রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে বিএনপির মেয়র প্রার্থীদের অভিযোগ

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে থাকা বিএনপির মেয়র প্রার্থীরা শনিবার কাউন্সিলর প্রার্থীদের ‘হয়রানি’ ও নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন নিয়ে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে থাকা বিএনপির মেয়র প্রার্থীরা শনিবার কাউন্সিলর প্রার্থীদের ‘হয়রানি’ ও নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন নিয়ে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

উভয় রিটার্নিং কর্মকর্তা বিএনপি প্রার্থীদের অভিযোগ খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে (ডিএনসিসি) বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পক্ষে জুলহাস উদ্দিন শনিবার বিকালে রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাশেমের কাছে লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন।

অভিযোগপত্রে তাবিথ উল্লেখ করেন, নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলাম শনিবার সকালে গুলশান পার্কে তার সমর্থকদের সাথে বৈঠক করেছেন এবং লাউড স্পিকার এবং সাউন্ড সিস্টেমের মাধ্যমে ভোট চেয়েছেন।

তাবিথ অভিযোগের সমর্থনে কয়েকটি ভিডিও ক্লিপও উপস্থাপন করেছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাশেম জানান, তারা অভিযোগপত্রটি গ্রহণ করেছেন এবং তা সংশ্লিষ্ট এলাকার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন। তারা অভিযোগটি মূল্যায়ন করে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও জানান তিনি।

এর আগে দিনের শুরুতে, বিএনপির ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন তাদের দল সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থীদের ‘হয়রানি ও গ্রেপ্তারের’ অভিযোগে রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেনের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

ইশরাক জানান, ইসি থেকে বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে তাজউদ্দিন আহমেদ তাজুকে বৈধ ঘোষণা করার পর বৃহস্পতিবার ৩২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে।

তিনি জানান, কয়েকদিন আগে তাজুকে কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি দেয়া হয়েছিল।

সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে রিটার্নিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন বলেন, বিএনপির মেয়র প্রার্থীর অভিযোগ খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রিটার্নিং কর্মকর্তা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে পুরোনো মামলায় কাউন্সিলর প্রার্থীদের বিরুদ্ধে নতুন ব্যবস্থা না নেয়ার আহ্বান জানান। ‘পুরনো মামলার ক্ষেত্রে নতুন পদক্ষেপ নেয়া ন্যায়সঙ্গত হবে না। এ ব্যাপারে নির্বাচনের পরে ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে। তবে ফৌজদারি মামলার ক্ষেত্রে ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে,’ যোগ করেন বাতেন।

আগামী ৩০ জানুয়ারি ডিএসসিসি এবং ডিএনসিসির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Sea-level rise in Bangladesh: Faster than global average

Bangladesh is experiencing a faster sea-level rise than the global average of 3.42mm a year, which will impact food production and livelihoods even more than previously thought, government studies have found.

8h ago