রুম্পার বন্ধু গ্রেপ্তার

রাজধানীর বেসরকারি স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা হত্যা মামলায় তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু আবদুর রহমান সৈকতকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর বেসরকারি স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রুবাইয়াত শারমিন রুম্পা হত্যা মামলায় তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু আবদুর রহমান সৈকতকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) উপকমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, গতকাল জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সৈকতকে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) সদস্যরা ডেকে আনার পর, আজ তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

তিনি জানান, সৈকতকে আজ ঢাকার একটি আদালতে তোলা হবে এবং তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতদিনের রিমান্ড চাওয়া হবে।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিদ্ধেশ্বরী এলাকা থেকে রুম্পার লাশ উদ্ধার করা হয়। শান্তিবাগে যে বাড়িতে রুম্পা থাকতেন সেখান থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে সিদ্ধেশ্বরী সার্কুলার রোডের আয়েশা শপিং কমপ্লেক্সের পেছনে তার মরদেহ পাওয়া যায়। শপিং সেন্টারের পাশাপাশি আরও দুটি বাড়ি রয়েছে সেখানে। এগুলোর যেকোনো একটির উঁচু থেকে মাটিতে আছড়ে পড়ে সে।

ঘটনার আগে রুম্পা তার ব্যাগ ও মোবাইল ফোন বাসায় রেখে গিয়েছিল। মাকে ফোন করে বলেছিল, জরুরি একটা কাজে বাইরে যাচ্ছে। এর পর থেকে বাড়ির আর কারও সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি তার।

গতকাল রুম্পার বাবা রোকন উদ্দিন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেছেন, “আমার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। সে আত্মহত্যা করতেই পারে না।”

আরও পড়ুন:

রুম্পাকে হত্যা করা হয়েছে: বাবা

Comments