মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে রুশ যুদ্ধজাহাজের ধাওয়া

উপসাগরীয় অঞ্চলে চলমান উত্তেজনার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজের পিছু ধাওয়া করেছে রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ।
Russian-Warship-1.jpg
যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজের পিছু ধাওয়া করছে রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ। ছবি: মার্কিন নৌবাহিনীর পঞ্চম নৌবহরের ভিডিও থেকে নেওয়া

উপসাগরীয় অঞ্চলে চলমান উত্তেজনার মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজের পিছু ধাওয়া করেছে রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ।

বৃহস্পতিবার (৯ জানুয়ারি) উত্তর আরব সাগরে মার্কিন যুদ্ধজাহাজের দিকে ‘আক্রমণাত্মকভাবে’ এগিয়ে গিয়েছিলো রুশ যুদ্ধজাহাজটি।

মার্কিন নৌবাহিনী গতকাল অভিযোগ করেছে, এসময় রাশিয়ার ওই যুদ্ধজাহাজটি মার্কিন জাহাজ থেকে পাঠানো সতর্কতাকে ইচ্ছাকৃতভাবে এড়িয়ে গেছে। 

সিএনএন, ফক্স নিউজ, টাইমসসহ আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজটি খুব দ্রুত এবং আক্রমণাত্মকভাবে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ফারাগাটের পিছু ধাওয়া করছে।

এটাই মার্কিন ও রাশিয়ান সামরিক বাহিনীর মুখোমুখি হওয়ার সর্বশেষ ঘটনা বলে জানিয়েছে সিএনএন। এর মাধ্যমে এই অঞ্চলে উত্তেজনা বৃদ্ধির পেতে পারে বলেও জানিয়েছে মার্কিন নৌবাহিনী।

প্রায় সাত মাস আগে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে মার্কিন ও রাশিয়ার যুদ্ধজাহাজ এতো কাছাকাছি এসেছিলো। তখন দুটি জাহাজের মধ্যে সংঘর্ষ এড়াতে মার্কিন জাহাজকে কৌশল অবলম্বন করতে হয়েছিলো।

মধ্যপ্রাচ্যের জলসীমায় টহলরত মার্কিন নৌবাহিনীর পঞ্চম নৌবহর এক বিবৃতিতে বলেছে, বৃহস্পতিবার উত্তর আরব সাগরে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করার সময় আমাদের ইউএসএস ফারাগাটের দিকে আগ্রাসীভাবে এগিয়ে আসে রাশিয়ার একটি যুদ্ধজাহাজ।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, আন্তর্জাতিক সংকেতের নিয়ম মেনে সংঘর্ষের আশঙ্কা থেকে ইএসএস ফারাগাট পাঁচটি ছোট ছোট বিস্ফোরণ ঘটায়। এছাড়া রাশিয়ান জাহাজটিকে গতিপথ বদলেরও অনুরোধ করা হয়। তবে, প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে গতিপথ বদল করে তারা।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তাদের প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছে, ইউএসএস ফারাগাট বিপজ্জনক কৌশল অবলম্বন করেছিলো। মার্কিন নৌবাহিনী ‘বাস্তবের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়’ এবং তারা ‘অপেশাদারির’ মতো আচরণ করে।

আরও পড়ুন:

উড়োজাহাজ ভূপাতিতের দায় স্বীকারের পর ইরানি প্রেসিডেন্টের ‘গভীর দুঃখপ্রকাশ’

রুশ ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে উড়োজাহাজ ভূপাতিত করেছে ইরান: যুক্তরাষ্ট্র

ইরান সেনাবাহিনীর ‘অনিচ্ছাকৃত’ গোলার আঘাতে ইউক্রেনের উড়োজাহাজ ভূপাতিত

Comments

The Daily Star  | English
national election

Human rights issues in Bangladesh: US to keep expressing concerns

The US will continue to express concerns on the fundamental human rights issues in Bangladesh including the freedom of the press and freedom of association and urge the government to uphold those, said a senior US State Department official

1h ago