তবু মুমিনুলদের হয়ে ব্যাট করলেন কোহলি

ইন্দোরে প্রথম টেস্ট তিন দিনে হেরে আসার পর কলকাতায় ইডেন টেস্টে আড়াই দিনও টিকতে পারেনি বাংলাদেশ। আবারও হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। বড় ব্যবধানে হারের পাশাপাশি দৃষ্টিকটুভাবে ধরা পড়েছে দলের লড়াই করতে না পারা। ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার তো বাংলাদেশকে বলে দিয়েছেন ‘অর্ডিনারি’ একটি দল। তবে বিরাট কোহলি ঠিক এতটা চাঁচাছোলাভাবে দেখছেন না। বাংলাদেশের ভালো করতে না পারার পেছনে কয়েকটি নির্দিষ্ট কারণ ব্যাখ্যা করেছেন ভারতীয় অধিনায়ক।
Virat Kohli
ছবি: এএফপি

ইন্দোরে প্রথম টেস্ট তিন দিনে হেরে আসার পর কলকাতায় ইডেন টেস্টে আড়াই দিনও টিকতে পারেনি বাংলাদেশ। আবারও হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। বড় ব্যবধানে হারের পাশাপাশি দৃষ্টিকটুভাবে ধরা পড়েছে দলের লড়াই করতে না পারা। ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার তো বাংলাদেশকে বলে দিয়েছেন ‘অর্ডিনারি’ একটি দল। তবে বিরাট কোহলি ঠিক এতটা চাঁচাছোলাভাবে দেখছেন না। বাংলাদেশের ভালো করতে না পারার পেছনে কয়েকটি নির্দিষ্ট কারণ ব্যাখ্যা করেছেন ভারতীয় অধিনায়ক।

ইন্দোরে প্রথম টেস্টে ইনিংস ও ১৩০ রানে হার, ইডেনে ইনিংস ও ৪৬ রানে হার। তবে ইডেনে গোলাপি বলের দিবা-রাত্রির টেস্টে বাংলাদেশকে মনে হয়েছে আরও নাজুক, আরও ছন্নছাড়া।

লড়াইবিহীন একপেশে একটি সিরিজ তাই অনায়াসে পকেটে পুরেছে ভারত। পুরো সিরিজে বাংলাদেশকে কেমন দেখলেন? ভারত অধিনায়ক এমন বিশাল দাপট দেখানোর পরও প্রতিপক্ষকে বিন্দুমাত্র ছোট করতে চাইলেন না। রবিবার (২৪ নভেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘প্রথমত, তাদের সবচেয়ে অভিজ্ঞ দুজন ক্রিকেটার নেই। সাকিব ছিলেন না, তামিম ছিলেন না, কেবল ছিলেন মুশফিক। মাহমুদউল্লাহও ছিলেন। কিন্তু মাত্র দুজনকে দিয়ে গোটা একটা দল এগিয়ে নেওয়া যায় না। বাকি সবাই খুব তরুণ। তারা আরও অভিজ্ঞতা অর্জন করবে। আমি বলতে চাই, তারা যদি বেশি বেশি টেস্ট খেলে বেশি অভিজ্ঞতা অর্জন করবে।’

কোহলি বাংলাদেশের কম টেস্ট খেলার ব্যাপারটিকে তুলে ধরে এই ধরনের পারফরম্যান্সকেও স্বাভাবিকভাবে দেখতে চেয়েছেন, ‘আপনি দুই টেস্ট খেলার পর আরও দেড় বছর পর যদি আবার খেলেন, তাহলে কীভাবে চাপ সামলাবেন, সেটা বুঝতে পারবেন না।’

‘দেখুন স্কিল ঠিকই আছে তাদের। গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, ম্যাচের ওই রকম পরিস্থিতি ঘন ঘন পাওয়া, যাতে ভালো করা যায়।’

কলকাতা টেস্ট শুরুর আগেই বাংলাদেশের মতো দলগুলোর বেতনকাঠামো টেস্টে কতটা গুরুত্ব রাখে, সে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন কোহলি। সে কথা এদিন আবার মনে করিয়ে দিয়েছেন তিনি। তার মতে, টেস্ট ক্রিকেটের বেতনকাঠামো রাখতে হবে সবার উপরে, তাতেই আসবে খেলোয়াড়দের বাড়তি নিবেদন, ‘আমি যেটা বলছিলাম, বোর্ড এবং খেলোয়াড়দের মিলে সমস্যাটা ঠিক করতে হবে, যাতে টেস্ট ক্রিকেট এগিয়ে নেওয়া যায়।’

Comments

The Daily Star  | English

7km tailback on Tangail side of Bangabandhu Bridge

Tk 3.80cr toll collected from the bridge in 24 hours

31m ago