হাতে তরবারি মাথায় পাগড়ি, ঘোড়ায় চড়ে কন্যা গেলেন বরের বাড়ি!

টগবগিয়ে চলা দুই ঘোড়ার পিঠে দুই কন্যা। কন্যাদ্বয়ের হাতে রঙিন তরবারি। বাজছে বাদ্য-বাজনা। তারা যুদ্ধে যাচ্ছেন না। নাটক বা সিনেমার শুটিংও নয়। দুই কন্যা যাচ্ছেন বিয়ে করতে, বরের বাড়ি!
sister-bharaat.jpg
ঘোড়ায় চড়ে বিয়ে করতে যাচ্ছেন দুই বোন। ছবি: সংগৃহীত

টগবগিয়ে চলা দুই ঘোড়ার পিঠে দুই কন্যা। কন্যাদ্বয়ের হাতে রঙিন তরবারি। বাজছে বাদ্য-বাজনা। তারা যুদ্ধে যাচ্ছেন না। নাটক বা সিনেমার শুটিংও নয়। দুই কন্যা যাচ্ছেন বিয়ে করতে, বরের বাড়ি!

এমন দৃশ্য দেখে পথচারীদের চক্ষু চড়কগাছ।

ভারতের মধ্যপ্রদেশের খাণ্ডোয়ার বাসিন্দা এই দুই কন্যা। তারা দুই বোন। সাক্ষী পতিদার ও সৃষ্টি পতিদার। মণ্ডপে দুই বর আগে থেকেই অপেক্ষা করছিলেন তাদের জন্য।

পুরো ব্যাপারটি যতোই বিচিত্র হোক, এটি হঠাৎ কোনো নিয়ম ভাঙার তাড়না থেকে ঘটা ঘটনা নয়। মধ্যপ্রদেশের খাণ্ডোয়া অঞ্চলে প্রায় পাঁচশ বছর ধরে চলে আসছে এমন রীতি। সেই রীতি মেনেই বিয়ে হয়েছে এই সহোদরার।

গত ২২ জানুয়ারি ধুমধামের সঙ্গে এই দুটি বিয়ে হয়। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে সৃষ্টি বলেন, “আমি এই সম্প্রদায়ের অংশ হতে পেরে গর্বিত। আমরা এই ঐতিহ্যকে অনুসরণ করি।”

তিনি বলেন, “এটি ৪০০-৫০০ বছরের পুরনো ঐতিহ্য। আমরা ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’ আন্দোলনকে সমর্থন জানাতে এই প্রথাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। এদেশে মেয়েদের শ্রদ্ধা করতে হবে, সম্মান জানাতে হবে। মেয়েরা কোনোদিক দিয়ে পিছিয়ে নেই। তার সবকিছু করতে পারে। বহু পুরনো ইতিহাসে তার প্রমাণ আছে।’’

তিনি আরও বলেন, “আমি অন্য সম্প্রদায়কেও এই পরম্পরাকে গ্রহণ করতে অনুরোধ করছি। আমাদের কন্যাদের সম্মান জানানোর আবেদন জানাচ্ছি।”

Comments

The Daily Star  | English

Youth killed falling into canal in Ctg

A young man was killed falling into a canal in the Asadganj area of port city this afternoon

54m ago