পাকিস্তানের পুঁজি ‘ছন্দ’, আফগানদের ‘সুখস্মৃতি’

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলার সম্ভাবনা টিকে রয়েছে পাকিস্তানের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে বাজেভাবে হেরে আসর শুরু করা দলটি শেষ দুটি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ফিরেছে শেষ চারের দৌড়ে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে জিতলে সেমির স্বপ্ন আরও উজ্জ্বল হবে ছন্দে থাকা সরফরাজ আহমেদের দলের।
pakistan vs afghanistan
ছবি: আইসিসি

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলার সম্ভাবনা টিকে রয়েছে পাকিস্তানের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে বাজেভাবে হেরে আসর শুরু করা দলটি শেষ দুটি ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ফিরেছে শেষ চারের দৌড়ে। আফগানিস্তানের বিপক্ষে জিতলে সেমির স্বপ্ন আরও উজ্জ্বল হবে ছন্দে থাকা সরফরাজ আহমেদের দলের।

লিডসের হেডিংলিতে শনিবার (২৯ জুন) বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে তিনটায় মুখোমুখি হবে দুই প্রতিবেশী পাকিস্তান ও আফগানিস্তান। বিশ্বকাপের মঞ্চে এর আগে কখনও দেখা হয়নি দল দুটির।

‘ডার্ক হর্স’ তকমা নিয়ে বিশ্বকাপে আসলেও আফগানদের জন্য আসরটা এখন পর্যন্ত দুঃস্বপ্নের মতো কেটেছে। কোনো জয় নেই, সব ম্যাচেই হার। তবে গুলবাদিন নাইবের দল মাঠে নামবে সুখস্মৃতি নিয়ে। বিশ্বকাপের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়েছিলেন তারা।

ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে আফগান দলনেতা জানান, ‘প্রতিটি ম্যাচই উত্তেজনাপূর্ণ। ক্রিকেটাররা খুবই রোমাঞ্চিত। দুর্ভাগ্যজনকভাবে, এখনও আমরা একটি ম্যাচও জিততে পারিনি। তাই আগামীকাল আমরা আমাদের শতভাগ দেব।’

আফগানদের বিপক্ষে হারলে সেমির স্বপ্ন প্রায় ভেস্তেই যাবে পাকিস্তানের। এটা মাথায় রাখলেও পাকিস্তান বাড়তি চাপ নিচ্ছে না বলে জানান অলরাউন্ডার হারিস সোহেল, ‘আমরা বিষয়টাকে খুব সহজ রাখছি। আমরা একটি করে ম্যাচের কথাই ভাবছি। তাদের ভালো মানের স্পিনার রয়েছে। আমরা অনেক ভিডিও ফুটেজ দেখেছি এবং সেগুলো নিয়ে কাজ করেছি। আশা করছি, আগামীকালের ম্যাচটা ভালো হবে।’

পয়েন্ট তালিকায় অবস্থান:

বিশ্বকাপের পয়েন্ট তালিকায় ছয় নম্বরে রয়েছে ১৯৯২ বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তান। ৭ ম্যাচে তাদের অর্জন ৭ পয়েন্ট। আফগানিস্তান রয়েছে দশ দলের পয়েন্ট তালিকার তলানিতে। ৭ ম্যাচ খেলে সবকটিতে হেরেছে তারা। কোনো পয়েন্ট নেই তাদের নামের পাশে।

পরিসংখ্যান:

মোট ম্যাচ: ৩টি,পাকিস্তান জয়ী: ৩টি, আফগানিস্তান জয়ী: ০টি।

সম্ভাব্য একাদশ:

দক্ষিণ আফ্রিকা ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টানা দুই ম্যাচ জিতে ছন্দে থাকায় পাকিস্তান তাদের একাদশে কোনো পরিবর্তন আনবে না, এটা একরকম নিশ্চিতই। অন্যদিকে, আফগানিস্তান নিজেদের সেরা একাদশ খুঁজে নিতে সম্ভাব্য সবরকম চেষ্টাই চালিয়েছে। ব্যবহার করেছে ১৬ ক্রিকেটারকে। যদিও তাতে কোনো ফল আসেনি।

বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ ম্যাচের একাদশে আফগানরা এনেছিল দুটি বদল। ফিরেছিলেন দৌলত জাদরান ও সামিউল্লাহ শিনওয়ারি। দৌলত বল হাতে সুবিধা করতে না পারলেও শিনওয়ারি ছয় নম্বরে নেমে ৪৯ রানের দারুণ একটি ইনিংস খেলেন। পাকিস্তানের বিপক্ষে ওই একাদশই খেলানোর সম্ভাবনা রয়েছে তাদের।

পাকিস্তান:

ইমাম উল হক, ফখর জামান, বাবর আজম, মোহাম্মদ হাফিজ, হারিস সোহেল, সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান, মোহাম্মদ আমির, ওয়াহাব রিয়াজ, শাহিন শাহ আফ্রিদি।

আফগানিস্তান:

গুলবাদিন নাইব (অধিনায়ক), রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শহিদি, আসগর আফগান, সামিউল্লাহ শিনওয়ারি, মোহাম্মদ নবি, নাজিবউল্লাহ জাদরান, ইকরাম আলি খিল (উইকেটরক্ষক), রশিদ খান, দৌলত জাদরান, মুজিব উর রহমান।

Comments

The Daily Star  | English

Consumers brace for price shocks

Consumers are bracing for multiple price shocks ahead of Ramadan that usually marks a period of high household spending.

12h ago