মাহমুদুলের আক্ষেপের পরও নিউজিল্যান্ডকে হারাল যুবারা

সেঞ্চুরি করলেন নিউজিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ওপেনার টমাস জোহরাব। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বোলারদের দৃঢ়তায় অবশ্য সংগ্রহ বড় করতে পারল না স্বাগতিকরা। মাঝারি লক্ষ্য তাড়ায় যুবাদের পক্ষে নৈপুণ্যে দেখালেন তানজিদ হাসান ও মাহমুদুল হাসান জয়। তবে আরেকটি অনায়াস জয়ে আক্ষেপ হয়ে থাকল মাহমুদুলের ৯৯ রানে সাজঘরে ফেরাটা।
bangladesh u-19 and nz u-19
ছবি: নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট টুইটার

সেঞ্চুরি করলেন নিউজিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ওপেনার টমাস জোহরাব। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বোলারদের দৃঢ়তায় অবশ্য সংগ্রহ বড় করতে পারল না স্বাগতিকরা। মাঝারি লক্ষ্য তাড়ায় যুবাদের পক্ষে নৈপুণ্যে দেখালেন তানজিদ হাসান ও মাহমুদুল হাসান জয়। তবে আরেকটি অনায়াস জয়ে আক্ষেপ হয়ে থাকল মাহমুদুলের ৯৯ রানে সাজঘরে ফেরাটা।

বৃহস্পতিবার (৩ অক্টোবর) পাঁচ ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে নিউজিল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। আগের ম্যাচেও একই ব্যবধানে জিতেছিল যুবারা। ফলে সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে আকবর আলির নেতৃত্বাধীন দল।

বার্ট সাটক্লিফ ওভালে আগের দিন খেলা সম্ভব হয়নি বৃষ্টির কারণে। তাতে ম্যাচ গড়ায় রিজার্ভ ডেতে। টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৪২ রান তোলে কিউইরা। এরপর ২১ বল হাতে রেখে ৪ উইকেট হারিয়ে ২৪৩ রান করে জয় নিশ্চিত করে বাংলাদেশ।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ১১২ রানের ইনিংস খেলেন জোহরাব। তবে তিনি বেশ ধীরগতিতে ব্যাটিং করেন। তার ১৪২ বলের ইনিংস ছিল ৮টি চার। আরেক ওপেনার অলি হোয়াইট করেন ৩৮ বলে ৩০ রান। উদ্বোধনী জুটিতে ৫৫ রান আসার পর তাদের আর কোনো জুটি ছুঁতে পারেনি পঞ্চাশ। কিউইদের আরও পাঁচ ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কে পৌঁছালেও বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের কারণে তারা রানের গতি বাড়াতে পারেনি।

নিয়মিত বিরতিতে নিউজিল্যান্ডের উইকেট তুলে নেওয়া বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সেরা পারফরম্যান্স দেখান মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী। তিনি ৪১ রানে পান ২ উইকেট। একটি করে উইকেট শিকার করেন তানজিম হাসান সাকিব, শরিফুল ইসলাম, শামিম হোসেন ও রকিবুল হাসান।

জবাব দিতে নেমে শুরুতেই পারভেজ হোসেন ইমনের উইকেট খোয়ায় বাংলাদেশ। তাতে অবশ্য রানের গতিতে লাগাম পড়েনি। আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ৪৭ বলে ফিফটি স্পর্শ করেন আরেক ওপেনার তানজিদ। তিনি সঙ্গী হিসেবে পান মাহমুদুলকে। তারা গড়েন ৯৫ রানের জুটি। ৬৩ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ৬৫ রান করা তানজিদের বিদায়ে ভাঙে জয়ের ভিত গড়ে দেওয়া এই জুটি।

এরপর হৃদয়কে সঙ্গে নিয়ে ৭৭ রানের আরেকটি জুটি গড়েন মাহমুদুল। হৃদয় ফেরেন ৫৫ বলে ২ চারে ৪০ রান করে। বাংলাদেশকে জয়ের সুবাস পাইয়ে দিয়ে আউট হন মাহমুদুল। মাত্র ১ রানের জন্য সেঞ্চুরিবঞ্চিত হন তিনি। ৬৯ বলে পঞ্চাশ ছোঁয়া এই ব্যাটসম্যানের ১২৫ বলের ইনিংসে ছিল ১০ চার। বাকি কাজটা সারেন শামিম ও শাহাদাত হোসেন।

আগামী ৬ অক্টোবর একই ভেন্যুতে হবে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউজিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দল: ৫০ ওভারে ২৪২/৬ (হোয়াইট ৩০, জোহরাব ১১২, আনসেল ২০, ক্লার্ক ১৩, ম্যাকেঞ্জি ১৫, ভিশভাকা ১০, সানডে ২৯* প্রিঙ্গল ৫*; তানজিম ৯-০-৪৪-১, শরিফুল ১০-০-৬০-১, শামিম ১০-০-৩৫-১, মৃত্যুঞ্জয় ৭-০-৪১-২, রকিবুল ১০-০-৪০-১, হৃদয় ৪-০-১৯-০)

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল: ৪৬.৩ ওভারে ২৪৩/৪ (তানজিদ ৬৫, পারভেজ ৬, মাহমুদুল ৯৯, হৃদয় ৪০, শামিম ১৫*, শাহাদাত ৪*; ক্লার্ক ১০-০-৫৫-০, হ্যানকক ৮.৩-০-৪১-১, ম্যাকেঞ্জি ৭-০-৩৯-২, অশোক ১০-০-৫২-১, প্রিঙ্গল ১০-০-৪১-০, হোয়াইট ১-০-১০-০)।

ফল: বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল ৬ উইকেটে জয়ী।

সিরিজ: পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল।

Comments