রাবি অধ্যাপকের বিরুদ্ধে ১২ ছাত্রীর যৌন হয়রানির অভিযোগ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন হয়রানি নিপীড়ন রোধ সেলে ১২ জন ছাত্রী লিখিত অভিযোগপত্র জমা দেন।
রাবি
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। ফাইল ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন হয়রানি নিপীড়ন রোধ সেলে ১২ জন ছাত্রী লিখিত অভিযোগপত্র জমা দেন।

যৌন নিপীড়ন নিরোধ সেলের সদস্য অধ্যাপক ড. লায়লা আরজুমান বানু দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, অভিযুক্ত শিক্ষক চারুকলা অনুষদের গ্রাফিক্স ডিজাইন, কারুশিল্প ও শিল্পকলার ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক।

তিনি বলেন, এটা খুবই দুঃখজনক যে ওই বিভাগের ১২ জন শিক্ষার্থী একই শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ জানিয়েছেন।

ওই শিক্ষক বিভিন্নভাবে শারীরিক এবং মানসিকভাবে শিক্ষার্থীদের উত্ত্যক্ত করেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে।

শিক্ষার্থীরা বলেন, এই বিষয়ে অনেকেই জানে কিন্তু এতদিন পর্যন্ত কেউই কোনো কথা বলেনি। আমরা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত। পড়াশোনা এবং অন্যান্য কাজে মনোযোগ দিতে পারছি না।

ঘণ্টার পর ঘণ্টা কোনো কারণ ছাড়াই নিজ অফিসে ডেকে বসিয়ে রাখতেন ওই শিক্ষক। একজন শিক্ষার্থী বলেন, ‘খোলামেলা আলোচনার কথা বলে তিনি বিভিন্ন ধরনের কুরুচিপূর্ণ কথা বলেন, অপমান করে কথা বলেন। এমনকি সবার সামনে গায়ে হাতও দিয়েছেন।’

বিভিন্ন সময় ওই অধ্যাপক শ্রেণিকক্ষে নারীদেহের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ নিয়ে ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেছেন বলেও অভিযোগ করেন আরেক শিক্ষার্থী। 

‘ক্লাসে তিনি বিভাগের অন্যান্য নারী শিক্ষকদের ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে অশালীন মন্তব্য করেন। ফেসবুক মেসেঞ্জারে তিনি আমাকে আপত্তিকর ছবি এবং ভিডিও পাঠিয়েছেন।’

অভিযুক্ত শিক্ষক বলেন, ‘আমি এসবের কিছুই জানি না। ২৬ বছর ধরে আমি শিক্ষকতা করছি। এরকম কোনো কিছুর সঙ্গে আমি জড়িত নই।’

চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক শংকর তালুকদারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘কিছু শিক্ষার্থী কয়েকদিন আগে আমার কাছে মৌখিকভাবে অভিযোগ জানিয়েছিলেন। এর আগে এ বিষয়ে খুব বেশি কিছু জানতাম না। অভিযোগ প্রমাণিত হলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ যথাযথ পদক্ষেপ নেবে।’

যৌন নিপীড়ন নিরোধ সেলের সদস্য অধ্যাপক ড. লায়লা আরজুমান বানু বলেন, ‘অভিযোগগুলোকে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রমাণিত হলে আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নেব।’

Comments

The Daily Star  | English

Hiring begins with bribery

UN independent experts say Bangladeshi workers pay up to 8 times for migration alone due to corruption of Malaysia ministries, Bangladesh mission and syndicates

13m ago