শীর্ষ খবর

তারা পুলিশ সদস্য এমন প্রমাণ পাওয়া যায়নি: ডিএমপি

সিসিটিভির ফুটেজে একটি ভবনে পুলিশ পরিচয়ে সাদা পোশাকে ওয়াকিটকি হাতে তিন ব্যক্তির প্রবেশ এবং তাদের সহায়তা সেখান থেকে ১৫ জন নেপালি ‘ক্যাসিনো কর্মী’র পালিয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) জানায়, এখন পর্যন্ত প্রমাণ পাওয়া যায়নি যে তারা পুলিশ সদস্য ছিলেন।
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে ব্রিফিংয়ে বক্তব্য রাখেন ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এবং ডিএমপি কমিশনারের মুখপাত্র মনিরুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

সিসিটিভির ফুটেজে একটি ভবনে পুলিশ পরিচয়ে সাদা পোশাকে ওয়াকিটকি হাতে তিন ব্যক্তির প্রবেশ এবং তাদের সহায়তা সেখান থেকে ১৫ জন নেপালি ‘ক্যাসিনো কর্মী’র পালিয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) জানায়, এখন পর্যন্ত প্রমাণ পাওয়া যায়নি যে তারা পুলিশ সদস্য ছিলেন।

আজ (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক ব্রিফিংয়ে ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এবং ডিএমপি কমিশনারের মুখপাত্র মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

মনিরুল বলেন, এ বিষয়ে ডিবি ও পুলিশের অন্যান্য বিভাগের সদস্যরা কাজ শুরু করেছেন। এখন পর্যন্ত প্রমাণ পাওয়া যায়নি যে তারা ছিলেন পুলিশ সদস্য।

পুলিশ কর্মকর্তা আরো বলেন, ওয়াকিটকি পুলিশ যেমন ব্যবহার করে, পুলিশের অন্যান্য সহযোগী সংস্থা, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অন্যান্য সদস্য, গোয়েন্দা, এমনকী, জনগণও এটি ব্যবহার করে।

সিসিটিভি ফুটেজের ব্যক্তিরা পুলিশের সদস্য ছিলেন- এমন কোনো তথ্য-প্রমাণ এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, পুলিশ সদস্যদের কথা কোথাও (গণমাধ্যমে) এসেছে এটি খুবই দুঃখজনক।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সূত্র জানিয়েছে, যে ব্যক্তিদের সেদিন ওয়াকিটকিসহ দেখা গিয়েছিলো তাদের একজন একটি গোয়েন্দা সংস্থার সহকারী প্রোগ্রামার। অন্যজন ঐ সংস্থার রমনা জোনে কর্মরত একজন সদস্য।

উল্লেখ্য, গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাজধানীর সেগুনবাগিচায় একটি অ্যাপার্টমেন্ট ভবনের সিসিটিভি ফুটেজে সাদা পোশাকে ওয়াকিটকি হাতে তিন ব্যক্তিকে প্রবেশ করতে দেখা যায়। তারা সেখানে নিজেদের পুলিশ সদস্য হিসেবে পরিচয় দেন। তারা সেই ভবন থেকে নেপালি ‘ক্যাসিনো কর্মীদের’ পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেন বলেও অভিযোগ উঠে।

Comments

The Daily Star  | English
 remittance inflow

$12.9b in remittances received in last 6 months: minister

Finance Minister Abul Hasan Mahmud Ali today told the parliament from July to July to January of the current financial year (2023-24), the country received some $12.9 billion ($12, 900.63 million) in remittances

9m ago