ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে বিএনপির হরতাল

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ব্যাপক ‘কারচুপির’ অভিযোগে ফল প্রত্যাখ্যান করে বিএনপির ডাকা হরতাল আজ রাজধানীতে ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে।
Harta
রাজধানীতে বিএনপির ডাকা হরতাল পালিত হচ্ছে ঢিলেঢালাভাবে। ২ ফেব্রুয়ারি ২০২০। ছবি: আব্দুল্লাহ আল আমীন রুবেল

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ব্যাপক ‘কারচুপির’ অভিযোগে ফল প্রত্যাখ্যান করে বিএনপির ডাকা হরতাল আজ রাজধানীতে ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে।

এর আগে গতকাল সন্ধ্যায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন থেকে সকাল থেকে সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেন।

সিটি নির্বাচনের পরের দিন আজ সকালের দিকে রাস্তায় যানবাহনের সংখ্যা কম থাকলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এদিকে হরতাল ডাকা দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপিকে রাজধানীর রাস্তায় তেমনভাবে চোখে পড়েনি। আবার কোথাও থেকে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার তথ্যও পাওয়া যায়নি।

এর আগে, ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ উভয় সিটি করপোরেশনে ১ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম ও শেখ ফজলে নূর তাপস জয় পেয়েছেন।

দক্ষিণে আওয়ামী লীগের প্রার্থী তাপস ৪ লাখ ৩৬ হাজার ৫৯৫ ভোট পেয়ে বিপুল ব্যবধানে বিএনপির ইশরাক হোসেনকে পরাজিত করেছেন। ইশরাক পেয়েছেন ২ লাখ ৩৬ হাজার ৫১২ ভোট।

অন্যদিকে, উত্তরে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী আতিকুল ৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১১ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির তাবিথ আউয়াল পেয়েছেন ২ লাখ ৬৪ হাজার ১৬১ ভোট।

নির্বাচনে ভোটারদের স্বল্প উপস্থিতি, বিক্ষিপ্ত সহিংসতা ও ভোটকেন্দ্র থেকে বিএনপির পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগের মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী ভোট অনুষ্ঠিত হয়।

এ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ কাজে প্রচলিত ব্যালট পেপারের বদলে পুরোপুরিভাবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হয়। এ নিয়ে ভোটার ও প্রার্থী উভয়ের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

ঢাকার দুই সিটিতে ভোটার রয়েছেন সাড়ে ৫৪ লাখেরও বেশি।

প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী কেন্দ্রে ভোটারদের হাজির হওয়ার হার ছিলো কম। নির্বাচন কমিশন থেকে পাওয়া তথ্য মতে ঢাকা উত্তরে ২৫ শতাংশ এবং দক্ষিণে ২৯ শতাংশ ভোট পড়েছে।

Comments

The Daily Star  | English

Old, unfit vehicles running amok

The bus involved in yesterday’s accident that left 14 dead in Faridpur would not have been on the road had the government not caved in to transport associations’ demand for allowing over 20 years old buses on roads.

6h ago