মাহমুদউল্লাহ ‘ভালো আছেন’ তবে...

জুম্মার নামাজ পড়তে কাবুলি পাঞ্জাবি পরে মুশফিকুর রহিম গাড়িতে বসে অপেক্ষা করছিলেন। খানিকপর ছেলের হাত ধরে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে বেরিয়ে গাড়িতে বসলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দুদিন আগে তার ক্র্যাচে ভর দিয়ে হাঁটার ছবি ভাইরাল হয়ে পড়েছিল, বাড়ছিল শঙ্কাও। এখন তবে তিনি কেমন আছেন?
Mahmudullah
ছবি: স্টার

জুম্মার নামাজ পড়তে কাবুলি পাঞ্জাবি পরে মুশফিকুর রহিম গাড়িতে বসে অপেক্ষা করছিলেন। খানিকপর ছেলের হাত ধরে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে বেরিয়ে গাড়িতে বসলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। দুদিন আগে তার ক্র্যাচে ভর দিয়ে হাঁটার ছবি ভাইরাল হয়ে পড়েছিল, বাড়ছিল শঙ্কাও। এখন তবে তিনি কেমন আছেন?

আফগানিস্তান ম্যাচের পর শুরু হওয়া বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের ছুটি যেন আর শেষই হচ্ছে না। বিশ্বকাপের মাঝে খেলা থেকে একদম মাথা সরিয়ে এমন বিস্তর ঘুরে বেড়ানোর সুযোগ খুব কম দলেরই হয়। ক্রিকেটাররা কেউ ঘুরতে গেছেন বেশ দূরে, কেউ কাছেপিঠেই চক্কর দিয়ে অবসর সময় পার করছেন নিজের মতো করে। টিম অফিসিয়ালরাও তাই। চোটগ্রস্ত মাহমুদউল্লাহর তো সেই উপায় নেই। তিনি যেতে পারছেন না বলেই হয়তো মুশফিককেও কোথাও ঘুরতে যেতে দেখা যায়নি।

পাঁচ দিনের ছুটির বাকি আরও একদিন। লন্ডন থেকে এখনও ফেরেননি সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবালরা। মাশরাফি বিন মর্তুজা, মেহেদী হাসান মিরাজদেরও ছুটির আমেজ কাটেনি। শুক্রবার (২৮ জুন) সকালে দেখা গেল ব্যাগ-ট্যাগ নিয়ে কোথায় যেন বেরিয়ে যাচ্ছেন সাব্বির রহমান। সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, মোসাদ্দেক হোসেনরাও দুদিন থেকেই আলাদাভাবে ঘুরছেন বার্মিংহাম শহরে।

মাহমুদউল্লাহ আর মুশফিক সেদিক থেকে অনেকটা হোটেল বন্দি। একদম প্রয়োজন ছাড়া কোথাও বেরুচ্ছেন না তারা। শুক্রবার দুজনে একসঙ্গে নামাজ পড়তে যাওয়ার সময় কেমন আছেন, পায়ের কী অবস্থা জিজ্ঞেস করতে মুখে স্বস্তির হাসিতে মাহমুদউল্লাহ জানালেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, ভালো আছি’। তার এই ভালো থাকা মানে এখনই ম্যাচ খেলার মতো ফিট আছেন তা নয়। ফিজিও থিহান চন্দ্রমোহনের ভাষ্যে, মাহমুদউল্লাহর পেশির চোট প্রাথমিক ধাপের। সপ্তাহ খানেক বিশ্রামেই তা সেরে যাওয়ার কথা। আপাতত তা আছে উন্নতির ধারাতে। কিন্তু ভারত ম্যাচের তিনদিন আগেও মাহমুদউল্লাহকে দেখা গেছে খুঁড়িয়ে হাঁটতে।

মাহমুদউল্লাহর চোটের অবস্থা আসলেই কি পর্যায়ের, তা জানাতে বার্মিংহামে টিম ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বশীল কেউ নেই। লন্ডন থেকে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানালেন, ‘মাহমুদউল্লাহ উন্নতির ধারাতেই আছে, তবে এখনই চূড়ান্ত কিছু বলার উপায় নেই। ৩০ তারিখের পর জানা যাবে, আসলে সে খেলতে পারবে কি-না। অপেক্ষা করতে হবে।’

জানা গেছে, চোট মোটামুটি সারলেও ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামবেন মাহমুদউল্লাহ। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা অবশ্য আগেই বলে দিয়েছেন, ভারতের বিপক্ষে বিন্দুমাত্র সুযোগ থাকলেও মাহমুদউল্লাহকে তারা খেলাতে চান।

কাঁধের চোট নিয়ে বিশ্বকাপ খেলছেন। সেই চোটে বল করতেও পারছেন না। এবার পেশির চোট তাকে রেখেছে নতুন শঙ্কায়। মাহমুদউল্লাহ এই চোট কখন পেয়েছিলেন, তা নিয়েও আছে ধোঁয়াশা। অফিসিয়াল ভাষ্য, আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে ডান পায়ের পেশিতে চোট পান মাহমুদউল্লাহ। কোনোরকমে ব্যাট করে (৩৮ বলে ২৭) আর নামতে পারেননি ফিল্ডিংয়ে।

তবে তার এই চোট কি ম্যাচের সময় পাওয়া না-কি আগেই পেয়েছিলেন, তা নিয়ে আছে অস্পষ্টতা। সেদিন ব্যাট করতে নামার খানিক পরই পানি পানের বিরতিতে ট্রাউজার উঠিয়ে শুশ্রূষা নিতে দেখা গেছে তাকে। তখন তার পায়ে টেপ লাগানোও দেখা গিয়েছিল। পুরোটা সময় খুঁড়িয়ে ব্যাট চালিয়েছেন। চোটটা তিনি আসলে ম্যাচের ঠিক কখন পেয়েছিলেন, তাও পরিষ্কার করেনি টিম ম্যানেজমেন্ট। তবে কি আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটা বাঁচা-মরার হওয়ায় পেশির চোট নিয়েই খেলতে নেমে গিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ?

Comments

The Daily Star  | English

Broadband internet restored in selected areas

Broadband internet connections were restored on a limited scale yesterday after 5 days of complete countrywide blackout amid the violence over quota protest

4h ago