মেসি বনাম রামোস: চ্যাপ্টার ৪১

লিওনেল মেসি বনাম সার্জিও রামোস। একজন বার্সেলোনার আক্রমণভাগের মধ্যমণি। আরেকজন রিয়াল মাদ্রিদের রক্ষণভাগের মূল স্তম্ভ। ৪১তম বারের মতো একে অপরের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন দুই তারকা ফুটবলার।
messi and ramos
ছবি: এএফপি

লিওনেল মেসি বনাম সার্জিও রামোস। একজন বার্সেলোনার আক্রমণভাগের মধ্যমণি। আরেকজন রিয়াল মাদ্রিদের রক্ষণভাগের মূল স্তম্ভ। ৪১তম বারের মতো একে অপরের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন দুই তারকা ফুটবলার।

স্প্যানিশ লা লিগার ২০১৯-২০ মৌসুমের দ্বিতীয় এল ক্লাসিকোতে মাঠে নামছে রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা। বিশ্বের ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর ম্যাচটি রবিবার বাংলাদেশ সময় রাত দুইটায় শুরু হবে।

ম্যাচের ভেন্যু রিয়ালের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যু। বার্সেলোনার ডেরা ন্যু ক্যাম্পে গেল ডিসেম্বরে দুদলের আগের ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছিল।

বরাবরের মতো এবারের মৌসুমেও লা লিগার শিরোপা জয়ের দৌড়ে রয়েছে বার্সেলোনা ও রিয়াল। ২৫ ম্যাচে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মেসিরা। সমান ম্যাচে ৫৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে স্পেনের সফলতম ক্লাব রিয়াল।

বার্সা-রিয়ালের প্রতিদ্বন্দ্বিতার মতো আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড মেসি আর স্প্যানিশ ডিফেন্ডার রামোসের দ্বৈরথও ফুটবল ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে গেছে। এল ক্লাসিকোতে দুজনের দেখা হয়ে যাওয়া মানেই ফুটবলপ্রেমীদের জন্য নতুন কোনো আলোচনার খোরাক।

১৪ বছর আগে প্রথমবারের মতো মেসি আর রামোসের পথ একবিন্দুতে এসে মিলেছিল। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ওই ম্যাচে ৩-০ ব্যবধানে স্বাগতিক রিয়ালকে উড়িয়ে দিয়েছিল বার্সেলোনা।

আগের ৪০ বারের দেখায় জয়ের পরিসংখ্যানে এগিয়ে মেসি। তার ১৯ জয়ের বিপরীতে রামোসের জয় ১২ ম্যাচে।

মেসি যেহেতু বার্সেলোনার আক্রমণভাগের কাণ্ডারি, তাই বলে না দিলেও চলে এল ক্লাসিকোতে গোল করায় তিনিই যোজন যোজন ব্যবধানে এগিয়ে। রিয়ালের বিপক্ষে তার গোল ২৬টি, বার্সার বিপক্ষে রামোসের গোল চারটি।

একই এল ক্লাসিকোতে দুজনেরই গোল করার প্রথম নজিরটি হয়েছিল ২০০৭ সালে। ন্যু ক্যাম্পে ৩-৩ ব্যবধানে ড্র হওয়া ম্যাচে দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক পেয়েছিলেন ১৯ বছরের মেসি। রিয়ালের হয়ে তৃতীয় গোলটি করেছিলেন রামোস।

২০০৫ সালে রিয়ালে যোগ দেওয়ার পর ঘরের মাঠে প্রথম দুটি এল ক্লাসিকোতে বার্সাকে হারানোর স্বাদ নিয়েছিলেন রামোস। কিন্তু এরপর সান্তিয়াগো বার্নাব্যুকে যেন নিজেদের আঙিনা বানিয়ে নিয়েছে কাতালানরা।

গেল এক দশকে লা লিগায় ঘরের মাঠে কেবল দুবার বার্সাকে হারাতে পেরেছে লস ব্লাঙ্কোসরা। ২০১২-১৩ ও ২০১৪-১৫ মৌসুমে যথাক্রমে ২-১ ও ৩-১ গোলে জিতেছিল তারা।

২০০৮-০৯ মৌসুমে সাবেক কোচ পেপ গার্দিওলা বার্সার দায়িত্ব নিয়েছিলেন। এরপর অনুষ্ঠিত হওয়া লিগের ২১ এল ক্লাসিকোর ১৩টিতে জিতেছে দলটি। রিয়ালের জয় মাত্র চারটিতে। বাকি চারটি ম্যাচ শেষ হয়েছে অমীমাংসিতভাবে।

বিভিন্ন প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৪৩তম বারের মতো মুখোমুখি হতে যাচ্ছে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সা ও রিয়াল। জয়ের পরিসংখ্যানে রামোসদের চেয়ে সামান্য ব্যবধানে এগিয়ে মেসিরা। বার্সার জয় ৯৬টি, রিয়ালের ৯৫টি।

Comments

The Daily Star  | English

PM visits areas devastated by Cyclone Remal

Prime Minister Sheikh Hasina today visited the most affected areas in the country's south by Cyclone Remal

30m ago