ফুটবল

জিদানকে ভিনিসিয়ুসের চ্যালেঞ্জ

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো দল ছাড়ার পর গত মৌসুমে তরুণ ভিনিসিয়ুস জুনিয়রকে দলে টানে রিয়াল মাদ্রিদ। রোনালদোর অভাব পূরণ করতে না পারলেও দারুণ ক্ষিপ্রতা ও স্কিলে নজর কেড়েছিলেন এ তরুণ। তাকে ভবিষ্যতের বড় তারকাই ভেবেছিলেন অনেকে। কিন্তু জিদান ফের দায়িত্ব নেওয়ার পরই সব পাল্টে গেছে। একাদশেই জায়গা পাচ্ছেন না তিনি। তবে খুব শিগগিরই দলে ঢোকার চ্যালেঞ্জটা কোচকে জানিয়েছেন এ ব্রাজিলিয়ান।
ছবি: এএফপি

ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো দল ছাড়ার পর গত মৌসুমে তরুণ ভিনিসিয়ুস জুনিয়রকে দলে টানে রিয়াল মাদ্রিদ। রোনালদোর অভাব পূরণ করতে না পারলেও দারুণ ক্ষিপ্রতা ও স্কিলে নজর কেড়েছিলেন এ তরুণ। তাকে ভবিষ্যতের বড় তারকাই ভেবেছিলেন অনেকে। কিন্তু জিদান ফের দায়িত্ব নেওয়ার পরই সব পাল্টে গেছে। একাদশেই জায়গা পাচ্ছেন না তিনি। তবে খুব শিগগিরই দলে ঢোকার চ্যালেঞ্জটা কোচকে জানিয়েছেন এ ব্রাজিলিয়ান।

মূলত এডেন হ্যাজার্ডকে দলে নেওয়ার পরই ভিনিসিয়ুসের পথটা কঠিন হয়ে গেছে। এমনকি হ্যাজার্ডের ইনজুরিতেও একাদশে জায়গা মিলেনি তার। গ্যারেথ বেলেই আস্থা রেখেছেন জিদান। একই পজিশনে দুই জন বিশ্বমানের খেলোয়াড় থাকাতেই বড় সমস্যায় পড়ে গিয়েছেন ভিনিসিয়ুস। কিন্তু তাতে মনোবল ভাঙেনি তার। একাদশে সুযোগ পেতে ভিন্ন পথ খুঁজছেন তিনি। আর সে অনুযায়ী অনুশীলনও শুরু করে দিয়েছেন এ তরুণ।

আন্তর্জাতিক ফুটবলের বিরতিতে বর্তমানে ব্রাজিলে রয়েছেন ভিনিসিয়ুস। কলম্বিয়া ও পেরুর বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচের দলে ডাক পেয়েছেন এ তরুণ। সেখানেই স্থানীয় এক গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন, 'বিশ্বের সব দলেই আপনি দেখবেন ডান পায়ের খেলোয়াড়েরা বাঁ পাশে খেলতে পছন্দ করে। যেমনটা হ্যাজার্ডও করে। আমারও একই পরিস্থিতি (ব্রাজিল দলেও)। অন্য প্রান্তে খেলাটা শুরুতে বেশ জটিল হয়ে যায়। তবে ডান প্রান্তে খেলতে আমি মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছি। আমি এখানে অনুশীলন করছি। আমি চাই জিদান যেন আমাকে নতুন এ পজিশনে (ডান প্রান্তে) জায়গা দেয়। এ চ্যালেঞ্জটা আমি নিচ্ছি। দুই পাশে খেলতে পারলে শুধু রিয়াল মাদ্রিদেই নয়, ব্রাজিল দলেও অনেক সুবিধা পাব।'

ক্যাসেমিরো ও মার্সেলোর অনুপ্রেরণাতেই রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দিয়েছিলেন ভিনিসিয়ুস। অথচ এক মৌসুম যেতেই একাদশে জায়গা পাওয়াই কঠিন হয়ে গেছে তার। হ্যাজার্ড ফিরলে হয়তো স্কোয়াডেই থাকা নিয়ে শঙ্কা থাকছে। তবে সতীর্থদের ওপর দারুণ খুশি তিনি, 'ইউরোপে আমার প্রথম মৌসুমটা দারুণ কেটেছে। ক্যাসেমিরো ও মার্সেলোকে ধন্যবাদ আমাকে সময় দেওয়ার জন্য। প্রথম বছরে আমাকে তারা অনেক সাহায্য করেছে। দলে সেরাটা দিতে তারা আমাকে অনুপ্রেরণা দিয়েছে।'

রিয়াল মাদ্রিদে ভিনিসিয়ুসের ভূমিকাটা এখনও খোলাসা নয়। হ্যাজার্ড আসার পর পরিস্থিতি আরও ঘোলাটে হয়ে গেছে। বেলের দল ছাড়ার আলোচনা চললেও শেষ পর্যন্ত তাকে রেখে দেন জিদান। লা লিগায় তাদের প্রথম তিন ম্যাচে বেলই ছিলেন জিদানের প্রথম পছন্দ। যদিও শেষ ম্যাচে লাল কার্ড দেখেছেন ওয়েলস তারকা। তাই আগামী ম্যাচে সুযোগ মিলতেও পারে ভিনিসিয়ুসের।

Comments

The Daily Star  | English

Consumers brace for price shocks

Consumers are bracing for multiple price shocks ahead of Ramadan that usually marks a period of high household spending.

11h ago