রেকর্ড গড়ে পাকিস্তানকে হারাতে হবে ইংলিশদের

ইংল্যান্ডের মাঠ বরাবরই পয়া পাকিস্তানের জন্য। অথচ সে দেশে নিজেদের প্রথম ম্যাচে উইন্ডিজের বিপক্ষে রীতিমতো নাস্তানুবাদ হয়েছিল তারা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই ফিরে পেয়েছে তারা। ম্যাচের ফলাফল যাই হোক। অন্তত লড়াই করার পুঁজি পেয়েছে দলটি। তাও প্রতিযোগিতার ফেবারিট ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। তাদের ৩৪৯ রানের লক্ষ্য দিয়েছে এশিয়ার দলটি। জিততে হলে যে বিশ্বকাপের নতুন রেকর্ড গড়তে হবে স্বাগতিক দলটিকে।
ছবি: রয়টার্স

ইংল্যান্ডের মাঠ বরাবরই পয়া পাকিস্তানের জন্য। অথচ সে দেশে নিজেদের প্রথম ম্যাচে উইন্ডিজের বিপক্ষে রীতিমতো নাস্তানুবাদ হয়েছিল তারা। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেই ফিরে পেয়েছে তারা। ম্যাচের ফলাফল যাই হোক, অন্তত লড়াই করার পুঁজি পেয়েছে দলটি। তাও প্রতিযোগিতার ফেবারিট ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। তাদের ৩৪৯ রানের লক্ষ্য দিয়েছে এশিয়ার দলটি। জিততে হলে যে বিশ্বকাপের নতুন রেকর্ড গড়তে হবে স্বাগতিক দলটিকে।

বিশ্বকাপে এত রান তাড়া করে জেতেনি আর কেউ। ২০১১ বিশ্বকাপে এই ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই সর্বোচ্চ রান তাড়ার রেকর্ডটি গড়েছিল আয়ারল্যান্ড। ইংলিশদের করা ৩২৭ রান তাড়া করে জিতেছিল আইরিশরা। সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ডের মাঠে এমন রান চেজ হচ্ছে হরহামেশাই। এই পাকিস্তানের বিপক্ষেই কদিন আগে নিজেদের মাঠে দুইবার ৩৪০ কিংবা তার বেশি লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছে দলটি। তবে যেহেতু প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। যাদের নামের পেছনে রয়েছে আনপ্রেডিক্টেবল খ্যাতি। তাই এবার কাজটি কঠিনই হতে পারে ইংল্যান্ডের জন্য।

এদিন টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে দুই ওপেনার ফখর জামান ও ইমাম-উল-হক দারুণ সূচনা এনে দেন দলকে। ওপেনিং জুটিতেই আসে ৮২ রান। জুটি ভাঙার পর অবশ্য খুব বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারেননি আরেক ওপেনারও। তার কারণ অবশ্য ক্রিস ওকসের দুর্দান্ত এক ক্যাচ। এরপর ব্যাটিংয়ে নামেন অভিজ্ঞ মোহাম্মদ হাফিজ। জুটি বাঁধেন বাবর আজমের সঙ্গে। তৃতীয় উইকেটে ৮৮ রান যোগ করেন এ দুই ব্যাটসম্যান।

দলের সেরা ব্যাটসম্যান বাবর আজমও ভালো ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন। ব্যক্তিগত ১ রানে জীবন পেয়েছিলেন। ওকসের আরও একটি দারুণ ক্যাচে ফিরেছেন তিনি। তবে এর আগে দলের জন্য কার্যকরী ৬৩ রানের ইনিংস খেলেছেন। ৬৬ বলের ইনিংসটি ৪টি চার ও ১টি ছক্কায় সাজিয়েছেন এ ব্যাটসম্যান।

প্রথম বলেই ডাউন দ্য উইকেট খেলে চার মেরে শুরু করেন হাফিজ। ব্যক্তিগত ১৪ রানে অবশ্য জেসন রয়ের হাতে সহজ জীবন পেয়েছেন। তবে সে জীবন দারুণভাবে কাজে লাগিয়ে করেছেন দলের সর্বোচ্চ স্কোর। ওকসের আরও একটি দারুণ ক্যাচের বলী হবার আগে খেলেছেন ৮৪ রানের ইনিংস। ৬২ বলে ৮টি চার ও ২টি ছক্কায় সাজান নিজের ইনিংস।

দারুণ ব্যাট করেছেন অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদও। ৪৪ বলে করেন ৫৫ রান। ফলে ৩৪৮ রানের বড় সংগ্রহই পায় দলটি। ইংল্যান্ডের পক্ষে ৩টি করে উইকেট নিয়েছেন মইন আলি ও ক্রিস ওকস। এছাড়া ২টি উইকেট নেন মার্ক উড।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ৫০ ওভারে ৩৪৮/৮ (ইমাম ৪৪, ফখর ৩৬, বাবর ৬৩, হাফিজ ৮৪, সরফরাজ ৫৫, আসিফ ১৪, মালিক ৮, ওয়াহাব ৪, হাসান ১০*, শাদাব ১০*; ওকস ৩/৭১, আর্চার ০/৭৯, মইন ৩/৫০, উড ২/৫৩, স্টোকস ০/৪৩, রশিদ ০/৪৩)।

Comments

The Daily Star  | English

‘Ekush’ taught us not to bow down: PM

Prime Minister and Awami League (AL) President Sheikh Hasina today said that Bangladesh is moving forward with the ideals taught by the great Language Movement of 1952

47m ago