জাপানে টাইফুন হাগিবিসের আঘাতে নিহত ১১

জাপানে শক্তিশালী টাইফুনের আঘাতে অন্তত ১১ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছেন। নিখোঁজ রয়েছেন আরও ১৭ জন।
Japan-Typhoon.jpg
১৩ অক্টোবর ২০১৯, জাপানের ফুকুশিমার আইওয়াকি এলাকা থেকে নৌকায় করে লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। ছবি: রয়টার্স

জাপানে শক্তিশালী টাইফুনের আঘাতে অন্তত ১১ জন নিহত ও শতাধিক আহত হয়েছেন। নিখোঁজ রয়েছেন আরও ১৭ জন।

সরকারের মুখপাত্র ইয়োশিহিদে সুগা জানান, গতকাল টাইফুন হাগিবিস টোকিওর দক্ষিণে আঘাত হানে এবং উত্তরের দিকে সরে যায়। এর ফলে কয়েকটি নদীর পানি উপচে আকস্মিক বন্যা দেখা দিয়েছে। অসংখ্য ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। প্রায় ৩ লাখ ৭৬ হাজার ঘরবাড়ি বিদ্যুৎ সংযোগহীন হয়ে পড়েছে। এছাড়া ১৪ হাজার বাড়িতে পানির অভাব দেখা দিয়েছে। তবে ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার জন্য চেষ্টা করছে সরকার।

নৌকা ও হেলিকপ্টারের মাধ্যমে বন্যা কবলিত এলাকায় উদ্ধার তৎপরতা চালানো হচ্ছে। ভূমিধসের ফলে বিভিন্ন এলাকায় আটকা পড়া লোকজনকে সরিয়ে নিতে আপ্রাণ চেষ্টা করছে উদ্ধারকর্মীরা।

এদিকে জাপানের রাজধানী টোকিওসহ অন্যান্য এলাকায় টাইফুনের আঘাতের পর প্রচণ্ড বৃষ্টিপাত ও ঝড় বইছে। এতে বন্যার কারণে আটকে পড়া লোকজনদের সরিয়ে নিতে পুরোদমে উদ্ধার তৎপরতা চালানো হচ্ছে।

রাষ্ট্রায়ত্ত টেলিভিশন চ্যানেল এনএইচকে জানায়, আজ (১৩ অক্টোবর) টাইফুনের আঘাতে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। একজন হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন। প্রায় শতাধিক লোকজন আহত হয়েছেন। এছাড়া এখনও অন্তত ১৭ জন নিখোঁজ রয়েছেন।

এনএইচকে বলছে, টোকিওর তামা নদীসহ অন্যান্য নদীগুলোতে উপচে পড়া পানির প্রবাহ হচ্ছে। কর্তৃপক্ষ ভূমিধসের ব্যাপারে সর্তক থাকার নির্দেশ দিয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

9h ago