শীর্ষ খবর

মিরপুরে অ্যাপার্টমেন্টে স্বামী-স্ত্রী-সন্তানের লাশ

রাজধানীর মিরপুরে একটি ফ্ল্যাট থেকে একই পরিবারের তিনজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। যাদের লাশ পাওয়া গেছে তারা হলেন, বায়েজিদ (৪৫) তার স্ত্রী অঞ্জনা (৪০) ও এই দম্পতির একমাত্র সন্তান ফারহান (১৬)। এদের মধ্যে বায়েজিদ পেশায় ব্যবসায়ী। ফারহান মিরপুর কমার্স কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।
dead_body.jpg
ছবি: স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

রাজধানীর মিরপুরে একটি ফ্ল্যাট থেকে একই পরিবারের তিনজনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। যাদের লাশ পাওয়া গেছে তারা হলেন, বায়েজিদ (৪৫) তার স্ত্রী অঞ্জনা (৪০) ও এই দম্পতির একমাত্র সন্তান ফারহান (১৬)। এদের মধ্যে বায়েজিদ পেশায় ব্যবসায়ী। ফারহান মিরপুর কমার্স কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মিরপুর ১৩ নম্বর সেকশনের বি ব্লকের ৫ নম্বর সড়কের ১০ নম্বর বাড়ির একটি ফ্ল্যাট থেকে এই লাশ উদ্ধার করা হয়।

পুলিশের সন্দেহ, বায়েজিদই হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছেন। স্ত্রী ও সন্তানকে হত্যার পর তিনি নিজেও আত্মহত্যা করেন।

কাফরুল থানার ওসি সেলিমুজ্জামান বলেন, বায়েজিদ দম্পতির সঙ্গে তাদের এক আত্মীয় দেখা করতে এসেছিলেন। কিন্তু বাসার ভেতর থেকে কোনো সাড়া না পেয়ে দুপুর দেড়টার দিকে পুলিশে খবর দেন তিনি।

ওসি বলেন, পুলিশ গিয়ে বায়েজিদের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। তার স্ত্রী ও সন্তানের লাশ বিছানায় পড়ে ছিল।

বাসায় বিরিয়ানির প্যাকেট পাওয়ার কথা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, প্রথমে স্ত্রী ও সন্তানকে বিষ মিশ্রিত খাবার খাওয়ান বায়েজিদ। পরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। বাসার দেওয়ালে লেখে রাখা হয়েছে, “আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়।”

স্থানীয়রা জানান, মিরপুরে বায়েজিদের একটি নিটিং গার্মেন্টস কারখানা ছিল। তবে ব্যবসায় লোকসান হওয়ায় পরে তিনি কারখানা বন্ধ করে দিয়েছিলেন।

Comments

The Daily Star  | English

Consumers brace for price shocks

Consumers are bracing for multiple price shocks ahead of Ramadan that usually marks a period of high household spending.

7h ago