আন্তর্জাতিক

করোনাভাইরাস: দক্ষিণ কোরিয়ায় আতঙ্ক কমছে না

চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে শুরু হওয়া করোনাভাইরাস এখন বিশ্বের ৫৬টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যে, দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালি ও ইরানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব দ্রুত গতিতে বাড়ছে।
Coronavirus
করোনাভাইরাস থেকে নিজেদের রক্ষায় মাস্ক পরেই ধর্মীয় উপাসনালয়ে প্রার্থনা করছেন দক্ষিণ কোরিয়ার নাগরিকরা। ছবি: রয়টার্স

চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে শুরু হওয়া করোনাভাইরাস এখন বিশ্বের ৫৬টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যে, দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালি ও ইরানে ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব দ্রুত গতিতে বাড়ছে।

ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজার ৮৫৮ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩ হাজারেরও বেশি মানুষ।

আজ শুক্রবার সিএনএন ও সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

চীনের সরকারি হিসাবে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজার ৭৮৮ জন। আক্রান্ত প্রায় ৭৯ হাজার।

চীন থেকে ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসটিতে আক্রান্তের সংখ্যা চীনে কমতে শুরু করলেও বাড়তে শুরু করেছে অন্য দেশে। চীনের পরে বেশি আক্রান্ত ব্যক্তি রয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ায়।

গতকাল দক্ষিণ কোরিয়ার সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন জানিয়েছে, বিগত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে নতুন আক্রান্ত হয়েছেন ৫০০ জন।

আজ সকাল পর্যন্ত নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ২৫৬। সবমিলিয়ে সেখানে মোট আক্রান্ত ২ হাজার ২২ জন এবং মারা গেছেন ১৩ জন।

এ ছাড়া, ইতালিতে আক্রান্ত ৬৫০ জন এবং মারা গেছেন ১৭ জন। ইরানে আক্রান্ত ২৪৫ জন এবং মারা গেছেন ২৬ জন। তাদের অধিকাংশই কোম শহরে। ইরানের সরকারি হিসাব অনুযায়ী, দেশটির উপস্বাস্থ্যমন্ত্রী, উপরাষ্ট্রপতিসহ অন্তত সাত সরকারি কর্মকর্তাও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

জাপানে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা ডায়মন্ড প্রিন্সেস জাহাজে আক্রান্ত হয়েছেন ৭০৫ জন এবং মারা গেছেন চার জন।

আরও পড়ুন:

ইরানের উপরাষ্ট্রপতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত

Comments

The Daily Star  | English

Iran's President Raisi, foreign minister killed in helicopter crash

President Raisi, the foreign minister and all the passengers in the helicopter were killed in the crash, senior Iranian official told Reuters

3h ago