ডেডলাইন ডে'তে পিএসজির চমক

অবশেষে শেষ হয়েছে গ্রীষ্মের দল বদল। এর মধ্যে নিজেদের মতো গুছিয়ে নিয়েছে ইউরোপের দলগুলো। বরাবরের মতো ডেডলাইন ডে'তেও বেশ কিছু বড় ট্রান্সফার হয়েছে। তবে শেষ দিনে সবচেয়ে বেশি চমক দেখিয়েছে ফরাসী জায়ান্ট প্যারিস সেইন্ত জার্মেই (পিএসজি)। রিয়াল মাদ্রিদকে তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ে সহায়তা করা গোলরক্ষক কেইলর নাভাসকে কিনেছে দলটি। এছাড়াও ইন্টার মিলানের আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মাউরো ইকার্দিকে ধারে দলভুক্ত করেছে ফরাসী চ্যাম্পিয়নরা।
ছবি: এএফপি

অবশেষে শেষ হয়েছে গ্রীষ্মের দল বদল। এর মধ্যে নিজেদের মতো গুছিয়ে নিয়েছে ইউরোপের দলগুলো। বরাবরের মতো ডেডলাইন ডে'তেও বেশ কিছু বড় ট্রান্সফার হয়েছে। তবে শেষ দিনে সবচেয়ে বেশি চমক দেখিয়েছে ফরাসী জায়ান্ট প্যারিস সেইন্ত জার্মেই (পিএসজি)। রিয়াল মাদ্রিদকে তিনটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ে সহায়তা করা গোলরক্ষক কেইলর নাভাসকে কিনেছে দলটি। এছাড়াও ইন্টার মিলানের আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মাউরো ইকার্দিকে ধারে দলভুক্ত করেছে ফরাসী চ্যাম্পিয়নরা।

অবশ্য নাভাস যে পিএসজিতে যোগ দিচ্ছেন সে গুঞ্জন চলছিল বেশ কিছু দিন থেকেই। আলোচনাও প্রায় চূড়ান্ত হয়ে ছিল। তবে সাইনিংটি হয় ডেডলাইন ডে'তেই। প্রায় ১৫ মিলিয়ন পাউন্ডের বিনিময়ে নতুন ক্লাবে যোগ দিলেন কোস্টারিকার এ গোলরক্ষক। সঙ্গে গোলরক্ষক আলফোন্সে আরেওলাকে এক বছরের জন্য ধারে রিয়াল মাদ্রিদে দিয়েছে তারা। নাভাসের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে আগামী চার বছরের জন্য। ফরাসী ক্লাবটির মূল গোলরক্ষক হিসেবেই যোগ দিলেন এ তারকা।

তবে ইকার্দিকে বেশ চমক দেখিয়েই নিয়েছে পিএসজি। মৌসুম জুড়ে নাপোলির সঙ্গেই বেশি আলোচনা হচ্ছিল এ আর্জেন্টাইন তারকার। এছাড়া জুভেন্টাসের রাডারেও ছিলেন বেশ ভালোভাবেই। কিন্তু শেষ দিকে কেউই আগ্রহ দেখায়নি। শেষ দিনে এক বছরের জন্য ধারে ফরাসী ক্লাবে গেলেন ইকার্দি। পাশাপাশি ৭০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে তাকে পাকাপাকি রেখে দেওয়ার অপশনও রয়েছে।

সব মিলিয়ে পিএসজি এ গ্রীষ্মে আট জন ফুটবলারকে দলভুক্ত করেছে। নাভাস ও ইকার্দি ছাড়া আছেন আবদৌ দিয়ালো, ইদ্রিসা গুয়ে, পাবলো সারাবিয়া, মারসিন বুলকা, অ্যান্দর হেরেরা ও সের্জিও রিকো।

এছাড়া মৌসুম জুড়ে দল ছাড়ার ব্যাপারে বেশ বড়সড় নাটক হলেও শেষ পর্যন্ত পিএসজিতেই থেকে গেছেন নেইমার। চলতি মৌসুমে বেশ শক্তিশালী দলই পাচ্ছেন কোচ টমাস টুখেল।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

6h ago