অবসরের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এলেন গেইল

বছরের শুরুতেই ঘোষণাটা দিয়েছিলেন। বিশ্বকাপ শেষেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন। কিন্তু ‘ইউ-টার্ন’ নিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন তিনি। জানিয়েছেন খেলা চালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনার কথা।
chris gayle
ছবি: এএফপি

বছরের শুরুতেই ঘোষণাটা দিয়েছিলেন। বিশ্বকাপ শেষেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন। কিন্তু ‘ইউ-টার্ন’ নিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিধ্বংসী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন তিনি। জানিয়েছেন খেলা চালিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনার কথা।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বাঁচা-মরার ম্যাচে ম্যানচেস্টারে ভারতের মুখোমুখি হবে ক্যারিবিয়ানরা। আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হয়ে স্বঘোষিত ‘ইউনিভার্স বস’ বলেছেন, ‘বিশ্বকাপের পর আমার পরিকল্পনা হলো...হয়তো একটি টেস্ট ম্যাচ খেলতে পারি ভারতের বিপক্ষে। আর ওয়ানডে ম্যাচগুলো তো অবশ্যই খেলব। তবে টি-টোয়েন্টি খেলব না।’

বিশ্বকাপ শেষে আগামী আগস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যাবে ভারত। সেখানে তারা তিনটি করে টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে এবং দুটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে। ওই সিরিজেই ওয়ানডে ও টেস্ট খেলতে চাওয়ার কথা বলেছেন গেইল। যদিও ২০১৪ সালের পর সাদা পোশাকে আর কোনো ম্যাচ খেলেননি তিনি।

গেল ফেব্রুয়ারিতে গেইল জানিয়েছিলেন, বিশ্বকাপ শেষে তিনি ৫০ ওভারের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন। পরের মাসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ানডে ইতিহাসের দ্রুততম হাফসেঞ্চুরি (১৯ বলে) হাঁকানোর পর তিনি যোগ করে বলেছিলেন, এটাই ক্যারিবিয়ানদের মাটিতে তার শেষ ওয়ানডে সিরিজ।

গেইল তার অবসরের সিদ্ধান্ত পাল্টে ফেলায় যারপরনাই বিস্মিত হয়েছেন উইন্ডিজ দলপতি জেসন হোল্ডার। কারণ, এ বিষয় নিয়ে ড্রেসিং রুমে সতীর্থদের সঙ্গে কোনো আলোচনাই করেননি তিনি। তবে অভিজ্ঞ তারকার খেলা চালিয়ে যাওয়ার বিষয়টিকে স্বাগত জানিয়েছেন হোল্ডার।

তিনি বলেছেন, ‘এটা নিয়ে ড্রেসিং রুমে তিনি কিছুই বলেননি। তবে এটা দারুণ! এটা ক্রিকেটের জন্য দারুণ কিছু। আমি আগেও বলেছি, ক্রিসকে (গেইল) পাশে পাওয়াটা দারুণ ব্যাপার। ক্রিকেটকে দেওয়ার মতো অনেক কিছু এখনও বাকি রয়েছে তার।’

Comments

The Daily Star  | English