ইরাক থেকে সৈন্য সরিয়ে নিচ্ছে জার্মানি, কানাডা, ক্রোয়েশিয়া, হাঙ্গেরি, রোমানিয়া

ইরাকে মার্কিন বিমান হামলায় ইরানের শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তা কাশেম সোলাইমানিকে হত্যার পর ইরানের প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণার প্রেক্ষাপটে আসন্ন সংকটের কথা চিন্তা করে ন্যাটো জোট ‘কয়েকজন কর্মকর্তা’কে ইরাক থেকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার কথা জানিয়েছিলো।
Nato
ইরাকে ন্যাটো মিশন। ছবি: ন্যাটো

ইরাকে মার্কিন বিমান হামলায় ইরানের শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তা কাশেম সোলাইমানিকে হত্যার পর ইরানের প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণার প্রেক্ষাপটে আসন্ন সংকটের কথা চিন্তা করে ন্যাটো জোট ‘কয়েকজন কর্মকর্তা’কে ইরাক থেকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার কথা জানিয়েছিলো।

‘সেনা প্রত্যাহার সাময়িক’ হলেও সেনাবাহিনীর সদস্যদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে জানিয়ে এক ন্যাটো কর্মকর্তা গতকাল (৭ জানুয়ারি) বিবৃতি দিয়েছিলেন।

উপসাগরীয় অঞ্চলে ‘ন্যাটোর উপস্থিতি বজায় থাকা’কে জোর দিয়ে ন্যাটো কর্মকর্তা বলেছেন, মিশনের সেনা সদস্যদের ইরাকের অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

ইরাকে ২০১৮ সালে শুরু হওয়া ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ’ ন্যাটো ‘পরিস্থিতি অনুকূলে এলে’ আবারও প্রশিক্ষণ মিশন চালু করবে বলে জানিয়েছেন ন্যাটো কর্মকর্তা।

সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ নেওয়ার অংশ হিসেবে ইরাকে দুটি মার্কিন সেনা ঘাঁটিতে আজ (৮ জানুয়ারি) ভোরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর ইরান ও তার মিত্র ইরাকি মিলিশিয়াদের হাতে ইরাকে অবস্থানরত অন্যান্য বিদেশি সেনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনায় ন্যাটো জোট উদ্বিগ্ন বলে জানানো হয়েছে।

গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরান ও ইরাকি সেনাবাহিনীর জ্যেষ্ঠ কমান্ডারদের নিহত হওয়ার পর ৪ জানুয়ারি ন্যাটো জানিয়েছিলো, ইরাকে ৫০০ সামরিক প্রশিক্ষকের প্রশিক্ষণ মিশনটি তারা স্থগিত করছে।

এরপর ইরাকি সংসদে সেদেশ থেকে বিদেশি সেনাদের চলে যাওয়ার প্রস্তাব পাশ হওয়ার পর ৬ জানুয়ারি ন্যাটো মহাসচিব জেনস স্টলটেনবার্গ সাময়িকভাবে সেই প্রশিক্ষণ স্থগিত করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন।

ইরাকে অবস্থানরত ১২০ জার্মান সেনার মধ্যে ৩০ জনকে জর্ডান ও কুয়েতে পাঠানো হচ্ছে এবং অন্যরা কুর্দিস্তান অঞ্চলে অবস্থান করবে। জার্মানির প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গত ৬ জানুয়ারি তাদের সংসদে একটি চিঠিতে এই ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ক্রোয়েশিয়া তার ১৪ সেনা সদস্যকে ইরাক থেকে সরিয়ে নিয়েছে। তাদের মধ্যে সাতজনকে কুয়েতে পাঠানো হয়েছে এবং বাকিদের নিজ দেশে ফেরত নেওয়া হচ্ছে।

ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যে ইরাকে অবস্থানরত কানাডা তার সেনাদের সাময়িকভাবে প্রতিবেশী কুয়েতে সরিয়ে নিবে বলে কানাডার এক শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তা গতকাল জানিয়েছেন।

ন্যাটো প্রশিক্ষণ মিশন এবং জঙ্গি সংগঠন আইএসের বিরুদ্ধে গঠিত জোটের অংশ হিসেবে প্রায় ২০০ হাঙ্গেরীয় সেনাকে ইরাকের উত্তরাঞ্চলীয় শহর ইরবিলে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

রোমানিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী পৃথক এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ন্যাটো জোটের সঙ্গে ১৪ রোমানীয় সেনাকে সাময়িকভাবে জোটের অন্য ঘাঁটিতে স্থানান্তরিত করা হবে।

আরও পড়ুন:

ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ৮০ জনেরও বেশি মার্কিন সেনা নিহত, দাবি ইরানের

মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর যা বললো ইরান

মার্কিন ঘাঁটিতে ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, উপসাগরীয় অঞ্চলে উড়োজাহাজ চলাচল নিষিদ্ধ

১৮০ জন যাত্রী নিয়ে ইউক্রেনের উড়োজাহাজ তেহরানে বিধ্বস্ত

সোলাইমানির দাফনে পদদলিত হয়ে ৩৫ জনের মৃত্যু

পেন্টাগন-ট্রাম্প পরস্পরবিরোধী বক্তব্য

ইরানের সাংস্কৃতিক স্থাপনায় হামলার হুমকিতে অনড় ট্রাম্প

সেনা প্রত্যাহারের চিঠি ‘ভুল’ ইরাক ছাড়ার পরিকল্পনা নেই: পেন্টাগন প্রধান

ইরান কখনোই পারমাণবিক অস্ত্র বানাতে পারবে না: ট্রাম্প

৭০ ডলার ছাড়িয়েছে প্রতি ব্যারেল তেল

Comments

The Daily Star  | English

Eid rush: People suffer as highways clog up

As thousands of Eid holidaymakers left Dhaka yesterday, many suffered on roads due traffic congestions on three major highways and at an exit point of the capital in the morning.

4h ago