মমতার সঙ্গে চিকিৎসকদের আলোচনা ইতিবাচক, সঙ্কট সমাধানের ইঙ্গিত

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আন্দোলনরত চিকিৎসকদের বৈঠক শেষ হয়েছে। প্রায় দেড় ঘণ্টার বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী ও আন্দোলকারীরা উভয়পক্ষই আলোচনাকে ইতিবাচক বলে মন্তব্য করেছেন।
নিরাপত্তার দাবিতে কলকাতায় চিকিৎসকদের আন্দোলন। আজ সোমবার মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে বৈঠকের পর ধর্মঘট প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত এসেছে। ছবি: স্টেটসম্যান/এএনএন

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আন্দোলনরত চিকিৎসকদের বৈঠক শেষ হয়েছে। প্রায় দেড় ঘণ্টার বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী ও আন্দোলকারীরা উভয়পক্ষই আলোচনাকে ইতিবাচক বলে মন্তব্য করেছেন।

যদিও চিকিৎসকরা কর্মবিরতি প্রত্যাহার করার বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সামনে কোনো ঘোষণা করেননি।

জুনিয়র চিকিৎসকরা বলছেন, যেখানে তারা আন্দোলন করছেন সেই নীল রতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আউটডোর গেটের সামনে মঞ্চ থেকে তাদের অবস্থান ঘোষণা করা হবে।

এর আগে স্থানীয় সময় বিকালে ৪টার পর রাজ্য সরকারের সচিবালয় নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন আন্দোলনকারী চিকিৎসকদের প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। সেখানে ১৪টি মেডিক্যাল কলেজের ২৮ জন চিকিৎসক প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন  স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য সহ সরকারের মুখ্য সচিবও।

বৈঠকে এক এক করে আন্দোলনকারীরা তাদের দাবি পেশ করেন। মুখ্যমন্ত্রীও ধৈর্য ধরে সব শোনেন এবং কোনো কোনো অভিযোগের ক্ষেত্রে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীও একমত পোষণ করেন এবং যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে দুপক্ষ আলোচনা করে এবং বৈঠক শেষে আন্দোলনের প্রত্যাহারের ঘোষণা আসে।

১১ জুন থেকে কলকাতা সহ গোটা পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য জুড়ে নিরাপত্তার দাবিতে জুনিয়র চিকিৎসকরা কর্মবিরতি শুরু করেন। সেদিন থেকেই রাজ্যে সরকারি চিকিৎসা পরিসেবা কার্যত ভেঙে পড়ে।

আরও পড়ুন: সমগ্র ভারতে চিকিৎসক ধর্মঘট, বিপদে বাংলাদেশি রোগীরাও

আরও পড়ুন: জুনিয়র চিকিৎসকদের আলোচনার শর্ত নিয়ে এখনো মুখ খুলেননি মমতা

আরও পড়ুন: মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা হতে হবে গণমাধ্যমের সামনে, শর্ত ডাক্তারদের

আরও পড়ুন: কলকাতার জুনিয়র চিকিৎসকদের সঙ্গে মমতার দূরত্ব বাড়ছেই

আরও পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ৩০০ চিকিৎসকের গণপদত্যাগ

Comments

The Daily Star  | English

7km tailback on Tangail side of Bangabandhu Bridge

Tk 3.80cr toll collected from the bridge in 24 hours

1h ago