শীর্ষ খবর
সর্বনিম্ন তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায়

রোববার থেকে কমতে পারে শীতের প্রকোপ

দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু শৈত্যপ্রবাহ আরও দুদিন থাকার পর আগামী ২২ ডিসেম্বর থেকে কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।
Lalmonirhat cold
১৯ ডিসেম্বর ২০১৯, দেশের উত্তরাঞ্চলীয় জেলা লালমনিরহাটে প্রচণ্ড শীতের মধ্যে রাস্তায় শ্রমজীবী মানুষ। ছবি: এস দিলীপ রায়/স্টার

দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু শৈত্যপ্রবাহ আরও দুদিন থাকার পর আগামী ২২ ডিসেম্বর থেকে কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ আজ (২০ ডিসেম্বর) দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, “আজ মধ্যরাত থেকে আগামীকাল সকাল পর্যন্ত মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা সারাদেশে বিরাজ করতে পারে। কুয়াশা কাটলে ঠাণ্ডা কমে যাবে।”

“আগামী রবিবার থেকে শৈত্যপ্রবাহ কেটে যেতে পারে” বলেও জানিয়েছেন তিনি।

সর্বনিম্ন তাপমাত্রা চুয়াডাঙ্গায়

দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রয়েছে চুয়াডাঙ্গা জেলায়। আজ সেখানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়। গতকাল একই জেলায় সর্বনিম্ন ৭.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিলো।

“গতকালের তুলনায় আজ শীত কম” উল্লেখ করে বজলুর রশীদ আরও বলেন, “আজ সকাল থেকে সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রার মধ্যে পার্থক্য বাড়ছে।”

ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস

আজ ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বজলুর রশীদ বলেন, “আসলে সূর্যের আলো দেখা গেলেই শীতের প্রকোপ কমতে শুরু করবে।”

আজ সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়া বার্তায় বলা হয়েছে, সারাদেশে আবহাওয়া শুষ্ক এবং কোথাও কোথাও আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকতে পারে।

রাজশাহী, যশোর এবং চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া মৃদু শৈত্যপ্রবাহ অব্যাহত থাকতে পারে। এছাড়াও, সারাদেশে রাতের ও দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।  

Comments