নির্বাচন কমিশনের শক্ত ভিত্তির কারিগর টিএন সেশন মারা গেছেন

ভারতের সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার তিরুনেল্লাই নারায়ণা (টিএন) সেশন মারা গেছেন। গতকাল (১০ নভেম্বর) সকাল নয়টায় চেন্নাইয়ের বাসভবনে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।
tn-seshan-1.jpg
তিরুনেল্লাই নারায়ণা সেশন। ছবি: সংগৃহীত

ভারতের সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার তিরুনেল্লাই নারায়ণা (টিএন) সেশন মারা গেছেন। গতকাল (১০ নভেম্বর) সকাল নয়টায় চেন্নাইয়ের বাসভবনে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মৃত্যুকালে সেশনের বয়স হয়েছিলো ৮৬ বছর। দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি।

স্পষ্টবক্তা হিসেবে একইসঙ্গে নন্দিত এবং নিন্দিত সেশনের মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এক টুইটবার্তায় মোদি লিখেছেন, “সেশন ছিলেন এক নজিরবিহীন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। তিনি সম্পূর্ণ নিষ্ঠা ও পরিশ্রমের সঙ্গে দেশের সেবা করেছিলেন। নির্বাচনী সংস্কারে তার প্রচেষ্টা ও ভূমিকা আমাদের গণতন্ত্রকে শক্তিশালী করেছে। তার মৃত্যুতে আমি শোকাহত। তার আত্মার শান্তি কামনা করি।”

ভারতের উচ্চপর্যায়ের একজন সরকারি কর্মকর্তা হিসেব দীর্ঘদিন দায়িত্বপালন করেছেন সেশন। অবসরের পর ১৯৯০ সালের ১২ ডিসেম্বর তিনি প্রধান নির্বাচন কমিশনার হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হন।

নির্বাচন কমিশনকে শক্তিশালী করাসহ নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় একাধিক সংস্কার করেছিলেন তিনি। ভোটার পরিচয়পত্র দিয়ে ভোটদান তার আমলেই চালু হয়। নির্বাচনে প্রার্থীদের নির্বাচনী আচরণবিধি প্রণয়ন তারই অবদান। তার আমলেই দুই অতিরিক্ত নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ করেছিলো তৎকালীন কেন্দ্রীয় সরকার।

কর্তব্যপরায়ণতার জন্য ১৯৯৬ সালে র‌্যামন ম্যাগসাইসাই পুরস্কার পেয়েছিলেন তিনি।

ভারতকে বলা হয় বিশ্বের সবচেয়ে স্বচ্ছ গণতান্ত্রিক দেশ। আর এই গণতান্ত্রিক নির্বাচন প্রক্রিয়াকে স্বচ্ছ করার কারিগর হিসাবে তাকে ভারত, বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে বিশেষভাবে স্মরণ করা হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka footpaths, a money-spinner for extortionists

On the footpath next to the General Post Office in the capital, Sohel Howlader sells children’s clothes from a small table.

8h ago