বোলিংয়ের ভুলগুলোই বড় করে দেখছেন সাকিব

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১৬৫ রান তাড়ায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাই করতে পারেনি বাংলাদেশ। ওদের স্পিনে কবু হয়ে ম্যাচ হেরেছে ২৫ রানে। তবে বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ব্যাটিংয়ের চেয়েও শেষ দশ ওভারের বোলিংকেই দেখছেন বড় করে।
Shakib Al Hasan
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১৬৫ রান তাড়ায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাই করতে পারেনি বাংলাদেশ। ওদের স্পিনে কবু হয়ে ম্যাচ হেরেছে ২৫ রানে। তবে বাংলাদেশ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ব্যাটিংয়ের চেয়েও শেষ দশ ওভারের বোলিংকেই দেখছেন বড় করে।

ইনিংসের প্রথম বলেই উইকেট এনে দিয়েছিলেন মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন। সাকিবও নিজের প্রথম ওভারেই এনেছিলেন উইকেট। এক পর্যায়ে ৪০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে শুরুতেই চাপে পড়েছিল আফগানরা। প্রথম ১০ ওভারে তারা করেছিল ৪ উইকেটে ৬০ রান। পরের ১০ ওভারে মোহাম্মদ নবি আর আসগর আফগান মিলে যোগ করেন আরও ১০৪ রান। শেষ ১০ ওভারের আফগানদের এমন ঘুরে দাঁড়ানোতে সাকিব দায় দেখছেন নিজেদেরও।

১৫তম ওভারে আসগর আফগানকে ক্যাচ বানিয়েছিলেন তাইজুল ইসলাম। কিন্তু নো বলে আউট বাতিল হয়ে উলটো আসে ফ্রি হিটের সুযোগ। পরে ওই ওভার থেকে আসে ১৫ রান। এমন কিছু ভুলে মোমেন্টাম হারানোর আফসোস সাকিবের,  ‘আমরা যেভাবে শুরুটা করেছিলাম, শেষ দশ ওভারে ওরা ১০৬ রান করেছে। যেটা আমরা আটকাতে পারিনি। দশের উপরে রান করেছে। আমরা ওই সময় ওদের আটকাতে পারিনি। তাইজুলের ওই নো বল আমাদের বেশি ভুগিয়েছে, অতিরিক্ত রান আমাদের বেশি ভুগিয়েছে। ওখানে আমরা আসলে অনেক পেছনে পড়ে গিয়েছি। যদি ১৫-১৬ রান বাদ দেন। বা তাইজুলের যে ওভারটা গেল। ওই ওভারে হত ৫-৬ রান হতো। উইকেট একটা পড়ত। মোমেন্টাম আমাদের দিকে থাকত। ওই ওভার শেষে ১৭ রান (আসলে ১৫) গিয়েছে। ’

বাংলাদেশ অধিনায়ক মনে করেন শুরুর মতো শেষটাও করতে পারলে অন্তত আরও ৩০ রান কম হতো আফগানদের, ‘অর্ধেক ওভার শেষে ওরা যে অবস্থায় ছিল তাতে খুব ভাল ব্যাট করলেও ১৩০-৩৫ রান করার কথা। সেখানে ওদের খুব বেশি ব্যাটসম্যানও বাকি ছিল না। কিন্তু আমরা উইকেট নিয়ে পারিনি।’

Comments

The Daily Star  | English
Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Bangladesh's annual average inflation crept up to 9.59% last month, way above the central bank's revised target of 7.5% for the financial year ending in June

2h ago