আবারও হ্যাকিংয়ের শিকার বার্সেলোনার টুইটার অ্যাকাউন্ট

শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) অলিম্পিক কমিটি ও বার্সার অ্যাকাউন্টগুলো হ্যাকিংয়ের শিকার হয়। ‘আওয়ার মাইন’ চক্রটি এরপর হ্যাকিং নিয়ে বেশ কিছু বার্তা পোস্ট করে সেগুলোতে।
barcelona
ছবি: এএফপি

বিভিন্ন ভাষায় বার্সেলোনার অনেকগুলো অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্ট রয়েছে। সেগুলো দ্বিতীয়বারের মতো হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছিল। ‘আওয়ার মাইন’ নামের একটি চক্র সেগুলো হ্যাক করেছিল। শুধু তা-ই নয়, আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টও হ্যাক করেছিল চক্রটি।

শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) অলিম্পিক কমিটি ও বার্সার অ্যাকাউন্টগুলো হ্যাকিংয়ের শিকার হয়। ‘আওয়ার মাইন’ চক্রটি এরপর হ্যাকিং নিয়ে বেশ কিছু বার্তা পোস্ট করে সেগুলোতে।

স্প্যানিশ লা লিগায় গেতাফের বিপক্ষে বার্সার কষ্টার্জিত জয়ের পরপরই হ্যাকিংয়ের ঘটনা ঘটে। ক্লাবটির বিভিন্ন ভাষার টুইটার অ্যাকাউন্টগুলো থেকে এরপর একই বার্তা দেওয়া হয়, ‘হাই, আমরা আওয়ার মাইন। এই নিয়ে দ্বিতীয়বার। নিরাপত্তাব্যবস্থা আগের চেয়ে ভালো হয়েছে কিন্তু অ্যাকাউন্টকে সম্পূর্ণ নিরাপদ রাখতে এটা এখনও সেরা হয়ে উঠতে পারেনি।’

এর আগেও একবার বার্সেলোনার টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেছিল ‘আওয়ার মাইন’। ২০১৭ সালে হ্যাকিংয়ের ঘটনা ঘটিয়ে তারা বার্তা পোস্ট করেছিল, ‘প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি) থেকে অ্যাঙ্গেল দি মারিয়াকে কিনবে বার্সা।’ তাদের এই দাবির সত্যতা মেলেনি।

এবারও চক্রটি ‘ট্রল’ করতে ছাড়েনি। তারা টুইট করেছে, ২০১৭ সালে পিএসজিতে পাড়ি জমানো নেইমার আবার ফিরতে পারেন ন্যু ক্যাম্পে, ‘হ্যালো, আমরা আওয়ার মাইন। আমরা কিছু গোপন বার্তা পড়েছি এবং মনে হচ্ছে, নেইমার আবার এখানে ফিরে আসবেন।’

বার্সেলোনার আরবি ভাষার অ্যাকাউন্টে ক্লাবের সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউয়ের সরে যাওয়ার দাবি তুলে হ্যাকাররা পোস্ট করেছে, ‘হ্যাশট্যাগ বার্তোমেউ আউট’।

হ্যাক হওয়া অ্যাকাউন্টগুলো পুনরুদ্ধার করতে পেরেছে বার্সেলোনা ও অলিম্পিক কমিটি। হ্যাকিংয়ের এক ঘণ্টার মধ্যে অ্যাকাউন্টগুলোর নিয়ন্ত্রণ নিজেদের কব্জায় নেওয়ার পর কাতালান ক্লাবটি বার্তা দিয়েছে, ‘এফসি বার্সেলোনার টুইটার অ্যাকাউন্টগুলো হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছিল। যে কারণে ক্লাবের বাইরের অনেক বার্তা দেখা গিয়েছিল। সেগুলোতে রিপোর্ট করা হয়েছে এবং মুছে ফেলা হয়েছে।’

টুইটার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বার্সেলোনা ও অলিম্পিক কমিটির অ্যাকাউন্টগুলো হ্যাক হওয়ার বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গে তারা সেগুলো বন্ধ করে দিয়েছিলেন।

অলিম্পিক কমিটির একজন মুখপাত্র বলেছেন, হ্যাকিংয়ের ঘটনা তারা তদন্ত করছেন। আর বার্সেলোনার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এমন ঘটনা এড়াতে তদন্ত করে নিরাপত্তাব্যবস্থা বাড়ানো হবে।

Comments

The Daily Star  | English
Impact of poverty on child marriages in Rasulpur

The child brides of Rasulpur

As Meem tended to the child, a group of girls around her age strolled past the yard.

13h ago