আফগানিস্তানের বিপক্ষেই সবচেয়ে বেশি সতর্ক থাকবে বাংলাদেশ

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গত ম্যাচে ৪৮ রানে হেরেও সমর্থকদের বাহবা পেয়েছে বাংলাদেশ। একই ফল যদি আফগানিস্তানের বিপক্ষে হয় তাহলে কি অবস্থা হবে! এই পরিস্থিতি সম্পর্কে ভালোই ধারণা আছে ক্রিকেটারদের। দলের হয়ে কথা বলতে এসে মোহাম্মদ মিঠুন তাই বললেন, এই ম্যাচেই সবচেয়ে বেশি সতর্ক থাকবেন তারা।
Mohammad Mithun
মোহাম্মদ মিঠুন, ফাইল ছবি: ফিরোজ আহমেদ

অস্ট্রেলিয়ার  বিপক্ষে গত ম্যাচে ৪৮ রানে হেরেও সমর্থকদের বাহবা পেয়েছে বাংলাদেশ। একই ফল যদি আফগানিস্তানের বিপক্ষে হয় তাহলে কি অবস্থা হবে! এই পরিস্থিতি সম্পর্কে ভালোই ধারণা আছে ক্রিকেটারদের। দলের হয়ে কথা বলতে এসে মোহাম্মদ মিঠুন তাই বললেন, এই ম্যাচেই সবচেয়ে বেশি সতর্ক থাকবেন তারা।

সাউদাম্পটনে ভারতের বিখ্যাত ব্যাটিংলাইন আপ যখন কাঁপিয়ে দিচ্ছে আফগানিস্তান, একই শহরে বাংলাদেশ দলও সেই ম্যাচে নজর রাখছিল। মূল ভেন্যুতে খেলা থাকায় এদিন বাংলাদেশ দল বিকল্প জায়গায় রেখেছিল ঐচ্ছিক অনুশীলন। অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা, মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসেন, সাব্বির রহমান আর আবু জায়েদ রাহি কেবল গিয়েছেন অনুশীলনে।

বাকিদের সবাইকে দেখা গেছে হোটেলে আরাম আয়েশে সময় কাটাতে। তামিম ইকবালসহ কয়েকজন আবার হোটেল থেকে বেরিয়ে পাশের ফুড এরিয়ান খেতে বেরিয়েছেন। 

তবে হালকা মেজাজের মাঝেও থাকছে আফগানিস্তান ভাবনা। টুর্নামেন্টে হাতে থাকা বাকি তিন ম্যাচের সবগুলোই বাংলাদেশের জন্য বাঁচা-মরার। সেদিক থেকে তো বটেই। প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান হওয়ায় আলাদা একটা চাপও আছে বাংলাদেশের। অনুশীলনে যাওয়ার আগে মিঠুন যেমন বললেন, প্রতিপক্ষ টুর্নামেন্ট সব ম্যাচ হারলেও আফগানিস্তান ম্যাচটাতেই বরং চিন্তাটা তাদের একটু বেশি, ‘আমার মনে হয় আরও বেশি সতর্ক থাকতে হবে (আফগানিস্তানের বিপক্ষে)। কারণ অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে হারলে আপনারা গ্রহণ করে নেবেন, কারণ ওরা আমাদের থেকে উপরের দল।  আফগানিস্তানের সঙ্গে হারলে কিন্তু...(হাসি) সবাই আশা করছে আমরা যেন জিতি। প্রতিটা ম্যাচই সমান। প্রত্যেক ম্যাচই জেতার জন্য নামি। তবে এই ম্যাচে আমার মনে হয় বেশি সতর্ক থাকতে হবে।’

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হারার পর দলের বোলিং আর ফিল্ডিং নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠেছিল। সেমিফাইনালের আশায় নিয়ে খেলতে আসা বাংলাদেশ ওই ম্যাচ হেরেই পড়ে যায় কঠিন সমকীরণে। পথটা কঠিন হলেও মিঠুন জানাচ্ছেন আফগান ম্যাচের আগে চাঙ্গাই আছেন তারা, ‘মানসিক অবস্থা বলতে সবাই তো ভালো অবস্থায় আছে। কারণ এই টুর্নামেন্টে তো আমরা খারাপ ক্রিকেট খেলিনি। মানসিকভাবে তাই সবাই চাঙ্গা আছে।’

‘প্রতি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। সেটা আফগানিস্তান হোক বা অস্ট্রেলিয়া। মূল লক্ষ্য তো থাকে জেতা। ব্যাটিং, ফিল্ডিং, বোলিং সব বিভাগে মনোযোগি হতে হবে আরও। প্রত্যেক বিভাগে যেন সেরাটা দিতে পারি।’

Comments

The Daily Star  | English

Bheem finds business in dried fish

Instead of trying his luck in other profession, Bheem Kumar turned to dried fish production and quickly changed his fortune.

1h ago