বায়ার্নে যোগ দিতে জার্মানি পৌঁছেছেন কৌতিনহো

মৌখিক চুক্তিটা দুই দিন আগেই হয়ে গেছে। বার্সেলোনা ছেড়ে জার্মানির ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখে যোগ দিচ্ছেন ফিলিপ কৌতিনহো। তবে রোববার স্পেন ছেড়ে জার্মানিতে পৌঁছেছেন তিনি। মেডিকেল পরীক্ষা করার পর চুক্তিতে স্বাক্ষর করবেন এ ব্রাজিলিয়ান তারকা।
ছবি: সংগ্রহীত

মৌখিক চুক্তিটা দুই দিন আগেই হয়ে গেছে। বার্সেলোনা ছেড়ে জার্মানির ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখে যোগ দিচ্ছেন ফিলিপ কৌতিনহো। তবে রোববার স্পেন ছেড়ে জার্মানিতে পৌঁছেছেন তিনি। মেডিকেল পরীক্ষা করার পর চুক্তিতে স্বাক্ষর করবেন এ ব্রাজিলিয়ান তারকা।

গত শুক্রবার বায়ার্নে কৌতিনহোর ধারে খেলার ব্যাপারটি নিশ্চিত জার্মান ক্লাবটির প্রধান নির্বাহী কার্ল হেইঞ্জ রুমেনিগে বলেছিলেন, মেডিকেল পরীক্ষার পরেই কৌতিনহো চুক্তিতে সাক্ষর করবে। তাই এ ব্রাজিলিয়ান জার্মানিতে পৌঁছেছেন বলে সংবাদ প্রকাশ করেছে স্কাই স্পোর্টস।

গত দুই মৌসুমে অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার হিসেবে রিয়াল মাদ্রিদের কলম্বিয়ান তারকা হামেস রদ্রিগেজকে ধারে নিয়েছিল বায়ার্ন। মেয়াদ শেষ হওয়ায় তাকে ফিরিয়ে দিতে হয়েছে দলটির। তাই তার বিকল্প হিসেবে কৌতিনহোকে দলে নিল বায়ার্ন। এ ব্রাজিলিয়ানকে পেয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত ক্লাবটি।

কৌতিনহোকে নিশ্চিত করার পরই প্রধান নির্বাহী রুমেনিগে বলেছিলেন, 'কৌতিনহো আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলার। এটা শুধু তার নামের জন্য নয়, তার দারুণ ফুটবল শৈলী আমাদের আক্রমণাত্মক ফুটবলকে আরও সাহায্য করবে। তাকে পেয়ে আমরা খুবই খুশি।'

আর বার্সেলোনায় কৌতিনহোর সময়টা ভালোও কাটছিল না। যদিও শুরুটা খারাপ হয়নি তার। ২০১৮ সালের শীতকালীন দলবদলে যোগ দিয়ে ভাঙা মৌসুমে ভালোই খেলেছিলেন। দলও সন্তুষ্ট ছিল। কিন্তু পরে নতুন মৌসুমে ধীরে ধীরে রঙ হারাতে থাকেন। একসময় দলে অনিয়মিত হয়ে পড়েন তিনি।

২০১৭ সালে নেইমার বার্সেলোনা ছাড়ার পরই তার জায়গা পূরণ করতে পরের বছরের শীতকালীন দলবদলে লিভারপুল থেকে ১৪২ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে কৌতিনহোকে কিনেছিল বার্সেলোনা। দুই মৌসুম পর পিএসজি থেকে আবার বার্সায় ফিরতে চাইছেন নেইমার। তাই তাকে পেতে কৌতিনহোকে বেঁচে দিতেই চেয়েছিল কাতালান ক্লাবটি। শেষপর্যন্ত দেন দরবার ঠিকভাবে না হওয়ায় ধারেই পাঠাতে হয়েছে কৌতিনহোকে।

বার্সেলোনায় সবমিলিয়ে ৭৬টি ম্যাচ খেলেছেন কৌতিনহো। তাতে গোল করেছেন ২১টি। দলের হয়ে জিতেছেন দুটি লা লিগার শিরোপা।

Comments

The Daily Star  | English

International Mother Language Day: Languages we may lose soon

Mang Pru Marma, 78, from Kranchipara of Bandarban’s Alikadam upazila, is among the last seven speakers, all of whom are elderly, of Rengmitcha language.

8h ago