার অদূরে ভাটপাড়ায় মুখ্যমন্ত্রীর গাড়ির বহরের পাশে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান শুনে তিনি উত্তেজিত হয়ে পড়েন এবং ‘ক্রিমিনাল’, ‘ভরে দেবো’, ‘থাকতে পারবি না’, ‘বহিরাগত’- এসব মন্তব্য করেন।

মুখ্যমন্ত্রীর যাত্রা পথে বারবার এই স্লোগান উঠায় তাকে তিন-চারবার গাড়ি থেকে নামতে হয়।

শুধু গাড়ি থেকে নেমেই ক্ষান্ত হননি তৃণমূল সভানেত্রী। অগ্নিমূর্তি ধারণ করে তিনি তার  ‘নিরাপত্তার বলয়’ ভেঙে স্লোগানকারীদের ধরতেও চেষ্টা করেন। এমনকী, স্লোগানকারীদের জেলে ভরে দেওয়ারও হুমকি দেন মমতা।

মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিয়োজিত সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাদের ওই এলাকা তল্লাশি বসানোর নির্দেশও দেন।

সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “দেখুন, এরা আমায় গালিগালাজ করছে আর আমার গাড়িতে হামলা চালানোরও চেষ্টা করছে। এরা রাজ্যের মানুষ নয়। আমরা এদের খাইয়ে-পড়িয়ে রাখছি আর এরা এখানে এসে অশান্তি করছে।”

মুখ্যমন্ত্রীর যাত্রাপথে কমপক্ষে তিন-চারবার এই ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান শুনে দাঁড়িয়ে পড়েন এবং ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।

নির্বাচনী প্রচারে মেদিনীপুরে একইভাবে মমতা ধৈর্য হারান ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান শুনে। তিনি এই স্লোগানকে গালি বলেও মন্তব্য করেন।

‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগানটি বিজেপি ব্যবহার করে। আর এ কারণে এই স্লোগান শুনলে এখন তেলেবেগুনে জ্বলে উঠছেন মমতা।

আরও পড়ুন:

‘জয় শ্রী রাম’ বলায় গ্রেপ্তার ১০, বিজেপির থানা ঘেরাও কর্মসূচি

Comments

The Daily Star  | English
fire incident in dhaka bailey road

Fire Safety in High-Rise: Owners exploit legal loopholes

Many building owners do not comply with fire safety regulations, taking advantage of conflicting legal definitions of high-rise buildings, according to urban experts.

9h ago