সাব্বির-মুশফিকদের সহজেই হারাল জিম্বাবুয়ে

একমাত্র প্রস্তুতিমূলক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জিম্বাবুয়ের কাছে বেশ বড় ব্যবধানে হেরেছে সাব্বির রহমান-মুশফিকুর রহিমদের নিয়ে গড়া বিসিবি একাদশ। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় সফরকারীদের সাদামাটা লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছিল তারা। এরপর অনভিজ্ঞ বোলিং লাইনআপ নিয়ে ব্রেন্ডন টেইলর-হ্যামিল্টন মাসাকাদজাদের চমকে দিতে পারেনি দলটি।
sabbir rahman
বিসিবি একাদশের হয়ে ৩১ বলে সর্বোচ্চ ৩০ রান করেন সাব্বির। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

একমাত্র প্রস্তুতিমূলক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জিম্বাবুয়ের কাছে বেশ বড় ব্যবধানে হেরেছে সাব্বির রহমান-মুশফিকুর রহিমদের নিয়ে গড়া বিসিবি একাদশ। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় সফরকারীদের সাদামাটা লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছিল তারা। এরপর অনভিজ্ঞ বোলিং লাইনআপ নিয়ে ব্রেন্ডন টেইলর-হ্যামিল্টন মাসাকাদজাদের চমকে দিতে পারেনি দলটি।

ফতুল্লায় বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) ১৪৩ রান তাড়া করে ১৬ বল আর ৭ উইকেট হাতে রেখে জয় তুলে নিয়েছে জিম্বাবুয়ে। উদ্বোধনী জুটিতেই জয়ের ভিত পেয়ে যায় তারা। টেইলর-মাসাকাদজা ৪.৫ ওভারে যোগ করেন ৪২ রান। ২৩ বলে ৬ চারে ৩১ রান করা অধিনায়ক মাসাকাদজার বিদায়ে ভাঙে জুটি। অফ স্পিনে তাকে ঘায়েল করেন আফিফ হোসেন।

এরপর দ্রুত আরও দুটি উইকেট শিকার করেন বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলে থাকা আফিফ। সাজঘরে পাঠান ক্রেইগ আরভিন (৬ বলে ৪) ও শন উইলিয়ামসকে (৬ বলে ২)। কিন্তু জিম্বাবুয়েকে চেপে ধরতে পারেনি বিসিবি একাদশ। একপ্রান্তে টেইলর ছিলেন অবিচল। পাঁচে নেমে তাকে দারুণভাবে সঙ্গ দিয়ে ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়েন টিমিসেন মারুমা।

টেইলর ৪৪ বলে ২ চার ও ৩ ছয়ে ৫৭ রানে অপরাজিত থাকেন। মারুমা খেলেন ২৮ বলে ৪৬ রানের ঝড়ো ইনিংস। তার ব্যাট থেকে আসে ৫ চার ও ১ ছয়। স্বাগতিকদের হয়ে আফিফ ৪ ওভারে ১৯ রানে নেন ৩ উইকেট। অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ৩ ওভারে দেন ২০ রান। বাংলাদেশ দলে নতুন ডাক পাওয়া পেসার ইয়াসিন আরাফাত মিশু ছিলেন খরুচে। ২২ রান দেন ২ ওভারে।

এর আগে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৪২ রান তোলে বিসিবি একাদশ। তাদের হয়ে সর্বোচ্চ ৩০ রান করেন তিনে নামা সাব্বির রহমান। ৩১ বলের ইনিংসে মাত্র ১টি ছয় মারেন তিনি। পূর্ব ঘোষিত একাদশে না থাকলেও নিজেকে ঝালিয়ে নিতে এদিন মাঠে নামেন মুশফিকুর রহিম। কিন্তু আশানুরূপ পারফর্ম করতে পারেননি তিনি। চারে নেমে ২ চারে ২৬ বলে করেন ২৬ রান। এছাড়া দুই ওপেনার সাইফ হাসান ১৯ বলে ২১ ও নাঈম শেখ ১৪ বলে ২৩ রান করেন।

জিম্বাবুয়ে ব্যবহার করে সাত বোলার। বাঁহাতি স্পিন অলরাউন্ডার শন উইলিয়ামস ৪ ওভারে ১৮ রানে নেন ৩ উইকেট। পেস অলরাউন্ডার নেভিল মাদজিভা ২ উইকেট পান ৩৫ রানে। একটি করে উইকেট শিকার করেন দুই পেসার কাইল জারভিস ও টেন্ডাই চাতারা। লেগব্রেক বোলার রায়ান বার্ল উইকেট না পেলেও ৪ ওভারে খরচ করেন মাত্র ১৭ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

টস: বিসিবি একাদশ

বিসিবি একাদশ: ১৪২/৭ (২০ ওভারে) (সাইফ ২১, নাঈম ২৩, সাব্বির ৩০, মুশফিক ২৬, আফিফ ১০, ইয়াসির ৬, সাইফউদ্দিন ৭*, আরিফুল ৯, ইয়াসিন ২*; উইলিয়ামস ৩/১৮, জারভিস ১/১৭, চাতারা ১/৩১, মাদজিভা ২/৩৫, বার্ল ০/১৭, মুতোমবোদজি ০/৪, মুনইয়োঙ্গা ০/২০)

জিম্বাবুয়ে: ১৪৪/৩ (১৭.২ ওভারে) (টেইলর ৫৭*, মাসাকাদজা ৩১, আরভিন ৪, উইলিয়ামস ২, মারুমা ৪৬*; সাইফউদ্দিন ০/২০, ইয়াসিন ০/২২, আফিফ ৩/১৯, আরিফুল ০/১৪, আমিনুল ০/৩৭, শফিকুল ০/৩১)।

ফল: জিম্বাবুয়ে ৭ উইকেটে জয়ী।

Comments

The Daily Star  | English

Sultan's Dine and Nababi Bhoj sealed off, Swiss Bakery fined

Both restaurants are located on Bailey Road, where a fire claimed 46 lives last week

27m ago