শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের ভিড় বেড়েছে

দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের ভিড় বেড়েছে। তবে যানজট নেই। আসন্ন ঈদযাত্রায় এখন প্রস্তুত শিমুলিয়া ঘাট। যানজট নিরসনে নেওয়া হয়েছে নানা উদ্যোগ। এতে করে বহু মানুষ পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন লঞ্চ, স্পীডবোট ও ফেরিতে করে।
Munshiganj Shimuliya
৩১ মে ২০১৯, মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষের ভিড়। ছবি: স্টার/নাসির উদ্দিন

দক্ষিণবঙ্গের ২১ জেলার প্রবেশদ্বার মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের ভিড় বেড়েছে। তবে যানজট নেই। আসন্ন ঈদযাত্রায় এখন প্রস্তুত শিমুলিয়া ঘাট। যানজট নিরসনে নেওয়া হয়েছে নানা উদ্যোগ। এতে করে বহু মানুষ পদ্মা পাড়ি দিচ্ছেন লঞ্চ, স্পীডবোট ও ফেরিতে করে।

আজ (৩১ মে) সকাল থেকে শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষের চাপ বৃদ্ধি পায়। ঈদের আগে পরিবহনের দুর্ভোগ লাঘবে অনেকেই পরিবার-পরিজন নিয়ে আগেই গ্রামের বাড়িতে যাচ্ছেন।

শিমুলিয়াস্থ বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিসি) ম্যানেজার আব্দুল আলিম জানান, ঈদকে সামনে রেখে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন “ঈদের তিনদিন আগে ও পরে মোট ছয় দিন ট্রাক চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হবে। নৌরুটে ৮৭টি লঞ্চ, ১৮টি ফেরি ও দুই ঘাট মিলিয়ে ৫৪০টি স্পীডবোট চলাচল করবে। তবে এখন ফেরি চলছে ১৫টি। ক্রটিপূর্ণ ১০টি লঞ্চ ইতোমধ্যেই মেরামত করে ঘাটে নিয়ে আসা হয়েছে।”

লৌহজংয়ের ইউএনও কাবিরুল ইসলাম জানান, চার জন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে ঘাটে রয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। উত্তাল পদ্মায় যাতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কোনও নৌযান চলাচল করতে না পারে সেজন্য কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এরই অংশ হিসেবে ঈদের তিন দিন আগে ও পরে মোট ছয় দিন বাল্কহেড চলাচল বন্ধ থাকবে। প্রতিটি নৌযানেই লাইফ জ্যাকেটসহ জীবন রক্ষাকারী সরঞ্জাম প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka Airport Third Terminal: 3rd terminal to open partially in October

HSIA’s terminal-3 to open in Oct

The much anticipated third terminal of the Dhaka airport is likely to be fully ready for use in October, enhancing the passenger and cargo handling capacity.

9h ago