অস্ট্রেলিয়াকে আশা দেখাচ্ছেন স্মিথ

ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের লিডটা ফুলে-ফেঁপে উঠতে দেয়নি অস্ট্রেলিয়া ঠিকই, তবে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতে দ্রুত উইকেট হারিয়ে বেশ বিপাকে পড়েছিল দলটি। সেখান থেকে টেনে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন স্টিভেন স্মিথ। ১৬ মাস পর টেস্টে ফেরা এই ব্যাটসম্যান প্রথম ইনিংসে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করার পর হাল ধরেছেন আবারও।
steven smith
ছবি: রয়টার্স

ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের লিডটা ফুলে-ফেঁপে উঠতে দেয়নি অস্ট্রেলিয়া ঠিকই, তবে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতে দ্রুত উইকেট হারিয়ে বেশ বিপাকে পড়েছিল দলটি। সেখান থেকে টেনে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন স্টিভেন স্মিথ। ১৬ মাস পর টেস্টে ফেরা এই ব্যাটসম্যান প্রথম ইনিংসে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করার পর হাল ধরেছেন আবারও।

শনিবার (৩ আগস্ট) এজবাস্টন টেস্টের তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১২৪ রান। তারা এগিয়ে রয়েছে ৩৪ রানে। হাতে রয়েছে ৭ উইকেট। ক্রিজে আছেন সাবেক দলনেতা স্মিথ ৬১ বলে ৪৬ ও ট্রাভিস হেড ৩৯ বলে ২১ রানে। এর আগে ৪ উইকেটে ২৬৭ রান নিয়ে দিনের খেলা শুরু করা ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস শেষ হয় ৩৭৪ রানে। তারা পেয়েছিল ৯০ রানের লিড।

প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যর্থ অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার (৭) ও ক্যামেরন ব্যানক্রফট (৮)। ২৭ রানের মধ্যে তাদের বিদায়ের পর উসমান খাওয়াজা ও স্মিথ মিলে গড়েন ৪৮ রানের জুটি। সেখানে মারমুখী ভূমিকায় ছিলেন খাওয়াজা। ৪৮ বলে ৪০ রান করা এই বাঁহাতিকে ফেরান বেন স্টোকস। এরপর হেডের সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ৪৯ রানের জুটিতে দিন শেষ করেন স্মিথ। আলোস্বল্পতায় নির্ধারিত ওভারের আগেই খেলা বন্ধ হয়।

দিনের শুরুতে অসি বোলারদের তোপের মুখে পড়ে ইংল্যান্ড। দ্রুত ফেরেন আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান। হাফসেঞ্চুরি করে (৫০) প্যাট কামিন্সের শিকার হন স্টোকস। টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি হাঁকানো ররি বার্নসকে (১৩৩) বিদায় করেন নাথান লায়ন। টিকতে পারেননি জনি বেয়ারস্টো ও মইন আলিও। ফলে ১৮ রানের মধ্যে পতন হয় দলটির ৪ উইকেট। তাতে ইংল্যান্ডের লিডটা ছোট রাখার আশা দেখতে থাকে অসিরা।

তবে নবম উইকেটে ৬৫ রানের জুটি গড়ে সেই পরিকল্পনা ভেস্তে দেন ক্রিস ওকস ও স্টুয়ার্ট ব্রড। ২৯ রান করা ব্রডকে বিদায় করেন কামিন্স। এরপর জেমস অ্যান্ডারসনকে দ্রুত ফেরান লায়ন। ওকস অপরাজিত থাকেন ৩৭ রানে। কামিন্স ৮৪ রানে ও লায়ন ১১২ রানে ৩টি করে উইকেট নেন।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

7h ago