শরিফুলের জোড়া আঘাতে কাঁপছে ভারত

জোড়া আঘাত করে ভারতকে কাঁপিয়ে দিয়েছেন বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম।
shoriful islam
ছবি: আইসিসি

শুরুতে দুর্দান্ত লাইন-লেংথের পসরা সাজিয়ে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের ওপর তোপ দাগেন পেসাররা। সতীর্থ গতি তারকাদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ইনিংসের মাঝের অংশে কম যাচ্ছেন না বাংলাদেশের স্পিনাররাও। প্রচুর ডট বল খেলিয়ে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরেছেন সবাই মিলে। বাংলাদেশের যুবাদের আঁটসাঁট বোলিংয়ের মাঝে একাই লড়াই করে যাচ্ছিলেন ওপেনার যশস্বী জয়সওয়াল। তাকে সাজঘরে পাঠানোর সঙ্গে সঙ্গে জোড়া আঘাত করে ভারতকে কাঁপিয়ে দিয়েছেন বাঁহাতি পেসার শরিফুল ইসলাম।

এই প্রতিবেদন লেখার সময়, রবিবার (৯ ফেব্রুয়ারি) যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে টস হেরে ব্যাট করছে ভারত। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে ৪১ ওভার শেষে তাদের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১৬১ রান। ধ্রুব জুরেল ৩১ বলে ১৬ ও অথর্ব আনকোলেকার ২ বলে ৩ রানে ক্রিজে আছেন।

দলীয় ৯ রানে দিব্যানশ সাক্সেনা অভিষেক দাসের শিকার হওয়ার পর ৯৪ রানের জুটি গড়ে চাপ সামলে নেন জয়সওয়াল ও তিলক ভার্মা। তবে রানের গতিতে দম দিতে পারেননি তারা। দলের প্রয়োজনের মুহূর্তে আসরে নিজের চতুর্থ ফিফটি তুলে নেন জয়সওয়াল।

বিপজ্জনক হয়ে ওঠা এই জুটি ভেঙে অল্প সময়ের মধ্যে দুবার উইকেট উৎসব করে বাংলাদেশ। ৬৫ বলে ৩৮ করে তানজিম হাসান সাকিবের বলে সীমানার কাছে ক্যাচ দেন ভার্মা। দারুণভাবে বল লুফে নেন দীর্ঘদেহী শরিফুল। এরপর প্রিয়ম গার্গকে তানজিদ হাসানের ক্যাচে পরিণত করেন স্পিনার রাকিবুল হাসান। ভারতীয় অধিনায়ক করেন ৯ বলে ৭ রান।

ইনিংসের শুরুতে আগ্রাসী বোলিং করলেও উইকেট পাননি শরিফুল। তার অপেক্ষার অবসান হয় ৪০তম ওভারে। পঞ্চম ও ষষ্ঠ বলে টানা দুবার উল্লাস করেন তিনি, ভেঙে দেন জয়সওয়াল-জুরেলের ৪২ রানের জুটি। পাশাপাশি ভারতের বড় সংগ্রহের স্বপ্নেও তিনি দেন জোর ধাক্কা।

শরিফুলের শর্ট বল ঠিকভাবে পুল করতে না পেরে শর্ট মিডউইকেটে জয়সওয়াল ক্যাচ দেন তানজিদকে। তার ব্যাট থেকে আসে ১২১ বলে ৮৮ রান। পরের বলটি ফুলটস হলেও ঠিকঠাক খেলতে না পেরে গোল্ডেন ডাকের স্বাদ নিয়ে এলবিডব্লিউ হয়ে যান সিদ্ধেশ বীর।

বাংলাদেশ একাদশ:

তানজিদ হাসান তামিম, পারভেজ হোসেন ইমন, মাহমুদুল হাসান জয়, তৌহিদ হৃদয়, শাহাদাত হোসেন দিপু, আকবর আলি (অধিনায়ক), শামিম হোসেন পাটোয়ারি, তানজিম হাসান সাকিব, রকিবুল হাসান, অভিষেক দাস ও শরিফুল ইসলাম।

ভারত একাদশ:

যশস্বী জয়সওয়াল, দিব্যানশ সাক্সেনা, তিলক ভার্মা, ধ্রুব জুরেল, প্রিয়ম গার্গ (অধিনায়ক), সিদ্ধেশ বীর, অথর্ব আনকোলেকার, রবি বিষ্ণই, সুশান্ত মিশ্র, কার্তিক তিয়াগি, আকাশ সিং।

Comments