খেলা

‘প্রমাণ করার জন্য ক্রিকেট খেলছি না, বাংলাদেশের হয়ে খেলছি’

প্রায় সাত মাস পর মাঠে ফেরার আগে সার্বিক পরিস্থিতি বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়কের অনুকূলে নেই। এই অবস্থা বদলাতে কি নতুন করে নিজেকে প্রমাণ করতে হবে তার? এমন কোনো তাগিদ কি তিনি অনুভব করছেন?
mashrafe
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

প্রায় সাত মাস পর জাতীয় দলের জার্সিতে খেলতে যাচ্ছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। মাঝের সময়টায় বাংলাদেশের ওয়ানডে সিরিজই ছিল কেবল একটি। শ্রীলঙ্কার মাটিতে সেই সফরে চোটের কারণে যাওয়া হয়নি তার। কিন্তু জিম্বাবুয়ে সিরিজের আগে তার অবসরের বিষয়টি দেশের ক্রিকেটের অন্যতম আলোচিত প্রসঙ্গ। সঙ্গে সবশেষ ম্যাচগুলোতে তার হতশ্রী পারফরম্যান্স তো আছেই। মাঠে ফেরার আগে সার্বিক পরিস্থিতি তাই বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়কের অনুকূলে নেই। এই অবস্থা বদলাতে কি নতুন করে নিজেকে প্রমাণ করতে হবে তার? এমন কোনো তাগিদ কি তিনি অনুভব করছেন?

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের আগে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) এমন প্রশ্ন গেল মাশরাফির কাছে। প্রাসঙ্গিক বটে। কেবল ওয়ানডে সংস্করণেই খেলা ডানহাতি পেসার শেষ দশ ম্যাচে পেয়েছেন মোটে ১ উইকেট। তাছাড়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নাজমুল হাসান পাপনও কদিন আগে জানিয়েছেন, আগামী বোর্ড সভায় অধিনায়কের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। অর্থাৎ মাশরাফি দায়িত্বে থাকতে পারেন, না-ও পারেন। আর নেতৃত্ব হারালে তাকে দলে থাকতে হবে পারফর্ম করে। তবে সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান এক্ষেত্রে মাশরাফির পক্ষে কথা বলছে না।

২০০১ সাল থেকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে খেলা ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ খ্যাত পেসার অবশ্য ক্যারিয়ারের সায়াহ্নে এসে নিজেকে নতুন করে চেনানোর কথা ভাবছেন না। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার অবসর নিয়ে যে ইস্যু তৈরি হয়েছে তা নিয়েও মাথা ঘামাচ্ছেন না। দেশের প্রতিনিধিত্ব করা, মাঠে শতভাগ উজাড় করে দেওয়া এবং দলীয় পারফরম্যান্স দেখিয়ে জেতা- এসবই তার কাছে মুখ্য।

‘না, এটা না। আমি নিশ্চয়তা দিতে পারব না যে, আমি পারফর্ম করব। এই নিশ্চয়তা বিশ্বের কেউই দিতে পারবে না। তবে একটা নিশ্চয়তা দেওয়া যায়, আমি শতভাগ চেষ্টা করছি কিনা। একটা খেলোয়াড়ের মূল জায়গা হচ্ছে, (সে) শতভাগ চেষ্টা করছে কিনা। টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে প্রশ্ন থাকলেও থাকতে পারে, ডেডিকেশন ঠিক মতো আছে কিনা। সেই জায়গাগুলো প্রশ্নবিদ্ধ থাকলে, আমি মনে করি, অনেক কিছু পরিবর্তন করার আছে। কিন্তু পৃথিবীর কোনো খেলোয়াড় নিশ্চয়তা দিতে পারবে না যে, সে মাঠে পারফর্ম করবে। আগেও বলেছি, এতদিন কাউকে প্রমাণ দিতে ক্রিকেট খেলিনি, নিজের ক্রিকেট খেলেছি।’

‘সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, সোশ্যাল মিডিয়ার প্রশ্ন আমাকে করে লাভ নেই। আপনার মনে যেটা আছে, সেটা করেন। এখন যদি আপনার মনে হয়, আমাকে প্রমাণ করতে হবে... আমি প্রমাণ করার জন্য ক্রিকেট খেলছি না। আমি বাংলাদেশের হয়ে খেলছি, বাংলাদেশকে জেতানো আমাদের প্রত্যেকটা খেলোয়াড়ের দায়িত্ব। সেরাটা দেওয়া আমাদের দায়িত্ব। সেটা আমরা সব সময় চেষ্টা করি। নিশ্চয়তা তো কোনো খেলোয়াড়ই দিতে পারে না।’

Comments

The Daily Star  | English