দক্ষিণ আফ্রিকাকে গুঁড়িয়ে ভারতকে জেতালেন শামি-জাদেজা

চাই ৩৮৪ রান। হাতে ৯ উইকেট। শেষ দিনে এত বড় লক্ষ্য তাড়া করে জেতা খুবই কঠিন, দিন পার করে ড্র আদায় করে নেওয়াটাও তার চেয়ে কম কিছু নয়। কঠিন কাজের কোনোটাই করতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। মোহাম্মদ শামি আর রবীন্দ্র জাদেজার দুর্দান্ত বোলিংয়ের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছেন দলটির তারকা ব্যাটাররা। তাই কাজে আসেনি লোয়ার অর্ডারের লড়াইও।
india cricket team
ছবি: এএফপি

চাই ৩৮৪ রান। হাতে ৯ উইকেট। শেষ দিনে এত বড় লক্ষ্য তাড়া করে জেতা খুবই কঠিন, দিন পার করে ড্র আদায় করে নেওয়াটাও তার চেয়ে কম কিছু নয়। কঠিন কাজের কোনোটাই করতে পারেনি দক্ষিণ আফ্রিকা। মোহাম্মদ শামি আর রবীন্দ্র জাদেজার দুর্দান্ত বোলিংয়ের সামনে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছেন দলটির তারকা ব্যাটাররা। তাই কাজে আসেনি লোয়ার অর্ডারের লড়াইও।

রবিবার (৬ অক্টোবর) বিশাখাপত্নমে দক্ষিণ আফ্রিকাকে দ্বিতীয় ইনিংসে গুঁড়িয়ে দিয়েছে স্বাগতিক ভারত। সফরকারীরা অলআউট হয়েছে মাত্র ১৯১ রানে। ফলে ২০৩ রানের বিশাল জয় পেয়েছে বিরাট কোহলির দল। এর আগে ভারত প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটে ৫০২ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করার পর দক্ষিণ আফ্রিকা করেছিল ৪৩১ রান। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতীয়রা ৪ উইকেট ৩২৩ রান করে ইনিংস ঘোষণা করেছিল।

এই জয়ে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে ভারত। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট তালিকায় নিজের শীর্ষস্থানও মজবুত করেছে তারা। তিন ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ১৬০। অন্যদিকে, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ফ্যাফ ডু প্লেসির দলের অভিযান শুরু হয়েছে হার দিয়ে।

আগের দিনের ১ উইকেটে ১১ রান নিয়ে খেলতে নেমেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। শেষ দিনের দ্বিতীয় ওভারেই বিপদ শুরু হয় তাদের। থিউনিস ডে ব্রুইনকে বিদায় করেন প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেট নেওয়া রবিচন্দ্রন অশ্বিন। এরপর প্রোটিয়া মিডল অর্ডারকে একাই ছিন্নভিন্ন করেন ডানহাতি পেসার শামি। একে একে তার শিকার হন টেম্বা বাভুমা, দলনেতা ডু প্লেসি ও কুইন্টন ডি কক। এদের মধ্যে বাভুমা ও প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান ডি কক রানের খাতা খুলতে পারেননি।

ইনিংসের ২৭তম ওভারে উইকেট উৎসবে যোগ দেন আগের দিন শেষ বিকালে ডিন এলগারকে ফেরানো বাঁহাতি স্পিনার জাদেজা। তিনি ওই ওভারে তুলে নেন ৩ উইকেট। তবে হাটট্রিক করতে পারেননি। একপ্রান্ত আগলে রাখা এইডেন মার্করাম ফেরেন ৭৪ বলে ৩৯ রান করে। শূন্য রানে সাজঘরে পৌঁছান ভারনন ফিল্যান্ডার ও কেশব মহারাজ। তাতে ৭০ রানে ৮ উইকেট খুইয়ে ফেলে দক্ষিণ আফ্রিকা।

নবম উইকেটে ৯১ রানের জুটি গড়ে প্রতিরোধ গড়েন অলরাউন্ডার সেনুরান মুথুসামি ও অফ স্পিনার ডেন পায়েট। দলের সংগ্রহ সম্মানজনক অবস্থায় নিয়ে যান তারা। ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট হাফসেঞ্চুরি তুলে নিয়ে পায়েট খেলেন দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৬ রানের ইনিংস। দশ নম্বরে নেমে ১০৭ বল খেলে ৯ চার ও ১ ছয় মারেন তিনি। তার উইকেটটি শিকার করার পর কগিসো রাবাদাকে তুলে নিয়ে পঞ্চম উইকেট প্রাপ্তির স্বাদ নেন শামি। থামে দক্ষিণ আফ্রিকার দুর্দশা। ৫ চারে মুথুসামি অপরাজিত থাকেন ১০৮ বলে ৪৯ রানে।

শামি ৩৫ রানে নেন ৫ উইকেট। জাদেজা ৪ উইকেট দখল করেন ৮৭ রানে। প্রথমবার টেস্টে ওপেন করতে নেমে জোড়া সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ও ছক্কার রেকর্ড গড়ে ম্যাচসেরার পুরস্কার বগলদাবা করেন ভারতীয় ওপেনার রোহিত শর্মা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত প্রথম ইনিংস: ৫০২/৭ ডিক্লেয়ার

দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম ইনিংস: ৪৩১

ভারত দ্বিতীয় ইনিংস: ৩২৩/৪ ডিক্লেয়ার

দক্ষিণ আফ্রিকা দ্বিতীয় ইনিংস: (আগের দিন ১১/১)  (মার্করাম ৩৯, ডে ব্রুইন ১০, বাভুমা ০, ডু প্লেসি ১৩, ডি কক ০, মুথুসামি ৪৯, ফিল্যান্ডার ০, মহারাজ ০, পায়েট ৫৬, রাবাদা ১৮; অশ্বিন ১/৪৪, জাদেজা ৪/৮৭, শামি ৫/৩৫, ইশান্ত ০/১৮, রোহিত ০/৩)।

Comments

The Daily Star  | English

Medium of education should be mother language: PM

Prime Minister Sheikh Hasina today said that the medium for education in educational institutions should be everyone's mother tongue.

3h ago