এবি কিচেনে অদ্ভুত এক নীরবতা

রূপালি গিটার ছেড়ে আইয়ুব বাচ্চুর চলে যাওয়ার আজ (১৮ অক্টোবর) এক বছর। মাত্র ৫৬ বছর বয়সে ২০১৮ সালের এই দিনে পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে গেছেন জীবনের ওপারে। কিন্তু, তার গিটারের মূর্ছনা রয়ে গেছে হাওয়ায় হাওয়ায়, মানুষের বুকের অন্তঃপুরে।
ayub bachchu
আইয়ুব বাচ্চু। ছবি: শাহরিয়ার কবির হিমেল

রূপালি গিটার ছেড়ে আইয়ুব বাচ্চুর চলে যাওয়ার আজ (১৮ অক্টোবর) এক বছর। মাত্র ৫৬ বছর বয়সে ২০১৮ সালের এই দিনে পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে গেছেন জীবনের ওপারে। কিন্তু, তার গিটারের মূর্ছনা রয়ে গেছে হাওয়ায় হাওয়ায়, মানুষের বুকের অন্তঃপুরে।

বাচ্চুর গাওয়া গানে এখনো মুখরিত হয় চারপাশ। এক প্রজন্ম থেকে আরেক প্রজন্মে ছড়িয়ে পড়ে তার কণ্ঠের গানগুলো। মানুষ ভালোবাসার আকাশ রচনা করেছেন তাকে নিয়ে।

আইয়ুব বাচ্চুর জন্মস্থান চট্টগ্রামের প্রবর্তক মোড়ে শিল্পীর রূপালি গিটারের আদলে তৈরি করা হয়েছে ভাস্কর্য। গিটারের জাদুকরের জন্য এটা অনেক বড় সম্মানের। গানে গানে মানুষ জমিয়েছিলেন এই ব্যান্ডতারকা, তার প্রমাণ পাওয়া যায় তার প্রতি মানুষের অফুরান ভালোবাসায়।

মগবাজার কাজী অফিসের গলিতে অবস্থিত ‘এবি কিচেন’ এখন আর মুখরিত হয় না গানে গানে, আড্ডায়। প্রতিদিন যেখানে অনেক মুখের মিছিলে জমজমাট হয়ে থাকতো, সেখানে অদ্ভুত এক নীরবতা ছেয়ে আছে। এই নীরবতায় কোথাও না কোথাও ছড়িয়ে রয়েছেন আইয়ুব বাচ্চু।

আইয়ুব বাচ্চু ১৯৬২ সালের ১৬ আগস্ট চট্টগ্রাম শহরের এনায়েত বাজারে জন্মগ্রহণ করেন। বাংলাদেশের ব্যান্ডসংগীতের শিরোমণি আইয়ুব বাচ্চু প্রথম গান প্রকাশ করেন ১৯৭৭ সালে ‘হারানো বিকেলের গল্প’ শিরোনামে। তবে তার প্রথম একক অ্যালবাম ‘রক্তগোলাপ’ প্রকাশিত হয় ১৯৮৬ সালে।

১৯৭৮ সালে আইয়ুব বাচ্চু যোগ দেন ‘ফিলিংস’ ব্যান্ডে। এরপর ১৯৮০ সালে ‘সোলস’-এর সঙ্গে শুরু হয় তার পথচলা। প্রায় এক দশক এই ব্যান্ডের সঙ্গেই ছিলেন তিনি। ‘সোলস’ ছাড়ার পর ১৯৯১ সালে গঠন করেন ব্যান্ড ‘এলআরবি’। এলআরবির প্রথম অ্যালবাম প্রকাশিত হয় ১৯৯২ সালে।

আইয়ুব বাচ্চুর একক অ্যালবাম

ময়না (১৯৮৮) কষ্ট (১৯৯৫), সময় (১৯৯৮), একা (১৯৯৯), প্রেম তুমি কি (২০০২), দুটি মন (২০০২), কাফেলা (২০০২), প্রেম প্রেমের মতো (২০০৩), পথের গান (২০০৪), ভাটির টানে মাটির গানে (২০০৬), জীবন (২০০৬), সাউন্ড অব সাইলেন্স (২০০৭), রিমঝিম বৃষ্টি (২০০৮), বলিনি কখনো (২০০৯) জীবনের গল্প (২০১৫)।

এলআরবির অ্যালবামগুলো

এলআরবি (১৯৯২), সুখ (১৯৯৩), তবুও (১৯৯৪), ঘুমন্ত শহরে (১৯৯৫), ফেরারী মন (১৯৯৬), স্বপ্ন (১৯৯৬), আমাদের বিস্ময় (১৯৯৮), মন চাইলে মন পাবে (২০০০), অচেনা জীবন (২০০৩), মনে আছে নাকি নেই (২০০৫), স্পর্শ (২০০৮) এবং যুদ্ধ (২০১২)।

আইয়ুব বাচ্চুর জনপ্রিয় কিছু গান

চলো বদলে যাই

হাসতে দেখো গাইতে দেখো

কেউ সুখী নয়

ফেরারি মনটা আমার

ঘুম ভাঙা শহরে

বাংলাদেশ

কষ্ট পেতে ভালোবাসি

হকার

রSপালি গিটার

গতকাল রাতে

তারা ভরা রাতে

মেয়ে তুমি কি দুঃখ চেন

সাড়ে তিন হাত মাটি

উড়াল দেবো আকাশে

এখন অনেক রাত

কতদিন দেখেনি দু’চোখ

মনে আছে নাকি নাই

কার কাছে যাব

লোকজন কমে গেছে

একটাই মন যখন তখন

মন চাইলে মন পাবে

 

সিনেমার গান

অনন্ত প্রেম তুমি দাও আমাকে

আমি তো প্রেমে পড়িনি

আম্মাজান

সাগরিকা বেঁচে আছি

Comments

The Daily Star  | English

US sanction on Aziz not under visa policy: foreign minister

Bangladesh embassy in Washington was informed about the sanction, he says

2h ago