‘অপকর্ম করে কেউ ছাড় পায় না, কেউ পার পেয়ে যায় না’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর অবস্থানে আছেন। যে কারণে অপকর্ম করে কেউ ছাড় পায় না, কেউ পার পেয়ে যায় না।
qader_0_8.jpg
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর অবস্থানে আছেন। যে কারণে অপকর্ম করে কেউ ছাড় পায় না, কেউ পার পেয়ে যায় না।

আজ (৮ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, “নেতৃত্বের দৃষ্টিভঙ্গি-মনোভঙ্গি কী, সেটি হচ্ছে বড় কথা। এখানে কারও প্রতি কোনো প্রকার আশ্রয়-প্রশ্রয় দেওয়া বা এইসব অপকর্মকে প্রশ্রয় দেওয়া হচ্ছে না।”

তিনি বলেন, “আওয়ামী লীগের আগের বিএনপি আমলে কি তাদের নিজেদের দলের কোনো অপরাধীকে তারা শাস্তি দিয়েছে? খুন-খারাবি তখনও হয়েছে, ধর্ষণ হয়েছে, মারামারি হয়েছে, তখনও যতো রকমের অপরাধ আছে, লুটপাট দুর্নীতি সবই হয়েছে। কিন্তু তখন এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে কোনো প্রকার শাস্তিমূলক ব্যবস্থা ছিলো না, সাংগঠনিকভাবেও ছিলো না, প্রশাসনিকভাবেও ছিলো না।”

সেতুমন্ত্রী বলেন, “এখন প্রশাসনও অত্যন্ত তৎপর। শেখ হাসিনার অবস্থান প্রশাসন জানে। যে কারণে বুয়েটে যে ঘটনা ঘটেছে, সঙ্গে সঙ্গেই প্রশাসন অ্যাকশনে গেছে এবং সেখানে নয়জনের মতো গ্রেপ্তার হয়েছে। গতকাল রাতে ছাত্রলীগ থেকেও ১১ জনকে বহিষ্কার করা হয়েছে।”

“আমরা এখানে সাংগঠনিক ব্যবস্থাও নিই এবং সরকারিভাবে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার যে দায়িত্ব, সেটাও এখানে যথাযথভাবে পালন করা হয়। কোনো প্রকার ছাড়, কোনো ব্যক্তি বিশেষের ক্ষেত্রে কেস টু কেস এখানে বিবেচনার কোনো সুযোগ নেই”, বলেন তিনি।

কাদের আরও বলেন, “অপরাধ যেভাবে হয়, অপকর্ম যা হয়, অপরাধ-অপকর্মের স্বরূপ যেভাবে বাইরে আসে, সেভাবেই এটা প্লেস করা হয় এবং শাস্তিও প্রদান করা হয়।”

Comments

The Daily Star  | English

Attack on Rafah would be 'nail in coffin' of Gaza aid: UN chief

A full-scale Israeli military operation in Rafah would deliver a death blow to aid programmes in Gaza, where humanitarian assistance remains "completely insufficient", the UN chief warned today

2h ago