রিফাত হত্যায় মিন্নির জড়িত থাকা নিয়ে যা বললেন এসপি

বরগুনার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেনের কাছে দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনের পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া হয়েছিলো রিফাত হত্যা মামলায় রিমান্ডে থাকা আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির স্বীকারোক্তির প্রসঙ্গে।
Maruf Hossain
বরগুনার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

বরগুনার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেনের কাছে দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনের পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া হয়েছিলো রিফাত হত্যা মামলায় রিমান্ডে থাকা আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির স্বীকারোক্তির প্রসঙ্গে।

মিন্নি রিমান্ডে থাকার সময় পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন, তার স্বামী রিফাত হত্যার সঙ্গে তিনি জড়িত ছিলেন- এমন সংবাদের প্রেক্ষিতে বরগুনার এসপির কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিলো, মিন্নি তার জড়িত থাকার বিষয়ে ঠিক কী স্বীকার করেছেন? উত্তরে পুলিশ সুপার বলেন, “একটা মামলা হয়েছে এবং সেই মামলার তদন্ত চলছে। সেই হত্যার সঙ্গে মিন্নির সংশ্লিষ্টতার বিষয়ে প্রাথমিকভাবে আমাদের কাছে প্রতীয়মান হয়েছে।”

“অন্যান্য আসামি যারা তারাও স্বীকার করেছে বিষয়টি” উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, “এবং মিন্নি সেটার সত্যতা আছে বলে আমাদের জানিয়েছেন।”

কিন্তু, মামলার তদন্ত চলাকালে কী এরকম কথা বলে দেওয়া যায়?

“তদন্তকালে বলা ঠিক না”- যোগ করেন এসপি।

আপনি এ কথা বলার পরে মিন্নিকে কী আর রিমান্ডে রাখার দরকার আছে?

উত্তরে তিনি বলেন, “সেগুলো তো আমরা আপনাদের বলতে পারি না। তদন্তকালে এসব বিষয়ে ফরমালি কথা বলতে পারি না।”

আসলে মিন্নি কী স্বীকার করেছেন?

“প্রাথমিক সংশ্লিষ্টতার আছে সেটি বলেছেন।”

পরিকল্পনা বা এধরনের কিছু?

“হ্যাঁ, এগুলোর সঙ্গে সে ছিলো।”

আরো পড়ুন:

রিফাত হত্যার সঙ্গে মিন্নি জড়িত: এসপি

রিফাত হত্যার আসামি রিশান ফরাজী গ্রেপ্তার

Comments

The Daily Star  | English

Broadband internet restored in selected areas

Broadband internet connections were restored on a limited scale yesterday after 5 days of complete countrywide blackout amid the violence over quota protest

4h ago