মাহমুদউল্লাহকে নিয়ে ‘চিন্তা নেই’, একাদশের ভাবনায় চার পেসার

পাঁচদিনের বিরতিরর পর আগের দিনই অনুশীলন করতে এসেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। যা কিছু শঙ্কা তার অনেকটাই তখন উবে গিয়েছিল। সোমবার ম্যাচের আগের দিন মাহমুদউল্লাহ আরও চনমনে, আরও সাবলীলভাবে চালিয়েছেন ব্যাটিং সেশন। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে তার না খেলার কোন কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে উইকেট আর মাঠের আকৃতির কারণে একাদশে যে বদলটি আসতে পারে, তা একজন পেসারের অন্তর্ভুক্তি।
Mahmudullah
ছবি: বিসিবি

পাঁচদিনের বিরতিরর পর আগের দিনই অনুশীলন করতে এসেছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। যা কিছু শঙ্কা তার অনেকটাই তখন উবে গিয়েছিল। সোমবার ম্যাচের আগের দিন মাহমুদউল্লাহ আরও চনমনে, আরও সাবলীলভাবে চালিয়েছেন ব্যাটিং সেশন। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে তার না খেলার কোন কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে উইকেট আর মাঠের আকৃতির কারণে একাদশে যে বদলটি আসতে পারে, তা একজন পেসারের অন্তর্ভুক্তি।

সোমবার সকাল ১০টায় অনুশীলনে আসে বাংলাদেশ দল। খানিকক্ষণ ওয়ার্মআপ করার পর ব্যাট প্যাড পরে নেটে নামেন মাহমুদউল্লাহ। পেস, স্পিন সব রকমের বল সামলে টানা এক ঘণ্টা ব্যাটিং করেছেন তিনি। ডাউন দ্য উইকেটে এসে উড়িয়ে মারার অনুশীলনও করেছেন সাবলীলভাবে।

সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাশরাফি মর্তুজা অবশ্য অফিসিয়াল ভাষ্যে জানিয়েছেন, ফিজিওর চূড়ান্ত পর্যবেক্ষণের পরই তার ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যাবে। ম্যাচের আগের দিন একাদশ নিয়ে বরাবরই লুকোচুরি করা বাংলাদেশ অধিনায়ক এর বেশি কিছু বলতে চাইলেন না। তবে দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ভারতের বিপক্ষে বাঁচামরার লড়াইয়ে নিশ্চিতভাবেই নামছেন মাহমুদউল্লাহ। এই ম্যাচে বড় কিছু করতেই বরং মুখিয়ে তিনি।

মাহমুদউল্লাহর ব্যাপারে নিশ্চয়তার আভাস পাওয়া গেলেও আরেকটি জায়গায় দোলাচলে বাংলাদেশ দল। এজবাস্টনের উইকেটে বাড়তি পেসার নাকি আগের ম্যাচের একাদশই নামানো হবে এই নিয়ে আছে দ্বিধাদ্বন্দ্ব।

ভারত-ইংল্যান্ড যে উইকেটে খেলেছিল সেই উইকেটেই হবে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ। ব্যবহৃত উইকেট হওয়ায় স্পিনারদেরই সুবিধা পাওয়ার কথা। কিন্তু এই ভাবনাতেই দৃঢ় থাকার উপায় নেই। কারণ দুটি। প্রথমত স্পিনের বিপক্ষে বরাবরই সফল ভারত। ভারতীয় টপ অর্ডারে বাঁহাতিদের অতো ছড়াছড়ি না থাকায় অফ স্পিনারদের কার্যকর  হওয়ার সম্ভাবনাও কম। তবে দ্বিতীয় কারণটিই শেষ পর্যন্ত বড় হয়ে যেতে পারে।

এজবাস্টনের মাঠের এক দিকের বাউন্ডারির আকার মাত্র ৫৯ মিটার। আগের দিন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের দুই স্পিনার কুলদীপ যাদব আর যুজবেন্দ্র চেহেল সেদিক দিয়েই দিয়েছেন প্রচুর রান। ছোট বাউন্ডারিতে স্পিনারদের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন থাকায় একজন বাড়তি পেসার একাদশে নেওয়ার আলোচনা চলছে জোরালোভাবে।

বাড়তি পেসার নিলে অনুমিতভাবেই একাদশে ফিরবেন রুবেল হোসেন। তাকে জায়গা দিতে বাইরে থাকতে হতে পারে মেহেদী হাসান মিরাজ বা মোসাদ্দেক হোসেনকে। তবে ব্যাটিং সামর্থ্যে এগিয়ে থাকায় মোসাদ্দেকেরই একাদশে থাকার সম্ভাবনা বেশি।

Comments

The Daily Star  | English

Through the lens of Rafiqul Islam

National Professor Rafiqul Islam’s profound contribution to documenting the Language Movement in Bangladesh was the culmination of a lifelong passion for photography.

19h ago