তালিকায় নেই, তবে দলের সঙ্গে আবু হায়দার

এইচপি স্কোয়াডের খেলোয়াড় হিসেবে ভারত সফরে যাবেন, তাই না খেলিয়েই ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টির জাতীয় দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল আবু হায়দার রনিকে। এইচপির খেলোয়াড়দের নিয়ে গত সোমবার ঘোষিত হয় ভারত সফরের অনূর্ধ্ব-২৩ দল। অথচ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বিসিবির পাঠানো খেলোয়াড় তালিকায় দেখা যায় সেই দলেই নেই আবু হায়দারের নাম। কিন্তু বিসিবি প্রধানের অনুমোদিত তালিকায় না থেকেও এই পেসার ওই দলের সঙ্গেই আছেন ভারত সফরে।
Abu Haider Rony
আবু হায়দার রনি, ছবি: ফিরোজ আহমেদ

এইচপি স্কোয়াডের খেলোয়াড় হিসেবে ভারত সফরে যাবেন, তাই না খেলিয়েই ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টির জাতীয় দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল আবু হায়দার রনিকে। এইচপির খেলোয়াড়দের নিয়ে গত সোমবার ঘোষিত হয় ভারত সফরের অনূর্ধ্ব-২৩ দল। অথচ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে বিসিবির পাঠানো খেলোয়াড় তালিকায় দেখা যায় সেই দলেই নেই আবু হায়দারের নাম। কিন্তু বিসিবি প্রধানের অনুমোদিত তালিকায় না থেকেও এই পেসার ওই দলের সঙ্গেই আছেন ভারত সফরে।

ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টির পর পেসার ইয়াসিন আরাফাত মিশুর পাঁজরের চোটে জাতীয় দলে ব্যাকআপ হিসেবে ডাক পান আবু হায়দার। আফগানিস্তানের বিপক্ষে সেদিন একাদশে জায়গা হয়নি। পরদিনই বাকি ম্যাচগুলোর জন্য নতুন করে ঘোষিত স্কোয়াডে দেখা যায় না খেলেই বাদ পড়েছেন মেহদী হাসান, আবু হায়দাররা। এর ব্যাখ্যায় দ্য ডেইলি স্টারকে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন জানিয়েছিলেন, ‘না তাদের তো বাদ দেওয়া হয়নি। তারা আমাদের সিস্টেমে আছে। এইচপি দলের হয়ে ভারত সফরে যাবে।’

এরপর ঘোষিত এইচপি দলে ছিলেন মেহেদী, কিন্তু ছিলেন না হায়দার।  শ্রীলঙ্কা সফরের ‘এ’ দলেও দেখা যায়, নেই এই বাঁহাতি পেসারের নাম। কেন তিনি নেই জানতে চাইলে বিস্ময় প্রকাশ করে নতুন তথ্য দেন মিনহাজুল, ‘কে বলল নেই? সে তো এইচপির (অ-২৩) হয়ে ভারত সফরেই গেছে।’

আবু হায়দার ফেসবুক ঘেঁটে দেখা যায়, সত্যি লক্ষ্মৌউতেই দলের সঙ্গেই আছেন তিনি। উত্তর প্রদেশের ওই ভেন্যুতে ১৯, ২১, ২৩ , ২৫ ও ২৭ সেপ্টেম্বর ভারত অনূর্ধ্ব-২৩ দলের বিপক্ষে পাঁচটি একদিনের ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-২৩ দল।

তবে দলে থেকেও তার নাম কেন তালিকায় নেই? এটা কি বিসিবির গণমাধ্যম বিভাগের অনিচ্ছাকৃত কোন ভুল? জানতে চাইলে বিসিবির জ্যেষ্ঠ গণমাধ্যম ও যোগাযোগ কর্মকর্তা রাবীদ ইমাম দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপনের সই করা চূড়ান্ত তালিকাতেই নাম ছিল না আবু হায়দারের!  

নামে অনূর্ধ্ব-২৩ দল হলেও এসব দলে এর বেশি বয়সী সর্বোচ্চ তিনজন ক্রিকেটার রাখার রীতি প্রচলিত আছে। সেদিক দিয়ে  ঘোষিত দলে ২৩ বছরের পেরুনো ক্রিকেটার ছিলেন তিনজন, আরিফুল হক (২৬ বছর), ইয়াসির আলি চৌধুরী (২৩ পেরুনো), আল-আমিন জুনিয়র (২৫ বছর)। এবার আবু হায়দার রনিকে (২৩ পেরুনো) যোগ হলে সংখ্যাটা দাঁড়াবে চারজনে।

Comments

The Daily Star  | English
heavy rainfall alert in Bangladesh

Heavy rain set to drench Bangladesh for next 5 days

The country may experience continual rainfall across the country, including Dhaka, for the next five days commencing 9:00am today, said Bangladesh Meteorological Department

1h ago