তামিম খেলছেন তো?

সংবাদ সম্মেলনেই এই প্রশ্নের উত্তর দুবার দিতে হয়েছে। দুই উত্তরে আছে কিছু ভিন্নতাও। দ্বিধা থেকে যাওয়ায় সংবাদ সম্মেলনে শেষে বেরিয়ে যেতেই অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজাকে আবার ধরতে হলো। মুখে স্বস্তি নিয়েই অধিনায়ক এক ধরণের নিশ্চয়তা দিলেন, ‘তামিমেরটা আর সমস্যা না। ও তো খেলবে। সাইফুদ্দিনকে নিয়ে একটু দেখতে হবে।’
Tamim Iqbal
ছবি: বিসিবি

সংবাদ সম্মেলনেই এই প্রশ্নের উত্তর দুবার দিতে হয়েছে। দুই উত্তরে আছে কিছু ভিন্নতাও। দ্বিধা থেকে যাওয়ায় সংবাদ সম্মেলনে শেষে বেরিয়ে যেতেই অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজাকে আবার ধরতে হলো।  মুখে স্বস্তি নিয়েই অধিনায়ক এক ধরনের নিশ্চয়তা দিলেন, ‘তামিমেরটা আর সমস্যা না। ও তো খেলবে। সাইফুদ্দিনকে নিয়ে একটু দেখতে হবে।’

গতকাল (শুক্রবার) অনুশীলনে হাতে ব্যথা পাওয়ার পরই তামিম ইকবালের মাঠ ছেড়ে যাওয়ায় শঙ্কা জেগেছিল। কিন্তু এক্স-রে পরীক্ষায় কোন চিড় ধরা না পড়ায় শঙ্কার মেঘ উবেও গিয়েছিল। তবে হাতের ফোলা ও ব্যথা না কমায় থেকে যাচ্ছে কিছুটা খচখচানি। এই ধরনের পরিস্থিতিতে খেলতে পারবেন কী না তা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে দুই ধরনের মত দিয়ে ফেলেছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

শুক্রবারের পরীক্ষায় কিছু ধরা পড়েনি, ব্যথা না কমায় শনিবার (আজ) ফের পরীক্ষা করা হয় তামিমকে। সেখানেও গুরুতর কিছু নেই। পিঠের চোটে আছেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। এই দুজনের খেলা না খেলা নিয়ে প্রশ্নের জবাবে অধিনায়ক জানান, ‘ওদের (সাইফুদ্দিন ও তামিম) ফিটনেস টেস্ট হবে আজকে। তামিম এরই মধ্যে ব্যাটিং করেছে। আজকের দিনও দেখা হবে। তারপরও ফিজিওর কলের উপরই নির্ভর করছে।’

তামিমের ফিটনেস নিয়ে একই রকম প্রশ্ন করেছিলেন এক বিদেশি সাংবাদিক। তার জবাবে অবশ্য অধিনায়ক জানালেন আসলে সিদ্ধান্তটা নেবেন তামিম ইকবালই, ‘তামিমের একটা ফিটনেস টেস্ট হবে। সে এর মধ্যে ফিজিওর সঙ্গে মাঠে আছে। ফিজিও সিদ্ধান্ত...আসলে ফিজিও না, তামিম নিজেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবে সে নিজে কেমন অনুভব করে। আপনারা জানেন নির্দিষ্ট করে ওই খেলোয়াড়ই বলতে পারে তার অবস্থা আসলে কেমন। আমার মনে হয় তামিমই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবে।’

তামিমের ব্যাপারে আশার বাতাসই বেশি। বেশি শঙ্কা যে সাইফুদ্দিনকে নিয়ে তাকেও বল করতে দেখা গেল। রুবেল হোসেন আর সাইফুদ্দিন দুজনকে একসঙ্গে নিয়েই অনুশীলন শুরু করলেন পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। এই দুজন থেকে কাকে আগামীকাল (রোববার) দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বাংলাদেশ নামাবে সেই সিদ্ধান্তের ফয়সালা হবে আজই।

Comments

The Daily Star  | English

Raids on hospitals countrywide from Feb 27: health minister

There will be zero tolerance for child deaths due to hospital authorities' negligence, he says

1h ago