বিদায় বলার এটাই সেরা সময়: মালিঙ্গা

জীবনের শেষ ওয়ানডেতে লাসিথ মালিঙ্গার বোলিং দেখে ভক্তদের আক্ষেপ বাড়তেই পারে। মুহুর্মুহু ইয়র্কর দিয়ে ব্যাটসম্যানদের খাবি খাওয়ালেন, স্টাম্প ভেঙ্গে মাটিতে লুটালেন। বয়স ৩৫, তাতে কি এখনো কত সতেজ, কতই না ক্ষীপ্র। চাইলে কি আরও কয়েকদিন খেলা চালিয়ে যেতে পারতেন না? কিন্তু মালিঙ্গার ভাবনা ভিন্ন। বিদায় বলছেন বৃহত্তর স্বার্থে। এখন জায়গাটা ছাড়লেই না তরুণরা পাবে সুযোগ, ২০২৩ সালের বিশ্বকাপের জন্য হতে পারবে তৈরি।
Lasith Malinga
লাসিথ মালিঙ্গা। ছবি: এএফপি

জীবনের শেষ ওয়ানডেতে লাসিথ মালিঙ্গার বোলিং দেখে ভক্তদের আক্ষেপ বাড়তেই পারে। মুহুর্মুহু ইয়র্কর দিয়ে ব্যাটসম্যানদের খাবি খাওয়ালেন, স্টাম্প ভেঙ্গে মাটিতে লুটালেন। বয়স ৩৫, তাতে কি এখনো কত সতেজ, কতই না ক্ষীপ্র। চাইলে কি আরও কয়েকদিন খেলা চালিয়ে যেতে পারতেন না? কিন্তু মালিঙ্গার ভাবনা ভিন্ন। বিদায় বলছেন বৃহত্তর স্বার্থে। এখন জায়গাটা ছাড়লেই না তরুণরা পাবে সুযোগ, ২০২৩ সালের বিশ্বকাপের জন্য হতে পারবে তৈরি।

বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজও পুরোটা খেলছেন না মালিঙ্গা। প্রথম ম্যাচে জিতেই নিয়েছেন বিদায়। দলকে জেতাতে ৩৯ রানে ৩ উইকেট নিয়ে রেখেছেন বড় অবদান। তামিম ইকবাল আর সৌম্য সরকারকে বোল্ড করে দেখিয়েছেন নিজের সেরা সময়।

শ্রীলঙ্কার দেওয়া ৩১৫ রান তাড়ায় মালিঙ্গার ঝাঁজে বাংলাদেশ গুটিয়েছে ২২৩ রানে, হেরেছে ৯১ রানে। ম্যাচ জিতে আসার পর দুদলের খেলোয়াড়রাই সারিবদ্ধ হয়ে দাঁড়িয়ে মালিঙ্গাকে জানিয়েছেন শ্রদ্ধা, গ্যালারিও তখন উঠে দাঁড়িয়ে দুর্ধর্ষ এই পেসারকে দিয়েছে ভালোবাসা।

ম্যাচ শেষে প্রতিক্রিয়ায় মালিঙ্গা জানালেন কেন এখনি বললেন বিদায়, ‘আমার মনে হয় অবসর নেওয়ার এটাই সঠিক সময়। ১৫ বছর ধরে শ্রীলঙ্কার হয়ে খেলেছি। সত্যিই মানুষের সমর্থন পেয়ে খেলে যাওয়া অনেক গর্বের। আমি মনে করি এটাই সরে যাওয়ার সময় কারণ আমাদের ২০২৩ সালের কথা ভাবতে হবে। আমি জেনেছি আমার সময় শেষ। বাকিদের তৈরি হওয়ার সুযোগ দিতে হবে।’

২২৬ ওয়ানডের ক্যারিয়ারে নিয়েছেন ৩৩৮ উইকেট। মুত্তিয়া মুরালিধরন আর চামিন্দা ভাসের পর লঙ্কানদের ইতিহাসের তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারী তিনিই। পুরো ক্যারিয়ারেই তার কাছে অধিনায়কদের চাওয়া ছিল উইকেট, কাজের সময় এনেও দিয়েছেন তা, শেষ বেলায় মনে করলেন পেছনের কথা,  ‘সব অধিনায়যকই পুরো ক্যারিয়ারের আমার কাছ থেকে উইকেট চেয়েছে। আমি সেরাটা ঢেলে চেষ্টা করেছি। সবাইকে ধন্যবাদ।’

Comments