বাংলাদেশের হয়ে ভারতের দুর্বলতা খুঁজছেন দুই ভারতীয়

টানা খেলার ধকল সামলাতে ক্রিকেটাররা দিন পাঁচেকের ছুটি পেয়েছেন। ভারতের বিপক্ষে মহারণে নামার আগে শারীরিক আর মানসিকভাবে ফুরফুরে যে থাকা চাই। কিন্তু এই সময়ে সবচেয়ে ব্যস্ততা কোচিং স্টাফ আর কম্পিউটার অ্যানালিস্টের। রণকৌশল সাজাতে হবে। পরিকল্পনা ঠিক হলেই ছুটি শেষে ফিরে তা বাস্তবায়নে ঝাঁপাবেন ক্রিকেটররা। এই জায়গায় বাংলাদেশের ভরসা হয়ে কাজ করছেন দুই ভারতীয়।
যোশী-শ্রীনী
সুনীল যোশী ও শ্রীনীবাসন চন্দ্রশেখরন। (ফাইল ছবি )

টানা খেলার ধকল সামলাতে ক্রিকেটাররা দিন পাঁচেকের ছুটি পেয়েছেন। ভারতের বিপক্ষে মহারণে নামার আগে শারীরিক আর মানসিকভাবে ফুরফুরে যে থাকা চাই। কিন্তু এই সময়ে সবচেয়ে ব্যস্ততা কোচিং স্টাফ আর কম্পিউটার অ্যানালিস্টের। রণকৌশল সাজাতে হবে। পরিকল্পনা ঠিক হলেই ছুটি শেষে ফিরে তা বাস্তবায়নে ঝাঁপাবেন ক্রিকেটররা। এই জায়গায় বাংলাদেশের ভরসা হয়ে কাজ করছেন দুই ভারতীয়।

বাংলাদেশ দলের ভারতীয় কম্পিউটার অ্যানালিস্ট শ্রীনিবাস চন্দ্রশেখরন ক্রিকেটারদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়। তার গবেষণা থেকে বেরিয়ে আসা ফর্দ মেনে এগোলে বরাবরই মিলেছে সাফল্য।

ভার্চুয়াল গবেষণাগার থেকে প্রতিপক্ষের শক্তি, দুর্বলতার সূক্ষ্ম তথ্যও বের করে আনেন তিনি। নিজেদের ভুল-ত্রুটি কিংবা আরও ভালো করার শাণিত উপায়ও বাতলে দেন এই প্রযুক্তি বিশারদ। আইপিএলে কাজ করার সুবাদে অনেক ভারতীয় ক্রিকেটারেরও ঘনিষ্ঠ শ্রীনি। ভারত ম্যাচের আগে তাই বাংলাদেশ দলের প্রাণভোমরা এখন তিনি।

এজবাস্টনে ভারতকে হারানো ভীষণ কঠিন। কিন্তু সেমিফাইনালে যেতে হলে যে করেই হোক, এই ম্যাচটি জেতা চাই বাংলাদেশের। শ্রীনিও নিরাশ করছেন না। কোনো একটা উপায় নিশ্চয়ই আছে। সেই উপায় বের করতে আপাতত কম্পিউটার স্ক্রিনে গভীর মনোনিবেশ তার।

শ্রীনির মতো অতটা নয়। তবে ভারত ম্যাচে কাজে লাগতে পারেন বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ সুনীল যোশীও। যোশীর সাদামাটা ক্যারিয়ারের বিচারে বাংলাদেশ দলের দায়িত্বটা তার বড়। কিন্তু যেহেতু তিনি ভারতীয়, তাই যুজবেন্দ্র চাহাল-কুলদীপ যাদবদের স্পিন রহস্যের অনেক কারিকুরি তার জানা অস্বাভাবিক নয়। বিরাট কোহলি, লোকেশ রাহুল, রোহিত শর্মারা ঠিক কোন বল দিলে একটু হলেও বিপাকে পড়েন, সে সব জানাও তার পক্ষে খুবই সম্ভব। 

আফগানিস্তানকে হারিয়ে আসার পর ভারতের এসব দুর্বলতা খুঁজতেই নিজের ব্যস্ততার কথা জানালেন যোশী, ‘সব দলের শক্তি আর দুর্বলতার জায়গা আছে। ভারতেরও আছে। যে কোনো ব্যাটসম্যানকে আউট করে ফেরাতে কিন্তু একটা ভালো বলই যথেষ্ট। ভারতকে কিন্তু গত কয়েকমাসে বড় বড় ম্যাচে তিনবার হারানোর খুব কাছে চলে গিয়েছিলাম আমরা। কে জানে এবার সেই ধাপই হয়ত পেরুনোর পালা।’

স্পিন ভালো খেলে বলে ভারতের সুনাম বরাবরের। স্পিনের বিপক্ষে বাংলাদেশও যে পিছিয়ে নয় তা জানিয়ে দিলেন যোশী, ‘সবারই ধারণা ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা স্পিন খেলতে পারে খুব ভালো। আমরাও কিন্তু স্পিন যথেষ্ট ভালো খেলি। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওদের তিন স্পিনারকে আমরা আরও ভালো সামলেছি। এখন এই ধারাবাহিকতাই রাখতে হবে।’

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka Airport Third Terminal: 3rd terminal to open partially in October

Dhaka airport's terminal-3 to open in Oct

The much anticipated third terminal of the Dhaka airport is likely to be fully open in October, multiplying the passenger and cargo handling capacity.

3h ago