হোলি আর্টিজান হামলা মামলার রায় ১২টায়

রাজধানীর গুলশানে হোলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলা ও নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় করা মামলার রায় আজ (২৭ নভেম্বর)।
holey-artisan-2.jpg
২০১৬ সালের ১ জুলাই অস্ত্রধারী জঙ্গিরা গুলশানের কূটনৈতিক এলাকায় অবস্থিত হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালিয়ে ২২ জনকে হত্যা করে। ফাইল ছবি

রাজধানীর গুলশানে হোলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলা ও নৃশংস হত্যাযজ্ঞের ঘটনায় করা মামলার রায় আজ (২৭ নভেম্বর)।

ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মজিবুর রহমান বেলা ১২টায় এ রায় ঘোষণা করবেন।

তিন বছর আগের এ হামলার ঘটনায় বিচার শুরু হওয়ার এক বছরের মধ্যে বহুল আলোচিত এই মামলার রায় ঘোষণা করা হচ্ছে।

গত ১৭ নভেম্বর আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে রায় ঘোষণার জন্য ২৭ নভেম্বর তারিখ নির্ধারণ করেন ট্রাইব্যুনাল।

এ মামলায় পুলিশ আট অভিযুক্ত জঙ্গির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেয় ২০১৮ সালের ২৩ জুলাই। একই বছরের ২৬ নভেম্বর অভিযোগ গঠন করেন ট্রাইব্যুনাল।

গত বছরের ৩ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপক্ষের সাক্ষী রিপন কুমার দাসের ট্রাইব্যুনালের সামনে জবানবন্দি দেওয়ার মাধ্যমে এ চাঞ্চল্যকর মামলার আনুষ্ঠানিক বিচারকাজ শুরু হয়।

মামলায় আট অভিযুক্তের সবাই এখন কারাগারে আছেন। তারা হলেন- হামলাকারীদের নিযুক্তির দায়ে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজিব গান্ধি, পরিকল্পনাকারীদের একজন আসলাম হোসেন ওরফে র‌্যাশ, গ্রেনেড সরবরাহকারী আবদুস সবুর খান ওরফে সোহেল মাহফুজ, অস্ত্র সরবরাহকারী মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান ও হাদিসুর রহমান ওরফে সাগর, তথাকথিত ধর্মীয় প্রশিক্ষক রাকিবুল হাসান ওরফে রিগ্যান, শরিফুল ইসলাম এবং মামুনুর রশিদ রিপন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ১ জুলাই হোলি আর্টিজান বেকারিতে সশস্ত্র জঙ্গিরা হামলা চালিয়ে ২২ জনকে হত্যা করে। তাদের মধ্যে ইতালির নয়, জাপানের সাত, ভারতের এক, বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আমেরিকান এক, বাংলাদেশি দুজন নাগরিক এবং দুজন পুলিশ সদস্যও নিহত হন।

হামলার পেছনে ২১ জন জড়িত ছিলেন বলে জানা যায়। যাদের মধ্যে বিভিন্ন সময়ে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৩ জন নিহত হন।

Comments

The Daily Star  | English

US sanction on Aziz not under visa policy: foreign minister

Bangladesh embassy in Washington was informed about the sanction, he says

2h ago