টন্টনে ভিন্ন মেজাজে বাংলাদেশ দল

ব্রিস্টল থেকে ঘণ্টা দেড়েকের পথ পেরিয়ে বিকেলে টনটন পৌঁছায় বাংলাদেশ দল। তবে দলের সবাই আসেননি। টানা দুদিনের বিশ্রাম দেওয়ায় সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবালরা নিজেদের মতো ঘুরে বেড়াচ্ছেন। যারা এসেছেন তাদের মধ্যেও কোন কিছু করার তাড়া নেই। ফাঁকা সময় পেয়ে নিজেদের মতন ফুরফুরে থাকার চেষ্টা করছেন সবাই।
ছবি: স্টার

ব্রিস্টল থেকে ঘণ্টা দেড়েকের পথ পেরিয়ে বুধবার (১২ জুন) বিকালে টনটন পৌঁছায় বাংলাদেশ দল। তবে দলের সবাই আসেননি। টানা দুদিনের বিশ্রাম দেওয়ায় সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবালরা নিজেদের মতো ঘুরে বেড়াচ্ছেন। যারা এসেছেন তাদের মধ্যেও কোনো কিছু করার তাড়া নেই। ফাঁকা সময় পেয়ে নিজেদের মতো ফুরফুরে থাকার চেষ্টা করছেন সবাই।

মেগাসিটি লন্ডনের তুলনায় কার্ডিফ আর ব্রিস্টল ছিল বেশ ছোট্ট শহর। টনটনকে শহর বলারও যেন উপায় নেই। ব্রিটেনের একদম মফস্বল এলাকা এই টনটন। এখানে উবার টেক্সি এখনো চালু হয়নি। বিশ্বকাপ উপলক্ষে কিছু কিছু অবশ্য পাওয়া যাচ্ছে। সন্ধ্যা সাতটার মধ্যেই বন্ধ হয়ে যায় পাবলিক বাস। চলাচলের জন্য তাই ভরসা কেবল টেক্সি ক্যাব।

বিকেল ঘনাতেই নিঝুম হয়ে যায় যে শহর, সেখানে রাত মানে তো পিনপতন নীরবতা। ক্রিকেটাররা অবশ্য এই নীরবতাতেই নিজেদের মতো থাকার সুযোগ পেয়েছেন বেশি।

স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় হোটেল হলিডে ইনে গিয়েই দেখা গেল সৌম্য সরকার, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন আর আবু জায়েদ রাহী বেরুচ্ছেন বাঙালি খাবারের খোঁজে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বৃষ্টিতে এক পয়েন্ট খোয়ানোর অস্বস্তি এখনো আছে সবার চোখে-মুখে। তবে জুনিয়র ক্রিকেটাররা নিজেদের মধ্যে হাসি-তামাশায় ফুরফুরে থাকার তরিকা বেছে নিয়েছেন। রাতে স্থানীয় এক বাংলাদেশি রেস্তোরায় পরিবারসমেত পাওয়া গেল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে। গম্ভীর চেহারায় ভালো-মন্দ ছাড়া কথা বাড়াননি।

অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকেও দেখা গেছে ব্যক্তিগত সময় কাটাতে। একেকজন একেকরকমভাবে সময় পার করছেন। বিশ্বকাপের তুমুল উত্তাপ সরিয়ে রেখে সবাই আপাতত যার যার মতো আয়েশে ব্যস্ত।

আগে থেকেই ঘোষণা থাকায় অন রেকর্ড কথা বলতে চাননি কেউ। অগত্যা ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন মিটিয়েছেন আবদার। শ্রীলঙ্কা ম্যাচের খচখচানি ব্রিস্টলেই ঝেড়ে ফেলে আসার কথা জানিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সামনের ম্যাচকে ঘিরে সব চিন্তা রাখতে চান তিনি, 'খেলাটা হলে ভালো হতো। জেতা-হারা তো পরের কথা অবশ্যই। আমরা সব খেলা জেতার জন্য এখানে এসেছি। নির্দিষ্ট কোনো ম্যাচকে লক্ষ্য করে আসিনি। প্রতিটি দলই কঠিন। সহজ কোনটিই না। যেটা শেষ হয়ে গেছে সেটা শেষ, শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ১ পয়েন্ট পেয়েছি। এটা শেষ। সামনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে খেলা ১৭ তারিখে। অনুশীলনে দুদিন বিশ্রাম আছে। ১৪ তারিখ থেকে অনুশীলন। আশা করি ভালো করব।'

Comments