খেলা

নেইমারকে ফেরাতে বার্সার চেষ্টায় ‘কমতি’ দেখছেন মেসি

নেইমারকে ফেরাতে সম্ভাব্য সবরকম চেষ্টাই কি করেছিল বার্সেলোনা? আপাতদৃষ্টিতে তা-ই মনে হতে পারে। কিন্তু বার্সার আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি তেমনটা ভাবছেন না। ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারকে কেনার জন্য ক্লাবের কর্তারা নিজেদের সর্বোচ্চ চেষ্টাটা করেছিলেন কি-না তা নিয়ে নিশ্চিত নন তিনি।
messi and neymar
ফাইল ছবি: এএফপি

নেইমারকে ফেরাতে সম্ভাব্য সবরকম চেষ্টাই কি করেছিল বার্সেলোনা? আপাতদৃষ্টিতে তা-ই মনে হতে পারে। কিন্তু বার্সার আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি তেমনটা ভাবছেন না। ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমারকে কেনার জন্য ক্লাবের কর্তারা নিজেদের সর্বোচ্চ চেষ্টাটা করেছিলেন কি-না তা নিয়ে নিশ্চিত নন তিনি।

একটি-দুটি নয়, চার-চারটি প্রস্তাব বার্সা পাঠিয়েছিল প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) কাছে। কিন্তু নেইমারকে উচ্চমূল্যে বিক্রি করতে আগ্রহী ফরাসি ক্লাবটি কোনো প্রস্তাবেই সাড়া দেয়নি। প্রতিবারই বার্সা কর্তাদের তারা ফিরিয়ে দিয়েছে খালি হাতে। তাই কদিন আগেই শেষ হওয়া ইউরোপিয়ান ফুটবলের গ্রীষ্মকালীন দলবদলের পুরো সময়টায় নেইমারের বার্সায় ফেরা নিয়ে জোর গুঞ্জন শোনা গেলেও তাকে থাকতে হচ্ছে পিএসজিতেই।

২০১৭ সালে রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে নেইমারকে বার্সা থেকে কিনে নিয়েছিল পিএসজি। তার আগে স্প্যানিশ ক্লাবটিতে চার মৌসুম জুটি বেঁধে খেলেন মেসি ও নেইমার। সেসময় তাদের সঙ্গে যুক্ত হন উরুগুয়ের স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজও। আক্রমণভাগের এই দুর্ধর্ষ ত্রয়ীকে একসঙ্গে ডাকা হতো ‘এমএসএন’ নামে। তারা একসঙ্গে তিন মৌসুম খেলে জিতেছিলেন দুটি লা লিগা, তিনটি কোপা দেল রে এবং ২০১৪-১৫ মৌসুমের উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা।

পুরনো সতীর্থকে নেইমারকে ফের দলে না পাওয়ায় অবশ্য হতাশ নন মেসি। চলতি মৌসুমের জন্য বার্সা যে স্কোয়াড তৈরি করেছে, তার ওপর আস্থা রয়েছে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকার। তবে নেইমারকে ফেরাতে ক্লাবের চেষ্টায় ‘কমতি’ দেখছেন তিনি। মেসির মতে, আরও কিছু করার ছিল বার্সার।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) স্প্যানিশ ক্রীড়া বিষয়ক গণমাধ্যম স্পোর্তের কাছে ৩২ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড জানান, ‘নেইমার আবারও ক্লাবে (বার্সেলোনাতে) যোগ দিলে আমি খুবই খুশি হতাম।’ তিনি যোগ করেন, ‘সত্যি কথা বলতে, আমি জানি না তার ফেরার বিষয়টা নিশ্চিত করতে বার্সেলোনা সম্ভাব্য সবরকমের চেষ্টা করেছিল কি-না।....তবে এটা ঠিক যে, পিএসজির সঙ্গে সমঝোতায় যাওয়াও সহজ না।’

মেসি আরও বলেন, ‘আমি হতাশ নই। আমাদের দুর্দান্ত একটি দল রয়েছে যারা যে কোনো কিছুর জন্য লড়াই করতে পারে, সেটা নেইমারকে ছাড়াই।’ তবে বার্সার প্রাণভোমরা দাবি করেন, নেইমারকে ফেরানোর কথা কখনোই সরাসরি ক্লাবকে বলেননি, ‘আমি কখনোই নেইমারকে কেনার কথা বলিনি। আমি স্রেফ নিজের মতামত জানিয়েছি।’

উল্লেখ্য, নেইমারকে দলে টানতে নানাভাবে চেষ্টা করেছে বার্সেলোনা। শুরুতে ১০০ মিলিয়ন ইউরোর সঙ্গে ফিলিপ কৌতিনহোসহ তিন খেলোয়াড়কে দিতে চেয়েছিল তারা। পরে ১১৮ মিলিয়ন ইউরোর সঙ্গে ইভান রাকিতিচ, জ্যাঁ-ক্লেয়ার তোদিবো ও ধারে উসমান দেম্বেলেকে দিতে চায় দলটি। মাঝে ধারে নেইমারকে নেওয়ার প্রস্তাবও দিয়েছিল বার্সা। কিন্তু মন গলেনি পিএসজি কর্তাদের।

দলবদলের সময় শেষ হওয়ার দিন কয়েক আগে নেইমারের জন্য ১৫০ মিলিয়ন ইউরোর সঙ্গে ইভান রাকিতিচ ও উসমান দেম্বেলেকে দাবি করেছিল ফরাসি লিগ চ্যাম্পিয়নরা। সে প্রস্তাবে আবার ‘না’ বলে দেয় বার্সেলোনা।

Comments

The Daily Star  | English

Loan default now part of business model

Defaulting on loans is progressively becoming part of the business model to stay competitive, said Rehman Sobhan, chairman of the Centre for Policy Dialogue.

2h ago