এফডিসিতে ভোটগ্রহণ চলছে

আজ (২৫ অক্টোবর) সকাল ৯টায় এফডিসিতে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভোটগ্রহণ। এখন পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবেই ভোট দিচ্ছেন ভোটাররা। শিল্পী সমিতির তারকা ভোটারদের উপস্থিতি এখনো লক্ষ্য করা না গেলেও তারকা প্রার্থীরা ঠিকই সকাল থেকে এফডিসির ভেতরে অবস্থান করছেন।
FDC election
২৫ অক্টোবর ২০১৯, এফডিসিতে চলছে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন। সে উপলক্ষ্যে এফডিসির প্রবেশপথে কড়া পুলিশি পাহারার ব্যবস্থা করা হয়। ছবি: সংগৃহীত

আজ (২৫ অক্টোবর) সকাল ৯টায় এফডিসিতে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভোটগ্রহণ। এখন পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবেই ভোট দিচ্ছেন ভোটাররা। শিল্পী সমিতির তারকা ভোটারদের উপস্থিতি এখনো লক্ষ্য করা না গেলেও তারকা প্রার্থীরা ঠিকই সকাল থেকে এফডিসির ভেতরে অবস্থান করছেন।

শিল্পী সমিতির আজকের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এফডিসিতে মোতায়েন করা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের। মিরপুর জোন ও তেজগাঁও জোন থেকে আসা পুলিশ সদস্যরা নির্বাচন উপলক্ষে দায়িত্ব পালন করছেন।

এদিকে এফডিসিতে সাধারণজনের প্রবেশ থাকলেও আজ তাদের প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে না। এফডিসির গেটে এখন কয়েকশ মানুষ অপেক্ষা করছেন।

সকাল ৯টায় শুরু হওয়া ভোট প্রদান চলবে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। আজ ৪৪৯ জন ভোটার তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন।

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির আজকের ভোটকে কেন্দ্র করে চলচ্চিত্রপ্রেমীদের দৃষ্টি এখন সেদিকে। এফডিসির ভেতরে চলছে উৎসবের আমেজ।

আজকের নির্বাচনে প্রথমবারের মতো কোনো নারী প্রার্থী সভাপতি পদে লড়ছেন। তিনি হলেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী। তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এছাড়াও, সভাপতি পদে মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে নির্বাচন করছেন মিশা সওদাগর। বর্তমান শিল্পী সমিতির সভাপতিও তিনি।

সহ-সভাপতি পদে নির্বাচন করছেন মনোয়ার হোসেন ডিপজল, রুবেল ও নানা শাহ। সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচন করছেন বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান এবং ইলিয়াস কোবরা।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচন করেছেন সুব্রত। তার বিপরীতে কোনো প্রার্থী নেই। আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছেন নূর মোহাম্মদ খালেদ আহমেদ এবং নায়ক ইমন। দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক পদে প্রার্থী হয়েছেন জ্যাকি আলমগীর।

সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক পড়ে লড়ছেন দুজন। তারা হলেন জাকির হোসেন ও ডন। কোষাধ্যক্ষ পদে অভিনেতা ফরহাদ নির্বাচন করছেন একা। তার কোনো বিরোধী প্রার্থী নেই।

কার্যকরী সদস্য পদ রয়েছে ১১টি। এই পদগুলোর জন্য নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন ১৪ জন। তারা হলেন: রোজিনা, অঞ্জনা, অরুণা বিশ্বাস, বাপ্পারাজ, আলীরাজ, আফজাল শরীফ, রঞ্জিতা, আসিফ ইকবাল, আলেকজান্ডার বো, জয় চৌধুরী, নাসরিন, মারুফ আকিব, শামীম খান ও জেসমিন।

এবারের নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

Comments

The Daily Star  | English

Getting the price right for telecom consumers

In a price-sensitive market like Bangladesh, the price of telecom services quite often makes the headlines

1h ago