শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ

উদ্বোধনী ম্যাচে জামালদের প্রতিপক্ষ বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের পর্দা উঠছে আজ শনিবার (১৯ অক্টোবর)। তৃতীয় আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ও অভিষেক আসরের চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের চট্টগ্রাম আবাহনী। দুদলেরই লক্ষ্য- ফের এই প্রতিযোগিতার শিরোপা ঘরে তোলা।
Abahani and TC Sports

শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপের পর্দা উঠছে আজ শনিবার (১৯ অক্টোবর)। তৃতীয় আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টস ও অভিষেক আসরের চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের চট্টগ্রাম আবাহনী। দুদলেরই লক্ষ্য- ফের এই প্রতিযোগিতার শিরোপা ঘরে তোলা।

চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায়।

আন্তর্জাতিক আসরের জন্য শক্তিশালী দল সাজিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। দলটিতে রয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ছয় তারকা ফুটবলার। তাদের মধ্যে সেরা নামটি- জামাল ভূঁইয়া। সাইফ স্পোর্টিং থেকে ধারে লাল-সবুজের অধিনায়ককে দলে টেনেছে তারা। প্রস্তুতির জন্য অল্প সময় পেলেও শিরোপা জয়ের জন্য এটাকে কোনো বাধা মনে করছেন না জামাল। আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘পেশাদার ফুটবলার হিসেবে, আপনি সবসময় বাকিদের সঙ্গে চা-বিস্কিট খেতে পারেন না। আমাদের নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়াটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের কোচ আমাদের বলে দিয়েছেন, কী করতে হবে। আমার লক্ষ্য হলো চট্টগ্রাম আবাহনীর হয়ে শিরোপা জেতা এবং ভক্তদের আমার প্রতি আরও অনুরাগী করে তোলা।’

কেবল দেশি খেলোয়াড় নয়, ভালো মানের বিদেশি খেলোয়াড়ও নিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। দলটির আক্রমণভাগে যোগ হয়েছেন ঘানার হয়ে ২০১০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপ খেলার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রিন্স টাগো। তাদের আরও তিন বিদেশি ফুটবলারের রয়েছে উয়েফা ইউরোপা লিগে খেলার অভিজ্ঞতা। তাই দলটির কোচ মারুফুল হক মনে করছেন, শিরোপা নিজেদের ঘরে ফিরিয়ে আনার মতো যথেষ্ট সক্ষমতা তাদের রয়েছে। তবে তিনি কাজটা করতে চান ধাপে ধাপে, ‘যদিও আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্য হলো শিরোপা পুনরুদ্ধার করা, আমরা এই মুহূর্তে চোখ রাখছি সেমিফাইনালে। কাজটা সহজ হবে না। কারণ অন্য দলগুলোও খুব শক্তিশালী।’

বন্দরনগরীর দলটিকে প্রথম ম্যাচেই দিতে হবে কঠিন পরীক্ষা। তাদের প্রতিপক্ষ টিসি স্পোর্টস গেল আসরের চ্যাম্পিয়ন। এবারও তারা বাংলাদেশ জয় করেই মালদ্বীপে ফিরতে মুখিয়ে। টিসি স্পোর্টসের কোচ আফিয়া মোহাম্মদ হামিদ বলেছেন, ‘বিভিন্ন দেশ থেকে এবারও ভালো ভালো দল এসেছে। শিরোপা জেতার পর থেকে আমরা বেশ কিছু পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে গিয়েছি। তবে আমরা কোনো চাপ নিচ্ছি না। আমরা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হিসেবে এখানে এসেছি। আমরা এখানে শিরোপা জেতার জন্যই এসেছি।’

টিসি স্পোর্টসের এবারের দলটি অবশ্য শক্তির বিচারে আগেরবারের দলের চেয়ে কিছুটা পিছিয়ে। দলে বিদেশি কেবল একজন এবং মালদ্বীপের জাতীয় দলে খেলেন এমন ফুটবলার দুজন।

‘এ’ গ্রুপে চট্টগ্রাম আবাহনী ও টিসি স্পোর্টসের সঙ্গে রয়েছে ভারতের মোহন বাগান ও লাওসের ইয়ং এলিফ্যান্টস। এই দুটি ক্লাব আগামীকাল শনিবার একই ভেন্যুতে একই সময়ে এক অপরকে মোকাবেলা করবে।

Comments

The Daily Star  | English

Fewer but fiercer since the 90s

Though Bangladesh is experiencing fewer cyclones than in the 1960s, their intensity has increased, a recent study has found.

6h ago